৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ন ১৪২৯, ৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

সুনামগঞ্জের শাল্লায় কিশোরী ধর্ষণকারী চেয়ারম্যান-মেম্বার গ্রেফতার

সুনামগঞ্জের শাল্লায় কিশোরী ধর্ষণকারী চেয়ারম্যান-মেম্বার গ্রেফতার -

নিজ কার্যালয়ে কিশোরীকে তুলে এনে ধর্ষণের মামলার আসামি উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার বাহাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিশ্বজিৎ চৌধুরী নান্টু ও মেম্বার দেবব্রত দাসকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার বিকেল ৪টার দিকে সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) সুমন মিয়ার নেতৃত্বে গোপন সংবাদে অভিযান চালিয় জেলা শহর থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

চেয়ারম্যান নান্টু ও মেম্বার দেবব্রতকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সুনামগঞ্জের
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দিরাই সার্কেল আবু সুফিয়ান।

গত দু’সপ্তাহ আগে রাতে ইউনিয়ন পরিষদের কার্যালয়ে এক কিশোরীকে (১৭) আটকে রেখে মেম্বারকে সাথে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে শাল্লা থানায় মামলা করে কিশোরী। মামলার পর থেকে পলাতক ছিলেন চেয়ারম্যান মেম্বার।

গত বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) শাল্লা উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক নওশের মনির তার ফেসবুক আইডি থেকে সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এনামুল কবির ইমনের সাথে প্রকাশ্য সমাবেশের ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। জেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রচারণা সভায় চেয়ারম্যান নান্টু বাহাড়া ইউনিয়ন পরিষদের কার্যালয়ে উপস্থিত দেখা যায়। এতে ক্ষোভ দেখা দেয় শাল্লা উপজেলার সাধারণ মানুষের মাঝে। থানা থেকে মাত্র ১০০ মিটার দূরে ইউনিয়ন পরিষদের কার্যালয়ে কিভাবে পলাতক আসামি মিটিং করে এ নিয়ে জনমনে নানা প্রশ্ন দেখা দেয়। মিটিংয়ের ছবি ভাইরাল হয় ফেসবুকে।

বিষয়টি নিয়ে শাল্লা থানা পুলিশের কাছে জানতে চাইলে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম বলেন, জেলা পরিষদের নির্বাচনি প্রচারণায় ধর্ষণ মামলায় পলাতক আসামি চেয়ারম্যান নান্টুর উপস্থিতির খবর তারা জানতেন না। ছবির খবরটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ায় পুলিশ বাহিনীর নজরে আসে। তারা আসামিদের গ্রেফতারে তৎপরতা বৃদ্ধি করে। শুক্রবার বিকেলে দু’আসামিকে সুনামগঞ্জ শহর থেকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় পুলিশ।

সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দিরাই সার্কেল আবু সুফিয়ান নয়া দিগন্তকে ধর্ষক চেয়ারম্যান ও মেম্বারকে গ্রেফতারের বিষয় নিশ্চিত করে জানান, শাল্লা থানায় দায়েরকৃত কিশোরী ধর্ষণের মামলার দু’আসামিকে সুনামগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) সুমন মিয়ার নেতৃত্ব গোপন সংবাদে অভিযান চালিয়ে জেলা শহর থেকে চেয়ারম্যান বিশ্বজিৎ রায় নান্টু ও মেম্বার দেবব্রত দাসকে গ্রেফতার করা হয়েছে।


আরো সংবাদ


premium cement