১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরি
`

শ্রীলঙ্কার ম্যাচেই গুরুত্ব জামাল-অস্কারের

-

সংবাদ সম্মেলন করেই সাফের দল ঘোষণা করার কথা ছিল । সেই মোতাবেকই গতকাল দুপুরে বাফুফে ভবনে হাজির মিডিয়া কর্মীরা। এলেন বাংলাদেশ দলের কোচ অস্কার ব্রুজন ও অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া। তবে মালদ্বীপ সাফের জন্য ২৩ সদস্যের দল ঘোষণা হলো না তখন। গতকাল সকালে জাতীয় দলের ফুটবলারদের করোনা টেস্ট হয়েছে। এই রিপোর্ট পাওয়ার আগ পর্যন্ত দল ঘোষণা না করার সিদ্ধান্ত। একই সাথে কোচ অস্কার ব্রুজন গতকাল বিকেলের শেষ প্র্যাকটিস সেশন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে চেয়েছেন। দল ঘোষণায় বিলম্ব হলেও সাফে টার্গেট নির্ধারণে অপেক্ষায় থাকেননি অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া। স্পষ্ট করেই বলেন আমরা চ্যাম্পিয়ন হতে চাই। তবে এখন আমাদের যত দৃষ্টি ১ অক্টোবর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচের দিকে। একই বক্তব্য কোচ অস্কার ব্রুজনেরও। সন্ধ্যায় অবশ্য ২৩ সদস্যের সাফের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেন কোচ। এতে নতুন মুখ ঢাকা আবাহনীর মিডফিল্ডার মোহাম্মদ হৃদয়। বাদ পড়েছেন ডিফেন্ডার মেহেদী হাসান, আতিকুজ্জামান ও মানিক হোসেন মোল্লা। কিংসলেরও জায়গা হয়নি বাংলাদেশের পক্ষে খেলার বিষয়ে ফিফার অনুমতি না আসায়। আজ দুপুরে মালদ্বীপের উদ্দেশে রওনা হচ্ছে বাংলাদেশ দল।
গতানুগতিক গ্রুপ লিগের সাফ ফুটবল নয় এবারের আসর। সিঙ্গেল লিগের সাফ। প্রথম ম্যাচের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা হওয়ার তাদের বিপক্ষে জিতলে তিন পয়েন্ট নিয়ে পরের ম্যাচে ভারতের মোকাবেলা করা যাবে বাড়তি প্রেরণা নিয়ে। কোচ জানান, আমরা যদি শ্রীলঙ্কাকে হারারে পারি তাহলে ফাইনালের পথে এগিয়ে যাবো। এরপর ভারতের সাথে না হারার টার্গেট। পরের দুই ম্যাচের প্রতিপক্ষ নেপাল ও মালদ্বীপের বিপক্ষে জয়ের লক্ষ্য নিয়ে খেলতে চাই।
অধিনায়ক জামালের বক্তব্য, ‘আমাদের এখন মূল প্রতিপক্ষতো শ্রীলঙ্কা। ম্যাচ বাই ম্যাচ এগোনোর যে পরিকল্পনা তা বাস্তবায়নের জিততে চাই প্রথম ম্যাচেই লঙ্কানদের বিপক্ষে।’ কোচ জেমি ডে রক্ষণাত্মক কৌশলে খেলাতেন জামালদের। অস্কারের দর্শন আক্রমণাত্মক খেলতে হবে। মাত্র সাত দিনের অনুশীলনে নতুন কোচের এই চড়াও হয়ে খেলার কৌশল রপ্ত করতে কোনো সমস্যাই হচ্ছে না ফুটবলারদের । জানান জামাল। এবারে সাফে ভালো করার ব্যাপারে ডেনমার্ক প্রবাসী এই ফুটবলারের ভালো করার আত্মবিশ্বাস মূলত স্কোয়াডের ফুটবলারদের কারণেই। সাইফ স্পোর্টিংয়ে খেলা এই মিডফিল্ডারের মতে, আমার যে গ্রুপটা আছি এই গ্রুপ কিছু করতে পারে। জেমির সময় আমরা ৩-৪-৩ ফরমেশনে খেলতাম। এখন অস্কার খেলাচ্ছেন ৪-৩-৩ এ। কোনো সমস্যাই হচ্ছে না ফুটবলারদের।
তবে অস্কারের আফসোস তার আক্রমণাত্মক কৌশলে ফুটবলারদের রপ্ত করাতে মাত্র এক সপ্তাহ সময় পাওয়ায়। জানান, সাধারনত ৮ সপ্তাহ সময়ের প্রয়োজন হয় সেখানে পেয়েছি ছয় দিনের ট্রেনিং।
বাংলাদেশ দল : জিকো, রানা, সোহেল, তপু, রেজা, ইয়াসিন আরাফাত, বাদশা, রহমত , বিশ্বনাথ, রাফি, সোহেল রানা, সাদউদ্দিন, বিপলু, জামাল, রাকিব, সুমন রেজা, তারিক কাজী , সুফিল, ইব্রাহিম, মতিন, ফাহাদ, জুয়েল রানা ও হৃদয়।

 



আরো সংবাদ