১৫ জুলাই ২০২০

সিকিম আলাদা দেশ! তোলপাড় দিল্লি

ভারতের দিল্লিতে সিভিল ডিফেন্স ভলেন্টিয়ার নিয়োগ করা হবে। তার জন্য বিজ্ঞাপন দিয়েছিল দিল্লি সরকার। কিন্তু সেই বিজ্ঞাপন ঘিরেই শুরু হল যত গণ্ডগোল। ব্যাপার এতটাই সিরিয়াস যে একজন সিনিয়র আমলাকে সাসপেন্ড করেছেন দিল্লির লেফ্টনেন্ট গর্ভনর অনিল বাইজাল। রাজ্যপালও সরব।

তিনি জানিয়েছেন, এই ধরণের ঘটনায় জিরো টলারেন্স রাখা হবে। সেই বিজ্ঞাপনের বিতর্কিত লেখা নিয়ে সরগরম দেশের রাজনৈতিক মহল। বিজেপি দাবি করেছে, আপ সরকার সিকিমকে এই দেশের রাজ্য বলে মনে করে না। সিকিম আলাদা দেশ!

সেই বিতর্কিত বিজ্ঞাপনের এক জায়গায় লেখা ছিল, 'ভারতীয় নাগরিক অথবা, সিকিম, নেপাল, ভূটানের বাসিন্দারা..' । ব্যস তাতেই যত বিপত্তি। মনে করা হচ্ছে, ১৯৬৮ সালের সিভিল ডিফেন্স রেগুলেশন অনুযায়ী নিয়োগের ক্ষেত্রে যে যোগ্যতার বয়ান লেখা ছিল সেটাই নয়া বিজ্ঞাপনে কপি—পেস্ট করেন ওই আমলা। সেই জন্যই এত বড় বিভ্রাট।

লেফ্টনেন্ট গর্ভনর অনিল বাইজাল জানিয়েছেন, সেই আমলা নির্বুদ্ধিতার প্রমাণ দিয়েছেন। স্রেফ কপি—পেস্ট করে তিনি এত বড় বিতর্কের সৃষ্টি করেছেন। যা নিয়ে এখন রাজনৈতিক চাপান—উতোর শুরু হয়েছে।

এরই মধ্যে সিকিম সরকার আপ—এর কাছে চিঠি পাঠিয়ে জানিয়েছে, ওই বিজ্ঞাপন যেন অবিলম্বে তুলে নেওয়া হয়! সিকিমের মুখ্যমন্ত্রী প্রেম সিং তামাঙও দিল্লি সরকারের কাছে আর্জি জানিয়েছেন ওই বিজ্ঞাপন তুলে নেওয়ার জন্য। এমন একখানা বিজ্ঞাপন দিয়ে মুখ পুড়েছে দিল্লি সরকারের।

এদিকে বিজেপিও সুযোগ হাতছাড়া করছে না। ভারতীয় জনতা পার্টির তরফে লাগাতার চাপে রাখা হচ্ছে আপ সরকারকে। এর মধ্যে অরবিন্দ কেজরিওয়াল ওই বিজ্ঞাপন তুলে নিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, সিকিম ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ।


আরো সংবাদ

এবার আল-আকসা উদ্ধারের ঘোষণা এরদোগানের(ভিডিও) (৬৮৫০)ডিজির অনুরোধে রিজেন্টের সাথে চুক্তির অনুষ্ঠানে গিয়ে ছিলাম : স্বাস্থ্যমন্ত্রী (৪৭৩৩)তুরস্ক-মিশরের পাল্টাপাল্টি হুঙ্কারে ভয়াবহ সংঘাতের পথে লিবিয়া (৪৭৩৩)ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে সেব্রেনিৎসা স্টাইলে গণহত্যার আশঙ্কা! (৪৪৬৯)রাম ভারতীয়ই নন, অযোধ্যা নেপালে (৪৪১২)বাংলাদেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৯০ হাজার ছাড়ালো (৪১৭২)রামকে নিয়ে নেপালের প্রধানমন্ত্রীর দাবিতে ভারতীয়দের প্রতিক্রিয়া (৩৭৩৮)রাম ভারতীয়ই নন, অযোধ্য নেপালে (৩৬৬০)মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক মন্ত্রী শাহজাহান সিরাজ আর নেই (৩৬০২)ইরানের চাবাহার রেলপ্রকল্প : ভারত আউট, চীন ইন (৩৫৩৪)