০৫ মার্চ ২০২১
`

ভারত ১৬ লাখ ডোজ টিকা পাঠাচ্ছে বিদেশে?

ভারত ১৬ লাখ ডোজ টিকা পাঠাচ্ছে বিদেশে? - ছবি : সংগৃহীত

টিকা কূটনীতির অংশ হিসেবে বিভিন্ন দেশে ভারত ১৬ লাখ টিকা দিচ্ছে বলে কলকাতাভিত্তিক আনন্দবাজার পত্রিকায় এক খবরে বলা হয়েছে।
এতে বলা হয়, গরিবদের নিখরচায় প্রতিষেধক দেয়া নিয়ে ভারতে চাপ বাড়ছে। তার ওপর দেয়া রয়েছে আন্তর্জাতিক প্রতিশ্রুতি। পথ খুঁজতে সোমবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বৈঠকে বসল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে খবরে বলা হয়, সোমবারের বৈঠকে স্থির হয়েছে, ৮.১ লাখ ডোজ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে দেয়া হবে বিভিন্ন দেশে বিক্রি করার জন্য এবং ৮.১ লাখ ডোজ দেয়া হবে কূটনৈতিক উপহার হিসেবে প্রতিবেশী রাষ্ট্রগুলোকে দেয়ার জন্য। তবে এটি এখনও চূড়ান্ত বলে ঘোষণা করেনি ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী মোদি আগেই বলে রেখেছেন যে, বিশ্বের উপকারে লাগবে ভারতীয় করোনা প্রতিষেধক। কিন্তু ভারতের চাহিদা মিটিয়ে তা কী ভাবে, কবে বিভিন্ন দেশকে রফতানি করা সম্ভব হবে, তা নিয়ে দিক-নির্দেশ এখনো চূড়ান্ত নয় বলেই মনে করা হচ্ছে। ব্রাজিলকে ২০ লাখ ডোজ করোনা প্রতিষেধক দেয়া নিয়ে বিতর্ক হয়েছিল গত সপ্তাহে।

সূত্রের খবর, সর্বাগ্রে প্রতিবেশী রাষ্ট্রগুলোকে প্রতিষেধক পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে নয়াদিল্লি। নেপালের পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রদীপ গ্যাওয়ালি এসেছিলেন ভারত সফরে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সূত্রের খবর, তিনি ভারতীয় প্রতিষেধকের বিষয়ে তদ্বির করায় কথা দেয়া হয়েছে, আগামী সপ্তাহে কিছু প্রতিষেধক পাঠানো হবে। তার পরের ধাপে বাংলাদেশ, ভুটান, মিয়ানমার, শ্রীলঙ্কা, আফগানিস্তান, মলদ্বীপেও করোনা প্রতিষেধক পাঠানোর কথা। এই দেশগুলোতে প্রথম যে চালান যাবে, তা দেয়া হবে সৌজন্য উপহার হিসেবে।

আনন্দবাজার জানায়, এর পর সিরাম ইনস্টিটিউট এবং ভারত বায়োটেকের কাছ থেকে দেশগুলো প্রতিষেধক কিনবে। ইতিমধ্যেই এই সংস্থাগুলোর সঙ্গে চুক্তি হয়ে গেছে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, মরক্কো ও দক্ষিণ আফ্রিকার।



আরো সংবাদ