১২ এপ্রিল ২০২১
`

কাশ্মিরে কঠোর যুদ্ধবিরতি পালনে সম্মত ভারত-পাকিস্তান

ভারত ও পাকিস্তানের পতাকা - ছবি : সংগৃহীত

ভারত ও পাকিস্তানের সামরিক বাহিনী দুই দেশের মধ্যে বিরোধপূর্ণ কাশ্মিরে ভূখণ্ডের সীমানায় কঠোর যুদ্ধবিরতি মেনে চলতে সম্মত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুই দেশের সামরিক বাহিনীর কর্মকর্তাদের মধ্যে হটলাইনে আলোচনার পর উভয়পক্ষ এই সিদ্ধান্ত নেয় বলে পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর এক বিবৃতিতে জানানো হয়।

বিবৃতিতে জানানো হয়, বৃহস্পতিবার সকালে নিজ নিজ কার্যালয়ে দুই দেশের সামরিক বাহিনীর ডাইরেক্টর- জেনারেল’স অব মিলিটারি অপারেশনস (ডিজিএমও) হটলাইনে পরস্পরের সাথে কথা বলেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘নিয়ন্ত্রণ রেখা ও অন্যান্য সেক্টরে উভয়পক্ষ সব চুক্তি, সমঝোতা ও যুদ্ধবিরতির কঠোর নজরদারিতে একমত হয়েছে, যা মধ্যরাত থেকে (শুক্রবার) কার্যকর হবে।’

উভয়পক্ষের মধ্যে আলোচনা স্পষ্ট ও আন্তরিক পরিবেশে এই আলোচনা হয়েছে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।

নিয়ন্ত্রণরেখা নামে পরিচিত ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে বিভক্ত কাশ্মির ভূখণ্ডের সীমানায় ২০০৩ সাল থেকে উভয়পক্ষের সম্মতিতে যুদ্ধবিরতি চালু হয়। তবে বিভিন্ন সময়ই তা ভঙ্গ করা হয়েছে, যাতে দুই পক্ষের সামরিক ও বেসামরিক প্রাণহানীর ঘটনা ঘটেছে।

গত বছর ভারতীয় বাহিনীর কামানের গোলা বর্ষণ ও গুলিতে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে অন্তত ২৮ বেসামরিক লোক নিহত ও ২৫৭ জনের বেশি আহত হয়েছেন বলে জানায় পাকিস্তানি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

পাকিস্তান জানিয়েছে, চলতি বছরে এই পর্যন্ত ভারত অন্তত ১৭৫ বার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেছে যাতে আট বেসামরিক লোক আহত হয়েছে।

অন্যদিকে ভারতীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণায়ের মতে, ২০২০ সালে পাকিস্তান অন্তত পাঁচ হাজার এক শ’ ৩৩ বার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেছে যাতে ২২ বেসামরিক লোক ও ২৪ সৈন্য নিহত এবং আরো ১৯৭ জন আহত হয়েছেন।

১৯৪৭ সালে ব্রিটেনের কাছ থেকে স্বাধীনতার পর থেকেই ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে কাশ্মির নিয়ে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। উভয়দেশই পুরো ভূখণ্ডটি নিজেদের দাবি করছে। ভূখণ্ডটির অধিকার নিয়ে দুই বার যুদ্ধে জড়িয়েছে উভয়দেশ।

সূত্র : আলজাজিরা



আরো সংবাদ