০৭ মে ২০২১
`

সীমান্তে নেপালী পুলিশের গুলিতে ভারতীয় যুবক নিহত

সীমান্তে নেপালী পুলিশের গুলিতে ভারতীয় যুবক নিহত। - ছবি : এনডিটিভি

নেপালী পুলিশের গুলিতে গোবিন্দ সিংহ (২৬) নামে এক ভারতীয় যুবক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরো এক যুবক নিখোঁজ রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার গভীর রাতের এ ঘটনায় উত্তরপ্রদেশের ভারত-নেপাল সীমান্তে উত্তপ্ত পরিস্থিতি বিরাজ করছে। পুলিশ ও সশস্ত্র সীমা বল (এসএসবি) বাহিনী পরিস্থিতি সামলাতে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে।

পিলভিটের পুলিশ সুপার জয় প্রকাশ জানিয়েছেন, ‘নেপাল সীমান্ত লাগোয়ার উত্তর প্রদেশে পিলভিটের হাজারা থানা এলাকার তিন বন্ধু নেপালের বেলোরি বাজারে কিছু কাজের জন্য গিয়েছিলেন। রাঘবপুরী টিলা নম্বর ৪ গ্রাম থেকে ওই তিন বন্ধু গোবিন্দ সিংহ, গুরমিত সিংহ ও পাপ্পু সিংহ বেলোরি বাজারে যান।’

তিনি বলেন, ‘কাজ সেরে বাড়ি ফেরার সময় একটি বিষয় নিয়ে ওই তিনজনের কথা কাটাকাটি হয়। তখনই নেপালী পুলিশ গুলি চালায়। গুলিবিদ্ধ গোবিন্দকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়।’

জয় প্রকাশ আরো জানান, ‘গোবিন্দর বন্ধুর মধ্যে একজন এখনো নিখোঁজ রয়েছে। এ খবর ছড়িয়ে পড়তেই সীমান্ত লাগোয়া গ্রামবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। তারা সীমান্তে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করেন। পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠায় ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ গ্রামবাসীদের শান্ত করে।’

পুলিশ জানিয়েছে, ‘যে যুবক ফিরে এসেছেন, তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানার চেষ্টা চলছে সেখানে ঠিক কী হয়েছিল। কিভাবে ঘটনার সূত্রপাত। পাশাপাশি নেপালী পুলিশের সাথেও যোগাযোগের চেষ্টা করা হচ্ছে।’

ওই এলাকায় সীমান্ত হত্যা এটিই প্রথম নয়। গত বছরের জুনে নেপালী পুলিশের গুলিতে ভারত-নেপাল সীমান্ত লাগোয়া বিহারের সীতামঢ়ী জেলার মাহোবা গ্রামের এক কৃষকের মৃত্যু হয়। সে সময় আহত হন তিনজন।

এসএসবি সূত্রে জানা যায়, লালবন্দি-জানকীনগর পঞ্চায়েত এলাকায় আন্তর্জাতিক সীমান্তে এসে ভারতীয় কৃষকদের চাষের কাজে বাধা দেয় নেপালী পুলিশ। কৃষকদের সাথে কথার মাঝেই আচমকা গুলি চালাতে শুরু করে তারা। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় বিকাশকুমার রাই নামে এক কৃষকের। আরো এক কৃষককে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ ওঠে নেপালী পুলিশের বিরুদ্ধে।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা



আরো সংবাদ