২৭ নভেম্বর ২০২০

ধীরগতি হলেও পিবিআই’র তদন্ত কাজ নিয়ে আশাবাদি রায়হানের পরিবার

ধীরগতি হলেও পিবিআই’র তদন্ত কাজ নিয়ে আশাবাদি রায়হানের পরিবার - সংগৃহীত

রায়হান হত্যা মামলায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) তদন্ত কাজে ধীরগতি হলেও এখন পর্যন্ত এই তদন্ত কাজ নিয়ে আশাবাদি রায়হানের পরিবার ও এলাকাবাসী। বৃহস্পতিবার পিবিআই সিলেট কার্যালয় থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের কাছে এ মন্তব‍্য করেন সিলেট সিটি করপোরেশনের ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মখলিছুর রহমান কামরান।

সংবাদ সম্মেলন করে দেয়া ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম শেষ হলে বুধবার দুপুরে তিন দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করে রায়হানের পরিবার ও এলাকাবাসী।

কর্মসূচিগুলো হচ্ছে, বৃহস্পতিবার পরিবার ও এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে এ মামলার তদন্ত সংশ্লিষ্ট পিবিআই কর্মকর্তাদের সাথে সাক্ষাৎ, শুক্রবার বাদ জুমা নগরীর প্রত্যেকটি মসজিদে রায়হানের জন্য দোয়া মাহফিল ও পরদিন শনিবার বিকেল ৪টায় এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে মদিনা মার্কেটে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন।

ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে রায়হানের পরিবারের সদস‍্যবৃন্দ ও এলাকার মুরুব্বিয়ান বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে সিলেট নগরীর শাহজালাল উপ-শহরের কাছে পিবিআই কার্যালয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সাথে সাক্ষাৎ করেন। এসময় তাদেরকে রায়হান হত্যার সাথে জড়িত সবাইকে শাস্তির আওতায় নিয়ে আসার আশ্বাস দেন সিলেট পিবিআই'র এসপি খালেকুজ্জামান।

পিবিআই কার্যালয় থেকে বেরিয়ে স্থানীয় কাউন্সিলর মখলিছুর রহমান কামরান সাংবাদিকদের বলেন, যদিও তদন্ত কাজে ধীরগতি রয়েছে, তবু তাদের কাজ আমাদের কাছে পজিটিভ। কারণ পিবিআই'র হাতে তদন্তভার যাওয়ার পর অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কয়েকটি পদক্ষেপ নিতে দেখা গেছে। এতে আমরা আশাবাদি।

তিনি বলেন, সাক্ষাৎকালে এসপি খালেকুজ্জামান আমাদের একটু ধৈর্য ধরতে এবং সময় দিতে বলেছেন। তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেছেন, রায়হানের করুণ মৃত্যুর সাথে জড়িত সবাই শাস্তির আওতায় আসবে। তার এই কথায় আমরাও আশা রাখছি, এসআই আকবর গ্রেফতারসহ সকল দোষী ব্যক্তিকে দ্রুত শাস্তির আওতায় নিয়ে আসা হবে।


আরো সংবাদ