৩০ নভেম্বর ২০২০

লকডাউন মানতে বলায় পুলিশের হাতে কোপ, আহত আরো ২

ভারতে পুলিশের উপর আক্রমণ করেছে লকডাউন অমান্যকারীরা। - ছবি : সংগৃহীত

লকডাউন মানতে বলায় পুলিশের উপরে হামলা চালিয়েছে একদল লোক। তাদেরই একজন অস্ত্র দিয়ে এক পুলিশ কর্মকর্তার হাতে কোপ মারে।

ঘটনাটি ঘটেছে রোববার সকালে ভারতের পাঞ্জাব প্রদেশের পাতিয়ালার একটি সবজি বাজারে।

এনডিটিভির খবরে প্রকাশ, হরজিৎ সিংহ নামে পুলিশে ওই এএসআইকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার শরীরে অস্ত্রোপচার করছেন চিকিৎসকরা। এদিনের হামলায় আহত হয়েছেন আরো দুই পুলিশ কর্মকর্তা।

পুলিশ জানিয়েছে, লকডাউন ঠিকমতো মানা হচ্ছে কি না তা খতিয়ে দেখার সময়ই পুলিশের উপরে হামলা চালায় ওই লোকগুলো। পাঞ্জাবের পুলিশ প্রধান দিনকর গুপ্তা টুইট করে জানিয়েছেন, ‘একদল লোক কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তা এবং পাতিয়ালার সবজি মান্ডির এক মান্ডি বোর্ড কর্মকর্তার উপরে হামলা চালায়। হামলায় হাত কেটে যাওয়া এএসআই হরজিৎ সিংহকে চণ্ডীগড়ের পিজিআইয়ে পৌঁছে দেয়া হয়েছে।’

দ্বিতীয় একটি টুইটে তিনি জানান‌, ‘আমি পিজিআইয়ের পরিচালকের সাথে কথা বলেছি। তিনি শীর্ষস্থানীয় প্লাস্টিক সার্জনদের নিয়োগ করেছেন অস্ত্রোপচারের জন্য। অস্ত্রোপচার সদ্য শুরু হয়েছে। অভিযুক্ত নিহাং দলকে গ্রেফতার করে পরবর্তী পদক্ষেপ করা হবে।’

ঘটনায় অভিযুক্ত তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আরো তিনজন সন্দেহভাজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

পাঞ্জাবে লকডাউনের মেয়াদ ১ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংহ জানিয়েছেন, নতুন করে করোনা আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা যা ঘটছে তা গোষ্ঠী সংক্রমণের দিকে ইঙ্গিত দিচ্ছে।

কেন্দ্র অবশ্য এই দাবিকে উড়িয়ে দিয়েছে। তারা জানিয়েছে, এখনো দেশে গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হয়নি। আক্রান্তদের সূত্রকে চিহ্নিত ও আইসোলেট করা এবং চিকিৎসা করা সম্ভব হচ্ছে।

পাঞ্জাবে ১৫১ জন আক্রান্ত হয়েছেন করোনায়। মৃত ১১।

সূত্র : এনডিটিভি


আরো সংবাদ