০২ অক্টোবর ২০২২, ১৭ আশ্বিন ১৪২৯, ৫ রবিউল আওয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

'২৫ লাখ বাইরের ভোটার কাশ্মীরে আনছে বিজেপি'

'২৫ লাখ বাইরের ভোটার কাশ্মীরে আনছে বিজেপি' - ছবি : সংগৃহীত

জম্মু ও কাশ্মীরের মুখ্য নির্বাচনী কমিশনার হিরদেশ কুমার সিং জানিয়েছেন, কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে 'স্পেশ্যাল সামারি রিভিশন অফ ইলেকট্রোরাল রোলস' এর ফলে ২৫ লাখ নতুন ভোটার তালিকাভুক্ত হতে যাচ্ছে। ২০১৯ সালের ১ জানুয়ারি থেকে এ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। ৩৭০ ধারা কাশ্মীর থেকে বিলুপ্তির পর এ নতুন এ তালিকার কাজ শুরু হয়। বিষয়টি নিয়ে ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন জম্মু ও কাশ্মীরের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। মুখ্য নির্বাচনী কমিশনারের বক্তব্যের ফলে কাশ্মীরের নির্বাচনে যে কেউ অংশ নিতে পারবেন। কেননা ৩৭০ ধারায় নির্বাচনে অংশ নিতে সাধারণ বসবাসকারী যে কাশ্মিরের বাসিন্দা হতেই হবে, এমন শর্ত শিথিল করা হয়েছে। এত করে কাশ্মীরের স্থায়ী বাসিন্দা নন এমন ব্যবসায়ী, পড়ুয়া, সেনা কর্মী, জওয়ান, শ্রমিক, যে কেউই ভোটদানে অংশ নিতে পারবেন। নির্বাচন কমিশনের এমন পদক্ষেপকে জম্মু ও কাশ্মীরের বাসিন্দাদের ভোটদানের ক্ষমতা খর্ব করার নামান্তর বলে দাবি করেছেন জম্মু ও কাশ্মীরের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। তিনি বলেন, এতে কাশ্মীরের মানুষের ভোটাধিকার খর্ব হবে। কেননা এর ফলে ২৫ লাখ বাইরের ভোটার ভোট দেয়ার সুযোগ পাবে। মেহবুবাব মুফতি বলেন, জম্মু ও কাশ্মীরে তারা (বিজেপি) ফ্যাসিবাদীদের আনতে চাইছে। এজন্য ভূয়া নির্বাচনকে ব্যবহার করা হচ্ছে। তিন বছর তারা এখানের (জম্মু ও কাশ্মীর) মানুষকে সরাসরিভাবে শাসন করেছে, তাতেও সমস্যা মেটাতে পারেনি। এখন তারা পিছনের দরজার পথ ব্যবহার করছে। তিনি আরো বলেন, ২০১৯ সালের পর জিপি দেশের সংবিধান পাল্টে দিয়েছে। এবার আসলে তারা পতাকার রঙ গেরুরা হয়ে যাবে। এসময় তিনি সবাইকে একজোট হয়ে বিরোধিতার আহ্বান জানান। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

 

 

 


আরো সংবাদ


premium cement