২০ জুন ২০২১
`

মমতার মন্ত্রিসভায় ৬ মুসলিম ও ৯ নারী

শপথ নিয়েছে মমতার মন্ত্রিসভা - ছবি : সংগৃহীত

সংক্ষিপ্ততম শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান দেখল ভারতের পশ্চিমবঙ্গ। মাত্র ছয় মিনিটে মমতা ব্যানার্জী মন্ত্রিসভার ৪৩ জন মন্ত্রী শপথ নিলেন। কোভিড পরিস্থিতির কারণে দ্রুত শেষ করা হয়েছে অনুষ্ঠান। অমিত মিত্র, ব্রাত্য বসুর মন্ত্রীরা বাড়ি থেকে ভার্চুয়ালি শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

মমতা ব্যানার্জীর এবারের মন্ত্রিসভায় মুখ্যমন্ত্রীসহ নারী মন্ত্রীর সংখ্যা ৯ জন। নতুন মন্ত্রী ১৬ জন। আর সংখ্যালঘু মন্ত্রীর সংখ্যা তিন পূর্ণমন্ত্রীসহ ছয়জন। সাবেক ক্রিকেটার মনোজ তিওয়ারিও মন্ত্রী হয়েছেন।

মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মমতা ব্যানার্জী আগেই শপথ নিয়েছিলেন। সোমবার কলকাতার রাজভবনে তার মন্ত্রিসভার ৪৩ জন মন্ত্রী শপথবাক্য পাঠ করলেন। সাধারণত একজন একজন করে মন্ত্রী রাজ্যপালের সামনে যান এবং শপথবাক্য পাঠ করেন। দেশের গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, বিশিষ্ট মানুষদের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়। জনগণও শপথ দেখতে পারেন। কিন্তু এবার কোভিডের জন্য তার কোনো কিছুই হয়নি। সাড়ে ১০টা নাগাদ মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্যপাল অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছান। তার আগেই সেখানে পৌঁছে গিয়েছিলেন মন্ত্রীরা। তিন দফায় শপথবাক্য পাঠ করান রাজ্যপাল। প্রথমে পূর্ণ মন্ত্রী, তারপর স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী এবং সব শেষে প্রতিমন্ত্রীরা শপথবাক্য পাঠ করেন একসাথে। আলাদা আলাদা করে শপথবাক্য পাঠ করানো হয়নি।

কোভিডে আক্রান্ত রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসু, পূর্বতন অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্রও অসুস্থ। ফলে তারা ভার্চুয়ালি বাড়ি থেকে শপথবাক্য পাঠ করেন। শারীরিক কারণে নির্বাচনে লড়েননি অমিত মিত্র। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাকে ফের মন্ত্রিত্ব দিচ্ছেন। ছয় মাসের মধ্যে উপনির্বাচনে তাকে জিতে আসতে হবে।

শপথের শেষেই নবান্ন পৌঁছান মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, রাজ্যে এখনই সার্বিক লকডাউন ঘোষণা করা হবে না। তবে আংশিক লকডাউনের যে নিয়মগুলো জারি করা হয়েছে তা বহাল থাকবে। তবে জনগণকে লকডাউনের মতোই আচরণ করতে হবে। অকারণে বাড়ি থেকে বের হওয়া যাবে না। আগেই লোকাল ট্রেন বন্ধ করে দিয়েছিলেন মমতা। মেট্রো পরিষেবাও অর্ধেক হয়ে গেছে। দোকানপাট সরকারের বেঁধে দেয়া সময়ে খোলা হচ্ছে।

শপথগ্রহণের পর মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘এখন উৎসব করার সময় নয়। কোভিড পরিস্থিতির মোকাবিলায় রাস্তায় নেমে কাজ করতে হবে। দিনে ২০ ঘণ্টা কাজ করতে হবে সকলকে।’

একনজরে মমতার নতুন মন্ত্রিপরিষদ
পূর্ণ মন্ত্রী : ১. সুব্রত মুখোপাধ্যায় ২. পার্থ চট্টোপাধ্যায় ৩. অমিত মিত্র ৪. সাধন পাণ্ডে ৫. জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক ৬. বঙ্কিমচন্দ্র হাজরা ৭. মানসরঞ্জন ভুঁইয়া ৮. সৌমেন মহাপাত্র ৯. মলয় ঘটক ১০. অরূপ বিশ্বাস ১১. উজ্জ্বল বিশ্বাস ১২. অরূপ রায় ১৩. রথীন ঘোষ ১৪. ফিরহাদ হাকিম ১৫. চন্দ্রনাথ সিংহ ১৬. শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় ১৭. ব্রাত্য বসু ১৮. পুলক রায় ১৯. শশী পাঁজা ২০. গোলাম রব্বানি ২১. বিপ্লব মিত্র ২২. জাভেদ আহমেদ খান ২৩. স্বপন দেবনাথ ও ২৪ সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী।

স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী : ২৫. বেচারাম মান্না ২৬. সুব্রত সাহা ২৭. হুমায়ুন কবীর ২৮. অখিল গিরি ২৯. চন্দ্রিমা ভট্টচার্য ৩০. রত্না দে নাগ ৩১. সন্ধ্যারাণী টুডু ৩২. বুলু চিক বরাইক ৩৩. সুজিত বসু ৩৪. ইন্দ্রনীল সেন।

প্রতিমন্ত্রী : ৩৫ দিলীপ মণ্ডল ৩৬. আক্রুজ্জামান ৩৭. শিউলি সাহা ৩৮. শ্রীকান্ত মাহাত ৩৯. সাবিনা ইয়াসমিন ৪০. বীরবাহা হাঁসদা ৪১. জ্যোৎস্না মান্ডি ৪২. পরেশচন্দ্র অধিকারী ৪৩ মনোজ তিওয়ারি।

বিরোধী নেতা
শুভেন্দু অধিকারীকে বিরোধী নেতা করল বিজেপি। তিনি এবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীকে নন্দীগ্রামে হারিয়েছেন। একসময় মমতার ডানহাত বলে পরিচিত শুভেন্দু এবার বিধানসভায় বিজেপি’র নেতৃত্ব দেবেন।

সূত্র : ডয়চে ভেলে, আনন্দবাজার পত্রিকা



আরো সংবাদ