০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ৭ জিলহজ ১৪৪৩
`

ধনীদের তালিকায় ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ অর্থমন্ত্রী, সামাজিক মাধ্যমে সমালোচনা

ঋষি সুনাক - ছবি : সংগৃহীত

ব্রিটেনের ইতিহাসে নজিরবিহীন ঘটনা ব্রিটিশ অর্থমন্ত্রী ঋষি সুনাককে ঘিরে। ব্রিটিশ পত্রিকা ‘সানডে টাইমস’-এর তৈরি ধনীদের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন ১১ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটের এই বাসিন্দা। পত্রিকার এই তালিকায় এর আগে ব্রিটেনের কোনো প্রথমসারির রাজনীতিবিদের নাম উঠে আসেনি। ১৯৮৯ সাল থেকে এই তালিকা তৈরি করছে ‘সানডে টাইমস’। কিন্তু চরম আর্থিক সঙ্কট ও বেলাগাম মুদ্রাস্ফীতির বিরদ্ধে লড়তে থাকা ব্রিটেনবাসী সুনাকের এই অন্তর্ভূক্তিকে মোটেই ভালো চোখে দেখছেন না। বিশেষ করে, এর আগে খোদ সুনকই মুদ্রাস্ফীতি ও জীবনধারনের ব্যয় বৃদ্ধি সম্পর্কে দেশের মানুষকে সতর্ক করেছেন। বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলোতে আম জনতার ক্ষোভের আঁচ ইতিমধ্যেই মিলতে শুরু করেছে।

ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ অর্থমন্ত্রী ঋষি সুনাক ও তার স্ত্রী অক্ষতা মূর্তির মিলিত সম্পদের পরিমাণ ৭৩ কোটি পাউন্ড। ভারতীয় মুদ্রায় যা প্রায় সাত হাজার কোটি রুপি। এই বিপুল সম্পদই পত্রিকার ২৫০ জন ধনী ব্যক্তির তালিকায় ২২২ নম্বরে জায়গা করে দিয়েছে সুনাক দম্পতিকে। পত্রিকার তরফে জানানো হয়েছে, সুনাকের স্ত্রী তথা ইনফোসিস কর্তা নারায়ণমূর্তির কন্যা অক্ষতার একার সম্পদের পরিমাণই ৪৩ কোটি পাউন্ড (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় চার হাজার কোটি রুপি)। দেশের ধনী ব্যক্তিদের তালিকায় সুনাকের এই অন্তর্ভূক্তির অবশ্য ভূয়সী প্রশংসা করেছেন আর এক মন্ত্রী ডমিনিক রাব। গোটা বিষয়টিকে ‘চমৎকার’ আখ্যা দিয়েছেন তিনি। কিন্তু এতে সায় নেই সাধারণ মানুষের।

সামাজিক মাধ্যমগুলোতে ব্রিটিশ অর্থমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বিদ্রুপাত্মক মন্তব্যের বন্যা বয়ে গেছে। এক জনৈক ব্যক্তির প্রশ্ন, ‘ধনীদের তালিকায় জায়গা পেয়ে ঋষি সুনাক কি শ্রমজীবী পরিবারগুলোর জীবনধারণের খরচ সামলানোর বিষয়টি আরও ভালো করে বুঝতে পারবেন?’ আর একজনের কটাক্ষ, ‘টাইমসের ধনীদের তালিকায় ঋষি সুনাক ও তার স্ত্রীর নাম উঠেছে। এবার মনে হয় উনি সাধারণ মানুষকে সাহায্য করবেন। তাই নয় কি?’

তালিকার শীর্ষেও রয়েছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত লন্ডনবাসী হিন্দুজা ভাইয়েরা। তাদের সম্পদের পরিমাণ দুই হাজার ৮০০ কোটি পাউন্ড। গত বছরের তুলনায় যা বেড়েছে এক হাজার ১০০ কোটির পাউন্ডেরও বেশি। পত্রিকার তরফে প্রকাশিত এই ধনীদের তালিকায় ৩৪ বছরের ইতিহাসে এটাই কারো সর্বোচ্চ সম্পত্তির পরিমাণ। এবারের তালিকায় সুনকসহ জায়গা পেয়েছেন মোট ১৫ জন ভারতীয় বংশোদ্ভূত। এর মধ্যে প্রথম ২০ জনের মধ্যে জায়গা পেয়েছেন দু'জন। ৬ নম্বরে রয়েছেন লক্ষ্মী মিত্তল এবং ১৬ নম্বরে অনিল আগরওয়াল।
সূত্র : বর্তমান


আরো সংবাদ


premium cement