২৭ অক্টোবর ২০২০

২০২০ সালের পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি : পর্বসংখ্যা-৮২

বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় ষষ্ঠ অধ্যায় : জলবায়ু ও দুর্যোগ
-

প্রিয় পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ তোমাদের বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বিষয়ের ‘ষষ্ঠ অধ্যায় : জলবায়ু ও দুর্যোগ’ থেকে আরো ৬টি সংক্ষিপ্ত উত্তর প্রশ্ন এবং ৩টি প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও নিয়ে আলোচনা করা হলো।
সংক্ষিপ্ত উত্তর প্রশ্ন
প্রশ্ন : প্রতিটি দুর্যোগ মোকাবেলায় আমরা কী করব?
উত্তর : নিজেদের প্রস্তুত রাখব।
প্রশ্ন : দুর্যোগের পূর্বাভাস জানতে পারলে কী করব?
উত্তর : সাথে সাথে এলাকায় মাইকযোগে প্রচার করে মানুষকে সতর্ক করব।
প্রশ্ন : বাংলাদেশে শতকরা কত ভাগ এলাকায় বিভিন্ন ধরনের দুর্যোগ ঘটে?
উত্তর : বাংলাদেশে শতকরা প্রায় ৬৪ ভাগ এলাকায় বিভিন্ন ধরনের দুর্যোগ ঘটে।
প্রশ্ন : দীর্ঘকাল ধরে শুষ্ক আবহাওয়া ও অপর্যাপ্ত বৃষ্টিপাতের কারণে কী হবে?
উত্তর : খরা হবে।
প্রশ্ন : মানুষ সচেতন ও সতর্ক থাকলে কী থেকে আত্মরক্ষা করতে পারে?
উত্তর : প্রাকৃতিক দুর্যোগ।
প্রশ্ন : জ্বর, ডায়রিয়া, হাম, ইনফ্লুয়েঞ্জা, আমাশয়সহ নানা অসুখে ভোগে কারা? উত্তর : শিশুরা।
প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও
প্রশ্ন : বাংলাদেশের কোন অঞ্চলগুলোতে নদীভাঙনের প্রবণতা রয়েছে? কেন?
উত্তর : বন্যা নদীভাঙনের একটি অন্যতম প্রাকৃতিক কারণ। বন্যার অতিরিক্ত স্রোত ও ঢেউ নদীর পাড়ে আঘাত হানে, ফলে বন্যার সময় নদীভাঙন মারাত্মক রূপ ধারণ করে। অন্য দিকে মানবসৃষ্ট কারণের মধ্যে রয়েছেÑ নদী থেকে বালু উত্তোলন ও নদীতীরবর্তী এলাকার গাছপালা কেটে ফেলা। এসব কারণে বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে নদীভাঙনের প্রবণতা রয়েছে।
প্রশ্ন : বাংলাদেশের কোন অঞ্চলগুলোতে খরা বেশি হয়? কেন?
উত্তর : বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে খরার প্রবণতা বেশি। অপর্যাপ্ত বৃষ্টিপাত এবং অল্পসংখ্যক নদী থাকার কারণে এসব অঞ্চলে খরা বেশি হয়। এটা হলো প্রাকৃতিক কারণ। এ ছাড়াও মানবসৃষ্ট কারণের মধ্যে রয়েছেÑ গাছ কেটে ফেলা, কল-কারখানার মাধ্যমে সৃষ্ট বায়ুদূষণ। ফলে এসব অঞ্চলের তাপমাত্রা বেড়ে যায় এবং পরিবেশ শুষ্ক হয়ে যায়। এসব কারণেই আমাদের দেশের কোনো কোনো অঞ্চল বিশেষ করে উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে খরা দেখা দেয়।
প্রশ্ন : বাংলাদেশের কোন অঞ্চলগুলো ভূমিকম্পপ্র্রবণ? কেন?
উত্তর : বাংলাদেশ ভৌগোলিক অবস্থানগত কারণেই ভূমিকম্পের নিশ্চিত ঝুঁকিতে রয়েছে। বাংলাদেশের ঢাকা, সিলেট, রংপুর ও চট্টগ্রাম অঞ্চলে ভূমিকম্পের ঝুঁকি বেশি রয়েছে। এসব অঞ্চলে অপরিকল্পিতভাবে ভবন নির্মাণ করার কারণে ভূমিকম্পের ঝুঁকিতে রয়েছে।

 


আরো সংবাদ