০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯, ১৫ রজব ১৪৪৪
ads
`

ব্রাজিল ঝড়ে উড়ে গেল কোরিয়া

ব্রাজিল ৪-১ দক্ষিণ কোরিয়া
দক্ষিণ কোরিয়াকে বিধ্বস্ত করার পর নেইমার, মিলিতাও, পেদ্রো, ভিনিসিয়াস, রদ্রিগো ও চলতি বিশ্বকাপে ব্রাজিলের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ গোল করা রিচার্লিসন : ইন্টারনেট -

খেলা শেষে পেলের ছবি সম্বলিত ব্যানার নিয়ে মাঠের মাঝখানে গোল বৃত্তের কাছে ব্রাজিলের ফুটবলাররা। গ্রেট এই ফুটবলার পেলে গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালের বিছানায়। এই ব্যানারে গতকাল দ্বিতীয় রাউন্ডে জয়টা তাকেই যেন উৎস্বর্গ করল নেইমরা-থিয়েগো সিলভারা। এরপর হলুদ জার্সিধারীদের গন্তব্য গোল পোস্টের পেছনে গ্যালারিতে থাকা দর্শকদের কাছে। যেখানে ম্যাচের ৭ মিনিটে প্রথম গোলের পর থেকেই উল্লাস করছিল সেলেকাও সমর্থকরা। তাদের এই বাঁধভাঙা আনন্দের উপলক্ষটা তৈরি হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে সহজ জয়ে। ৪-১ গোলে দ্বিতীয় রাউন্ডের এই ম্যাচ জিতে ব্রাজিল এখন ৯ ডিসেম্বর রাত ৯টায় কোয়ার্টার ফাইনালে ক্রোয়েশিয়ার মুখোমুখি হওয়ার অপেক্ষা। আর ২০০২-এর সেমিফাইনালিস্ট দক্ষিণ কোরিয়াকে ফিরতে হচ্ছে দেশে।
রিজার্ভ বেঞ্চের ব্রাজিল। আর পূর্ণ শক্তির ব্রাজিল। এই দলের মধ্যে তফাৎটা কত বড় তা দক্ষিণ কোরিয়ার চেয়ে কে বেশি বুঝবে। ইনজুরির জন্য দুই ম্যাচ মিস করা নেইমার ফিরেছেন। একাদশে এলেন দানিলোও। এদের উপস্থিতিতে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা এতটা ভয়ঙ্কর হবে তা কোনোভাবেই ধারণাতে রাখেনি এশিয়ান দেশটি। যারা আগের ম্যাচে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর পর্তুগালকে হারিয়ে জায়গা করে নিয়েছিল দ্বিতীয় রাউন্ডে। সেই কোরিয়াদের কাল স্টেডিয়াম ৯৭৪ এ খড়কুটোর মতো উড়িয়ে দিলো ব্রাজিল। বড় জয়ে নক আউট পর্বের প্রথম ম্যাচ জিতে টানা তিন বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে তিতের দল।
তিতে যদি রিজার্ভ বেঞ্চের ৯ জনকে একাদশে সুযোগ না দিতেন তাহলে ক্যামেরুনের কাছে কি ব্রাজিল গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে হারতো। যদিও সে ম্যাচে ২১টি চান্স মিস করে ইনজুরির টাইমের গোলে লজ্জিত হতে হয়েছিল। সে ধাক্কা সামলিয়ে উঠেই ২০০২ সালে সর্বশেষ বিশ্বকাপ জেটা দলটি কাল স্বরূপে ফিরে আসে। ম্যাচের শুরু থেকে সেই যে চেপে ধরা এশিয়ান শক্তিটিকে তা অব্যাহত ছিল ৯০ মিনিট পর ইনজুরি টাইমের শেষ ৪ মিনিটেও। তবে ল্যাতিন দেশটির জয়টি ক্লিন শিট হয়নি দক্ষিণ কোরিয়া ৭৬ মিনিটে একটি গোল পরিশোধ করায়। তিন বার নিজ দলের পোস্টকে অক্ষত রাখার পর এ যাত্রায় আর পারেননি গোলরক্ষক অ্যালিসন বাকের।
শেষ আটে উঠার লড়াইয়ে ব্রাজিল ৭ মিনিটে এগিয়ে যায় ভিনিসিয়াস জুনিয়রের বুদ্ধিদীপ্ত শটে। ডান দিক থেকে রাফিনহার ক্রসে বল পেয়ে আগুয়ার বিপক্ষ গোলরক্ষক ও ডিফেন্ডারদের মাথার ওপর দিয়ে বল জালে পাঠান রিয়াল মাদ্রিদের এই খেলোয়াড়। ১১ মিনিটেই স্কোর ২-০। জং উ ইয়ং বক্সে ফাউল করেন রিচার্লিসনকে। ফ্রান্সের রেফারির দেয়া পেনাল্টি থেকে কাতার বিশ্বকাপে নিজের প্রথম গোল নেইমারের। বিশ্বকাপে এটি তার ৭ম গোল। ম্যাচ থেকে তখন মোটামুটি ছিটকে গেছে কোরিয়া। ২৯ ও ৩৬ মিনিটে ম্যাচের সব আকর্ষণই শেষ করে দেয় ব্রাজিল।
২৯ মিনিটে মার্কুইনসের পাস থেকে থিয়াগো সিলভার থ্রু পাসে আসরে নিজের তৃতীয় গোল আদায় রিচার্লিসনের। ৩৬ মিনিটে লুকাস পাকুয়েতার গোলে অবদান নেইমার ও ভিনিসিয়াসের। নেইমারের থ্রু থেকে ভিনিসয়াসের ক্রসে যে শট নেন পাকুয়েতা তাতে পরাস্ত বিপক্ষ কিপার।
কোরিয়া অবশ্য ১৭ মিনিটে ব্যবধান কমানোর সুযোগ পেয়েছিল। কিন্তু বক্সের বাইরে থেকে হ্যাং হিন চেনের দূরপাল্লার শট অসামান্য দক্ষতায় কর্ণার করের ব্রাজিল কিপার। বিরতির পরপরই আবার অ্যালিসনের প্রতিরোধ। এবার তিনি কর্নার করেন সং হিউ মিনের শট। ৭৬ মিনিটে অবশ্য হার মানতেই হয় বাকেরকে। বক্সের বাইরে থেকে নেয়া পায়েক সিয়ং হোর বাম পায়ের বুলেট গতির শট রুখতে বাম দিকে পুরো শরীর ভাসিয়েও কিছু করতে পারেননি লিভারপুরের এই কিপার।
ব্রাজিল এই ম্যাচে বার্তা দিয়েছে তারা কেন ফিফা র‌্যাংকিংয়ে এক নম্বরে। সে সাথে অন্যদের জানিয়ে দিয়েছে তারা এবার ষষ্ঠ শিরোপাই জিততে এসেছে।


আরো সংবাদ


premium cement
বইমেলায় আজহার মাহমুদের ‘স্বদেশ ভ্রমণের ইতিকথা’ চ্যাটজিপিটি কেন সবার আগ্রহের কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে? মেহেরপুরে হেরোইনসহ ৩ মাদক কারবারি আটক উইকিপিডিয়া খুলে দেয়ার নির্দেশ পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর নিজেকে যেভাবে মেলে ধরেছেন তৌহিদ হৃদয় বিশ্ব একটি বৃহত্তর যুদ্ধের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে : জাতিসঙ্ঘ মহাসচিব ভূমিকম্পে বিধ্বস্ত তুরস্কে যাচ্ছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী তুরস্ক ও সিরিয়ায় ত্রাণ সহায়তা এবং উদ্ধারকারী দল পাঠিয়েছে রাশিয়া সিজেএম আদালতে আগুন বান্দরবানে র‌্যাবের সাথে সন্ত্রাসী ও কেএনএফ’র সংঘর্ষ চলছে যোগাযোগ ব্যবস্থার বৈপ্লবিক পরিবর্তন দৃশ্যমান : ওবায়দুল কাদের

সকল