০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ২৯ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি
`

ভারতের হাতে এবার স্করপিন গোত্রের সাবমেরিন, টার্গেট চীন!

ভারতের হাতে এবার স্করপিন গোত্রের সাবমেরিন - টার্গেট চীন
ভারতের হাতে এবার স্করপিন গোত্রের সাবমেরিন, টার্গেট চীন! - ছবি সংগৃহীত

ভারতীয় নৌবাহিনীর শক্তি বাড়াতে এবার হাজির স্করপেন গোত্রের ডুবোজাহাজ (সাবমেরিন) আইএনএস ভেলা। বৃহস্পতিবার নৌবাহিনীর নুতন সদস্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হলো এই ডুবোজাহাজকে। সরকার পরিচালিত মঝগাঁও শিপবিল্ডার্স লিমিটেড এই জাহাজটি তৈরি করেছে। এটি ভারতের স্করপেন গোত্রের চতুর্থ ডুবোজাহাজ।

এর আগে ২০১৭-তে আইএনএস কালভারি, ২০১৯-এ আইএনএস খান্ডেরি এবং ২০২১-এ আইএনএস করঞ্জ-কে নৌবাহিনীর সদস্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। পঞ্চম ডুবোজাহাজ আইএনএস ভাগির-এর প্রস্তুতি পর্ব চলছে।

ভারতীয় বিশ্লেষকেরা বলছেন, সমুদ্রের নিজেদের শক্তি বাড়াতে একের পর এক ঘাতক ডুবোজাহাজের অন্তর্ভুক্তিকরণ হচ্ছে নৌবাহিনীতে। বিশেষ করে ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে যেভাবে একটা টানাপড়েনের আবহ তৈরি হয়েছে এবং চীন তাদের প্রাধান্য বিস্তারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, এমন পরিস্থিতিতে অত্যাধুনিক এবং ঘাতক ডুবোজাহাজ আইএনএস ভেলার নৌবাহিনীতে অন্তর্ভুক্তি যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ।

ভেলা নতুন নাম নয়। এর আগেও এই নামে নৌবাহীনীর একটি ডুবোজাহাজ ছিল। ১৯৭৩-২০১০ পর্যন্ত নৌবাহিনীর সদস্য ছিল সেই ডুবোজাহাজ। এ বার সেই নামেই এবং অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে সজ্জিত আইএনএস ভেলা-কেই নুতন রূপে হাজির করা হয়েছে। আগের ডুবোজাহাজটি ছিল রাশিয়ার ফক্সট্রট গোত্রের। কিন্তু নতুন রূপের আইএনএস ভেলা স্করপেন গোত্রের। এক সঙ্গে আট জন নৌ-আধিকারিক এবং ৩৫ জন সেনা বহনের ক্ষমতা রয়েছে এই জাহাজের। এই জাহাজটিতে রয়েছে সি৩০৩ অ্যান্টি টর্পেডো কাউন্টারমেসার সিস্টেম। এক সাথে১৮টি টর্পেডো বহন করতে পারে। শুধু তাই নয়, আইএনএস ভেলাতে রয়েছে জাহাজ বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা



আরো সংবাদ


খালেদা জিয়াকে হত্যার ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে দেশের অস্তিত্ব বিলুপ্তির চেষ্টা হচ্ছে : ফখরুল শহীদ সোহরাওয়ার্দী গণতন্ত্রের অভিযাত্রায় অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে থাকবেন : কাদের ১১ ডিসেম্বর থেকে সব সিটিতে হাফ ভাড়া কনডেম সেলের আসামিদের তথ্য দাখিল না করায় হাইকোর্টের অসন্তোষ ইরানের আকাশ প্রতিরক্ষা ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নাগাল্যান্ডে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে নিহত ১২ গ্রামবাসী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিয়েতে মতবিরোধে কনে ও বরপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ, নিহত ১ নিখোঁজ ব্যবসায়ীর সন্ধান পেতে পরিবারের সংবাদ সম্মেলন চীনকে ভয়াবহ পরিণতির হুঁশিয়ারি দিল যুক্তরাষ্ট্র ঢাকা টেস্ট : ২য় দিনের খেলা শুরু

সকল

ইসরাইলকে ইরানে গোয়েন্দা অভিযান চালাতে নিষেধ করল যুক্তরাষ্ট্র (১৪২৯২)‘ওমিক্রন’ থেকে বাঁচাতে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে হত্যা করলেন চিকিৎসক (১১০২৯)ইরান ইস্যুতে আমেরিকা একঘরে হয়ে পড়েছে : ব্লিঙ্কেনের স্বীকারোক্তি (১০২১৩)এরদোগানকে হত্যার চেষ্টা! (৮০৯০)রুশ অস্ত্র কিনলে নিষেধাজ্ঞা, ভারতকে বার্তা যুক্তরাষ্ট্রের (৭৯১৫)বাংলাদেশ ভারতের পক্ষে যাবে না (৭৮৩৪)পাকিস্তানের বিরুদ্ধে হেরেও খুশি পাপন (৭২৬৯)যুক্তরাষ্ট্রকে রাশিয়ার হুঁশিয়ারি : প্রতিবেশীর ঘরে অস্ত্র ঢোকালে যুদ্ধ বাধবে (৬৫০৭)‘বুথে নয়, নৌকার ভোট হবে টেবিলের উপরে, পুলিশ প্রশাসনকে সেভাবেই দেখবো’ (৬০০১)জ্বর নেই, স্বাদ-গন্ধও ঠিক আছে! ওমিক্রন চেনার সহজ উপায় (৫৮২৬)