০২ আগস্ট ২০২১
`

সাবিনার গোলের সেঞ্চুরি

-

এই মাইলফলকটা আরো আগেই পূরণ হতো। যদি এবারের লিগে প্রথম থেকেই গোল পেতেন নিয়মিত। কৃষ্ণা, স্বপ্না, তহুরা আর ছোট শামসুন্নাহারের গোলের ভিড়ে বলতে গেলে গোল খরাতেই ভুগছিলেন বাংলাদেশ দলের এই অধিনায়ক। ছয় ম্যাচে তার গোল ছিল চারটি। তবে এর পরেই আগেই সেই ফর্মে। লিগের প্রথম পর্বের শেষ ম্যাচে ডাবল হ্যাটট্রিক নাসরিন স্পোর্টস অ্যাকাডেমির বিপক্ষে। গতকাল শুরু হওয়া লিগের ফিরতি পর্বেও হ্যাটট্রিক সদ্যপুষ্করিণীর স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে। কাল এই হ্যাটট্রিকের পথেই মহিলা লিগের ম্যাচে অনন্য মাইলফলক স্পর্শ বসুন্ধরা কিংস ক্যাপ্টেনের। মহিলা লিগে গোলের সেঞ্চুরিয়ান এই স্ট্রাইকার। চার লিগ মিলে এখন সাতক্ষীরার এই মেয়ের গোলসংখ্যা ১০১।
শততম গোলে পৌঁছাতে ম্যাচের আগে তার গোল দরকার ছিল দু’টি। এই লিগে এর আগ পর্যন্ত তার গোল ছিল ১০টি। কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহি মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে বেলা ১১টায় শুরু হওয়া ম্যাচের ৩১ মিনিটেই গোলের সেঞ্চুরি পূরণ করেন তিনি (২০ মিনিটে প্রথম গোল)। এরপর ৭৮ মিনিটে তৃতীয় গোল করে চলতি লিগে নিজের দ্বিতীয় হ্যাটট্রিক এবং ১০১তম গোল আদায়। আর তার দল বসুন্ধরা কিংসও পায় ৫-০ গোলের জয়। অপর দুই গোল আঁখি খাতুন ( ৬৬ মি.) ও মারিয়া মান্ডার ( ৬৪ মি.)।
এই ম্যাচে সাবিনার শততম গোল উদযাপনের যাবতীয় প্রস্তুতিই সম্পন্ন করে রেখেছিল তার ক্লাব বসুন্ধরা কিংস। তাদের আর অপেক্ষায় রাখেননি তিনি। ২০১১ সালে শেখ জামালের হয়ে ২৫ গোল করার পর ২০১৩ সালে মোহামেডানের জার্সি গায়ে করেন ২৮ গোল। গত বছর বসুন্ধরা কিংসের হয়ে লিগের সর্বোচ্চ ৩৫ গোল। গত সিজনেই দেশের সব প্রতিযোগিতা মিলে ২৫০ গোল করার কৃতিত্ব গড়েন। এবার ছুঁয়ে ফেললেন গোলের তিন অঙ্কের কোটা।
তার এই রেকর্ডের দিনে লিগের অপর ম্যাচ খেলতে পারেনি কাঁচিঝুলি স্পোর্টিং ক্লাব। নিয়মানুযায়ী ম্যাচের আগে তারা করোনা সার্টিফিকেট দেখাতে ব্যর্থ হওয়ার নাসরিন স্পোর্টস অ্যাকাডেমির বিপক্ষে এই ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়। পরে বাফুফে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।

 



আরো সংবাদ