২০ এপ্রিল ২০২১
`

সিনেটে বিপর্যস্তের পর আস্থাভোটের ডাক ইমরান খানের

সিনেটে বিপর্যস্তের পর আস্থাভোটের ডাক ইমরান খানের - ছবি : সংগৃহীত

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পার্লামেন্টে আস্থাভোটের ডাক দিয়েছেন। পাকিস্তানী পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বুধবার সিনেট নির্বাচনে পিটিআই (পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফ) সরকারের অর্থমন্ত্রী পরাজিত হবার পর ইমরান খান এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

১০৪ সদস্য বিশিষ্ট পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষের ৩৭ আসনের পরোক্ষ নির্বাচনের পর পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফ ও তার রাজনৈতিক সহযোগী সদস্যরা অতি কষ্টে পাকিস্তানি সিনেটে তাদের নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখতে পেরেছেন।

নির্বাচনের সম্ভাব্য রেজাল্ট এখনও আসেনি। কিন্তু, স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফ ও তার রাজনৈতিক সহযোগিরা সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছেন।

তা সত্ত্বেও, একজন নির্বাচন কমিশনের কর্মচারী ঘোষণা দিয়েছেন, ইমরান খানের অর্থমন্ত্রী আব্দুল হাফিজ শেখ যে আসনে নির্বাচন করেছেন সেখানে পরাজিত হয়েছেন।

এ পরাজয় ইমরান খান এবং তার সরকারের জন্য একটি বিশাল ধাক্কা। কারণ, আব্দুল হাফিজ শেখের ক্ষেত্রে নির্বাচকমণ্ডলী হলো পাকিস্তানের নিম্নকক্ষের সদস্যরা। এ নিম্নকক্ষই ২০১৮ সালে ইমরান খানকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত করেছে।

দেশটির অর্থনীতির স্থিতিশীলতার জন্য আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের সাথে ঋণের ব্যাপারে তিনিই প্রধান আলোচকের ভূমিকা পালন করছেন। যদিও তিনি অর্থমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে পারবেন। কিন্তু, এটা তার জন্য একটি প্রতীকি রাজনৈতিক পরাজয়।

এদিকে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী একটি সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ‘ইমরান খান এবং তার দল একটি সিদ্ধান্তে ঐক্যমত পোষণ করেছে যে তারা পার্লামেন্টে একটি আস্থাভোটের আয়োজন করবে।

দেশটির তথ্যমন্ত্রী সিলবি ফারাজ জিও নিউজকে বলেন, এ পদক্ষেপ ইমরানের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষদের দেখাবে যে তিনি এখনো পার্লামেন্টের উপর আস্থা রাখছেন এবং এটা একজন সাহসী ব্যক্তির নিদর্শন।

সূত্র : গালফ নিউজ



আরো সংবাদ