১২ জুলাই ২০২০

শ্রীমঙ্গলে পৌর কাউন্সিলর ও ডাক্তার করোনায় আক্রান্ত

শ্রীমঙ্গলে পৌর কাউন্সিলর ও ডাক্তার করোনায় আক্রান্ত -

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে এবার পৌর কাউন্সিলরসহ এক চিকিৎসক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে এই উপজেলায় মোট ১২জন করোনা রোগি শনাক্ত হলো।

এর আগে দশজনের শরীরে করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে। এদের মধ্যে এক কলেজ ছাত্রী করোনার সুস্থ হয়েছেন। বাকীরা এখনো নিজ নিজ বাসায় আইসোলেশনে আছেন। তবে এদের মধ্যে অনেকেরই বর্তমানে করোনা উপসর্গ নেই বলে জানা গেছে।

সোমবার (২৫ মে) রাতে সিলেট ল্যাব থেকে নতুন করে এই দুইজনের করোনা পরীক্ষার রির্পোট পজেটিভ আসে। এদের একজন ৬০ বছর বয়সী শ্রীমঙ্গল পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর। তার বাসা শহরের কালিঘাট সড়কে। অপরজন হলেন ২৬ বছর বয়সী শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার। তিনি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক কোয়াটারে থাকেন।

তারা দুইজনই গত কয়েক দিন ধরে শারীরিকভাবে অসুস্থতা বোধ করায় গত ২৩ মে তাদের দুই জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য সিলেট ল্যাবে পাঠানো হয়েছিল। শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম বলেন, করোনা আক্রান্ত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসককে হোম আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। এছাড়া করোনা আক্রান্ত ওই চিকিৎসকের সংস্পর্শে থাকা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অন্য আরও চারজন ডাক্তারকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এছাড়া করোনা আক্রান্ত কাউন্সিলাররের বাসা লকডাউন করে তাকেও হোম আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

এর আগে গত ২৪ মে রাতে শ্রীমঙ্গলে আওয়ামী লীগ নেতাসহ একদিনে চারজন করোনা রোগী শনাক্ত হয়। তারা হলেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও শহরের আছদ্দর আলী সড়কের বাসিন্দা। এছাড়া মাষ্টারপাড়া আবাসিক এলাকার একজন। তিনি মেঘনা তেলের ডিপোতে কাজ করেন। অন্য দু’জন উপজেলার আশিদ্রোন ইউনিয়নের টিকরিয়া গ্রামের। এ দু’জনের মধ্যে একজন শহরের একটি ফার্মেসিতে কর্মরত ছিলেন। অন্যজন শহরের নতুনবাজার এলাকায় একটি চালের আড়তের কর্মচারী।


আরো সংবাদ