০৭ এপ্রিল ২০২০

জামিন পেলেন ভীম আর্মির প্রধান চন্দ্রশেখর

জামিন পেয়েছেন ভীম আর্মির প্রধান চন্দ্রশেখর আজাদ - ছবি : আনন্দবাজার পত্রিকা

ভারতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতা করে গ্রেফতার ভীম আর্মি প্রধান চন্দ্রশেখর আজাদ জামিন পেয়েছেন। বিনা অনুমতিতে জামা মসজিদে নয়া নাগরিকত্ব আইন বিরোধী বিক্ষোভ সংগঠিত করেছিলেন বলে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছিল দিল্লি পুলিশ। তবে জামিন আদেশে আদালত বলেছে, প্রতিবাদ করা নাগরিক অধিকার।

তিস হাজারি আদালতের বিচারক কামিনী লাউয়ের নির্দেশ অনুসারে, আগামী চার সপ্তাহ কোনো বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করা চলবে না। বিধানসভা ভোটেপর্বে দিল্লিতে থাকতে পারবেন না ভীম আর্মি প্রধান। যাওয়া চলবে না শাহিনবাগ চত্বরে। তবে উত্তরপ্রদেশে রওনা হওয়ার আগে তিনি জামা মসজিদ চত্বরে যেতে পারবেন।

মঙ্গলবারই তার জামিনের শুনানি শুরু হলে দিল্লি পুলিশকে ভর্ৎসনা করে তিস হাজারি আদালতের বিচারক। আদালত জানিয়ে দেয়, বিক্ষোভ প্রদর্শন নাগরিক অধিকার। সেই অধিকার কেড়ে নিতে পারে না দিল্লি পুলিশ। কাজ হয়নি তার বিরুদ্ধে সহিংসতা ছড়ানোর অভিযোগ এনেও। বিচারক কামিনী লাউ সরকারি আইনজীবীকে ভর্ৎসনা করে বলেন, ‘কোথায় সহিংসতা, চন্দ্রশেখরের সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্টে কোথায় ভুল? কেন প্রতিবাদ করা যাবে না? সংবিধানটা আদৌ পড়ে দেখেছেন?’

গত ২১ ডিসেম্বর চন্দ্রশেখরকে গ্রেফতার করে দিল্লি পুলিশ। জামা মসজিদ চত্বর থেকে আটক করা হয় হয় তাকে। দিল্লি পুলিশের সাথে দীর্ঘক্ষণ লুকোচুরি খেলার পরে ধরা দিতে বাধ্য হন চন্দ্রশেখর। তাকে গ্রেফতার করে দিল্লি পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ। মিশন চন্দ্রশেখর সফল না হলেও তার গ্রেফতারির বিরোধিতায় উত্তাল হয়েছিল দেশের ছাত্র যুবসমাজ।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা


আরো সংবাদ