০২ অক্টোবর ২০২২, ১৭ আশ্বিন ১৪২৯, ৫ রবিউল আওয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

টিপু সুলতান ও সাভরকরের ছবি নিয়ে দ্বন্দ্ব, আবারো উত্তপ্ত কর্ণাটক

মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ। - ছবি : সংগৃহীত

স্বাধীনতা দিবসে গোটা ভারত যখন উৎসবের মেজাজে ছিল, তখন কর্ণাটকে আবারো তৈরি হলো উত্তপ্ত পরিস্থিতি। টিপু সুলতানের ও ভিডি সাভরকরের ছবিকে কেন্দ্র করে সহিংসতা ছড়ায় কর্ণাটকের শিবামোগ্গায়। এর জেরে কর্ণাটক পুলিশ ১৪৪ ধারা জারি করতে বাধ্য হয় সেই শহরে।

কট্টর হিন্দুত্ববাদী সংগঠন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ (আরএসএস) মতাদর্শী ভিডি সাভারকর এবং ১৮ শতকের শাসক টিপু সুলতানের ব্যানারকে কেন্দ্র করে দুটি গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। এরপরে কর্ণাটক পুলিশ সোমবার শিবামোগ্গা শহরে ফৌজদারি কার্যবিধি কোডের (সিআরপিসি) ১৪৪ ধারার অধীনে নিষেধাজ্ঞা জারি করে।

বিষয়টি নিয়ে অবগত এক সিনিয়র পুলিশ অফিসার জানান, স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের অংশ হিসেবে শিবামোগ্গায় আমির আহমেদ সার্কেলে সাভারকরকে নিয়ে একটি ব্যানার লাগানো হয়। এরপরই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

তিনি বলেন, ‘ব্যানার লাগানোর পর সেখানকার স্থানীয় একদল মুসলিম যুবক আপত্তি জানায়। এরপর তারা সেই ফ্লেক্স ব্যানার সরিয়ে দেয়। এ নিয়ে দুই গোষ্ঠীর মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।’

অভিযোগ, সাভরকরের ব্যানার সরিয়ে সেই যুবকরা টিপু সুলতানের ব্যানার লাগিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। এরপর পুলিশ গিয়ে সেখানে লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে কয়েকজন হিন্দু যুবক গিয়ে সেখানে সাভারকরের ব্যানার লাগানোর চেষ্টা করে। তবে পুলিশ সেই সময় তাদের বাধা দেয়। এরপরই শহর জুড়ে প্রচুর সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

পরে বজরং দল ও বিশ্ব হিন্দু পরিষদের মতো কট্টরপন্থী হিন্দু সংগঠন শিবামোগ্গায় বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। এই পরিস্থিতিতে সোমবার শহরে দুজন ছুরিকাঘাতে আহত হন। তবে সেই ঘটনার সাথে এই উত্তেজনার কোনো সম্পর্ক রয়েছে কি না তা পুলিশ স্পষ্ট করে জানায়নি। সেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। তবে আপাতত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে বলে দাবি করা হয় স্থানীয় প্রশাসনের তরফে।

সূত্র : হিন্দুস্থান টাইমস


আরো সংবাদ


premium cement