৩১ মে ২০২০

জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষার প্রস্তুতি : বিজ্ঞান দশম অধ্যায় : অম্ল, ক্ষারক ও লবণ

-

সুপ্রিয় জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষার শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ তোমাদের বিজ্ঞান বিষয়ের ‘দশম অধ্যায় : অম্ল, ক্ষারক ও লবণ’ থেকে একটি নমুনা সৃজনশীল প্রশ্ন ও তার উত্তর নিয়ে আলোচনা করা হলো।
নিচের উদ্দীপকটি পড়ে প্রশ্নের উত্তর দাও।
রহিমা বেগম পান খাওয়ার জন্য একটি পাত্রে চুন ভিজিয়ে রাখলেন। পাত্র থেকে চুন নেয়ার সময় লক্ষ করলেন, পাত্রটি অনেক গরম এবং পাত্রে তার নিঃশ্বাস পড়ায় পানি খানিকটা ঘোলা হয়ে যায়।
ক. এসিড কী? ১
খ. নির্দেশক বলতে কী বুঝায়? ২
গ. উদ্দীপকে উল্লিখিত পাত্রে ভিজানো যৌগটির বিভিন্ন ক্ষেত্রে ব্যবহার ব্যাখ্যা করো। ৩
ঘ. উদ্দীপকে প্রথম উৎপন্ন যৌগটির ক্ষার ও ক্ষারক উভয় ধর্ম প্রদর্শন করে যুক্তিসহ বিশ্লেষণ করো। ৪
উত্তর : ক. যে সমস্ত পদার্থ পানিতে হাইড্রোজেন আয়ন (ঐ+) উৎপন্ন করে তাদেরকে এসিড বলে।
খ. যেসব পদার্থ নিজেদের রঙ পরিবর্তনের মাধ্যমে কোনো একটি বস্তু অম্ল না ক্ষার বা নিরপেক্ষ তা নির্দেশ করে তাদেরকে নির্দেশক বলে। যেমনÑ লিটমাস কাগজ, মিথাইল অরেঞ্জ, ফ্যানফথ্যালিন ইত্যাদি।
গ. উদ্দীপকে উল্লিখিত পাত্রে ভিজানো যৌগটি হলো ঈধ(ঙঐ) ২, যৌগটির বিভিন্ন ক্ষেত্রে ব্যবহার রয়েছে। যেমনÑ১. শুকনো ক্যালসিয়াম হাইড্রোক্সাইড ও ক্লোরিন গ্যাসের বিক্রিয়া ঘটিয়ে ব্লিচিং পাউডার তৈরি হয়।
২. এর পাতলা দ্রবণ যা চুনের পানি বা লাইম ওয়াটার নামে পরিচিত সেটি আমাদের ঘরবাড়ি হোয়াইট ওয়াশ করতে ব্যবহার করা হয়।
৩. পানি ও ক্যালসিয়াম হাইড্রোক্সাইডের তৈরি পেস্ট যা মিল্ক অব লাইম নামে অধিক পরিচিত, তা পোকামাকড় দমনে ব্যবহৃত হয়।
ঘ. উদ্দীপকে আলোচিত বিক্রিয়াটি নি¤œরূপ : ঈধঙ+ঐ২ঙ মঈধ(ঙঐ)২
আমরা জানি, ক্ষারক হলো ধাতব অক্সাইড বা হাইড্রোক্সাইড। ঈধঙ হলো ধাতব অক্সাইড। সুতরাং এটি ক্ষারক। যে সব ক্ষারক পানিতে দ্রবীভূত হয় তাদেরকে ক্ষার বলে। ওপরের বিক্রিয়ায় লক্ষণীয় যে, ঈধঙ পানির সাথে বিক্রিয়া করে ঈধ(ঙঐ)২ তৈরি করে। সুতরাং ঈধঙ যৌগটি একই সাথে ক্ষার ও ক্ষারক উভয় ধর্ম প্রদর্শন করে।

 


আরো সংবাদ