২৮ জানুয়ারি ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩
`

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘জাওয়াদ’, চলতি সপ্তাহেই ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস

 ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ-ঘূর্ণিঝড়-ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস-আবহাওয়া দফতর-আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস
ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘জাওয়াদ’, চলতি সপ্তাহেই ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস - ফাইল ছবি

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘জাওয়াদ’। সৌদি আরবের দেয়া এই ঘূর্ণিঝড়ের অর্থ উদার বা মহান। থাইল্যান্ড থেকে আসা নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নেবে বঙ্গোপসাগরে।

ভারতের আবহাওয়া দফতরের হিসেব অনুযায়ী এবারের ঘূর্ণিঝড়ের নাম ‘জাওয়াদ’। সপ্তাহান্তে কলকাতাসহ উপকূলের জেলাগুলোতে ঝড়ো হাওয়ার সাথে অতি ভারী বৃষ্টির সর্তকতা। বুধবার সকালে কলকাতায় হালকা শীতের আমেজ। ১৮ ডিগ্রির নিচে পারদ। বৃহস্পতিবার থেকে ধীরে ধীরে বাড়বে তাপমাত্রা।

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, দক্ষিণ থাইল্যান্ডের ঘূর্ণাবর্ত নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। এটি ক্রমশ দক্ষিণ আন্দামান সাগরে ঢুকবে। বৃহস্পতিবার এটি শক্তি বাড়িয়ে গভীর নিম্নচাপ রূপে পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে ক্রমশ দক্ষিণ-পূর্ব, পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করবে। শক্তি সঞ্চয় করে সেখানেই ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে এই গভীর নিম্নচাপ।

ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার পর এর অভিমুখ হবে উত্তর-পশ্চিম দিকে। শুক্রবার থেকেই ধীরে ধীরে আবহাওয়ার পরিবর্তন হবে। আকাশ মুখ ঢাকতে পারে কালো মেঘে। পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনায় হালকা বৃষ্টির পূর্বাভাস।

শনিবার সকালে এটি উত্তর অন্ধ্রপ্রদেশ অথবা ওড়িশা উপকূলে আছড়ে পড়ার পূর্বাভাস। তার প্রভাবে বাংলায় বাড়বে বৃষ্টি। শনিবার পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া এবং ঝাড়গ্রামে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। সাথে ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে।

রোববার কলকাতাসহ হাওড়া, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রামে অতি ভারী বৃষ্টির সর্তকতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর। অতি ভারী বৃষ্টির পাশাপাশি ৪০-৫০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ো হাওয়া বইতে পারে। দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি মালদহেও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস।

বাতাসে জলীয় বাষ্পের সর্বোচ্চ পরিমাণ ৯২ শতাংশ। নিম্নচাপের ফলে ফের বাড়তে পারে তাপমাত্রা। ডিসেম্বরের শুরুতেই আরো একবার উধাও হতে পারে শীত। নিম্নচাপের বৃষ্টিতে শস্যের ক্ষতির আশাঙ্কা।

তাই শুক্রবারের মধ্যে ধান কাটার ব্যবস্থা চলছে। যারা সরষে ও আলু লাগিয়েছেন তারা জমিতে নর্দমা কাটার তোড়জোড় শুরু হয়েছে। ঝড়ো হাওয়া ও দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার জেরে মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে।
সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন


আরো সংবাদ


premium cement
আইসিবি এএমসিএল পেনশন হোল্ডারসথ ইউনিট ফান্ডের ১০ টাকা লভ্যাংশ ঘোষণা জুমার নামাজ শেষে মসজিদে দোয়ার আহ্বান হেফাজতের সাংবাদিক এমদাদুল হক খানের ওপর সন্ত্রাসী হামলা ইউক্রেন নিয়ে অবস্থান ব্যাখ্যা করল রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র দুবাইয়ে খেলবেন জোকোভিচ জাতীয় উশুতে এসএ গেমস স্কোয়াড বাছাই ইরাককে হারিয়ে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলার সুযোগ পেল ইরান পোশাক শিল্পে নারী শ্রমিকদের হার কমে যাওয়ার কারণ কী? কোটি ডলার ব্যয়ের উৎস বিএনপিকে ব্যাখ্যা করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী বিটকয়েন : ক্রিপ্টোকারেন্সি তৈরিতে যেভাবে খনি হয়ে উঠেছে কাজাখস্তান দেশের অধস্তন আদালত তদারকিতে ৮ বিচারপতির মনিটরিং কমিটি

সকল