২০ জুন ২০২১
`

ভারতে ফের এক দিনে আক্রান্তের বিশ্ব রেকর্ড, মৃত্যু ৪ হাজার

ভারতে ফের ১ দিনে সবোচ্চ আক্রান্তে রেকর্ড, মৃত্যুও ৪ হাজার প্রায় - ছবি- সংগৃহীত

ভারতে করোনার সংক্রমণ কোনোভাগে লাগাম টানা যাচ্ছে না। চলতি সপ্তাহের শুরুতে তিন দিন আক্রান্তের সংখ্যা একটু কম দেখা যায়। কিন্তু এরপর ফের আগের গতিতে ফেরে করোনার সংক্রমণ। বৃহস্পতিবার প্রকাশিত তথ্যে দেখা গেছে ফের এক দিনে চার লাখের বেশি ও সর্বোচ্চ সংখ্যক করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয় দেশটিতে। শুক্রবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রকাশিত তথ্যে আরো ভয়ঙ্কর দৃশ্য উঠে এসেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে চার লাখ ১৪ হাজারের বেশি নতুন আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছে। যা এ পর্যন্ত এক দিনে সর্বোচ্চ সংখ্যক। তা ছাড়া এনিয়ে তৃতীয়বার প্রতিবেশী দেশটিতে দৈনিক আক্রান্ত চার লাখের সীমা অতিক্রম করলো।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্যানুযায়ী, শুক্রবার সকাল পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে চার লাখ ১৪ হাজার ১৮৮ জন। যা এক দিনে আক্রান্তের হিসাবে সর্বোচ্চ। শুধু ভারতেই নয়, এটি বিশ্ব রেকর্ডও বটে। এনিয়ে ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা হলো দুই কোটি ১৪ লাখ ৯১ হাজার ৫৯৮ জন। এর আগের দিন ভারতে করোনায় আক্রান্ত বা কোভিড রোগী শনাক্ত হয় চার লাখ ১২ হাজার ২৬২ জন। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত এক দিনে আক্রান্তের হিসাবে এটিও ছিল ভারতে ও বিশ্বে সর্বোচ্চ রেকর্ড।

এ দিকে বৃহস্পতিবার এক দিনে করোনায় মৃত্যু হয় তিন হাজার ৯৮০ জন। শুক্রবার এই সংখ্যা বেড়ে হয়েছে তিন হাজার ৯১৫ জন। এনিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে নরেন্দ্র মোদির দেশে মোট প্রাণ দুই লাখ ৩৪ হাজার ৮৩ জনের। মোট মৃত্যুর সংখ্যায় মেক্সিকোকে পেছনে ফেলে বর্তমানে বিশ্বের তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। আর আক্রান্তের সংখ্যায় শুধু যুক্তরাষ্ট্রে পেছনে আছে এশিয়া মহাদেশের সবচেয়ে বিপর্যস্ত দেশটি।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বর্তমানে বিশ্বে সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় ভারত। প্রতিদিন আক্রান্ত ও মৃত্যু সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। হাসপাতালগুলোতে শয্যা খালি নেই। অক্সিজেনের অভাবে হাহাকার চলছে পুরো ভারতজুড়ে। বিনা চিকিৎসায় মারা যাচ্ছে মানুষ। রাস্তায় পড়ে থাকছে লাশ। এত লাশ দাফন বা সৎকার করাও অসম্ভব হয়ে পড়ছে। সবমিলিয়ে ভারত এক ভয়ঙ্কর মৃত্যুপুরীতে রূপ নিয়েছে। এরই মধ্যে দেশটির বড় বড় ধনী ব্যক্তিরা জীবন বাঁচাতে যে যেভাবে পেরেছেন ভারত ছেড়ে অন্য দেশে আশ্রয় নিয়েছেন। ভারত তার ইতিহাসে এত বড় বিপর্যয়ের মুখে আর কখনোই পড়েনি। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতি এতই নাজুক যে এ থেকে উত্তরণের পথও এ মুহূর্তে নিশ্চিত করে কেউ বলতে পারছে না।

যদিও এ পরিস্থিতিতেই দেশটিতে করোনার টিকাদান কর্মসূচি চলছে। শুক্রবার সকাল পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় ২৪ লাখ ৫৯ হাজার ৭১৯ জনকে টিকা দেয়া হয়েছে। এনিয়ে দেশটিতে মোট ১৬ কোটি ৪৯ লাখের কিছু বেশি মানুষ টিকার ডোজ পেয়েছে। তবে টিকাদানের গতি যে যথেষ্টই মন্থর তা স্বীকার করছেন দেশটির খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নিজেও। আর করোনার নতুন নতুন যে ভেরিয়ান্ট ভারতে শনাক্ত হচ্ছে তা প্রতিরোধে এ পর্যন্ত আবিষ্কৃত টিকা পুরোপুরি কার্যকর নয় বলেই বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা



আরো সংবাদ


চাকরি হারালেন আবু ত্ব-হার সেই বন্ধু সিয়াম বগুড়ায় করোনা সংক্রমণ রোধে ৭ দিনের বিধিনিষেধ চলছে করোনায় দেশে ৮২ জনের মৃত্যু বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের ২.৫৮ বিলিয়ন ভ্যাকসিন প্রদান চাঞ্চল্যকর ইউসুফ হত্যা মামলায় ইউপি সদস্যের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবিন্দ ডিসিসিআই কর্মকর্তাদের সাথে পাকিস্তান হাই কমিশনারের মতবিনিময় ৪ শিশুর বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা : ৭ পুলিশ বরখাস্তের রায় স্থগিত টাঙ্গাইলে মঙ্গলবার থেকে ৭ দিনের কঠোর বিধিনিষেধ ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য, কোম্পানীগঞ্জ আ’লীগের নিন্দা ও প্রতিবাদ ৪ দিনের রিমান্ডে মাহজাবিন ‘মোটরচালিত রিকশা বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার’

সকল