০৭ মে ২০২১
`

দলীয় পারফরম্যান্সের কথা বললেন মুমিনুল

-

বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফরে দলের সাথে নেই, দুই অন্যতম খেলোয়াড় সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমান। তাই বলে কি সিরিজ শুরুর আগেই পিছিয়ে গেছে বাংলাদেশ? অনুপস্থিতিতে সেই প্রশ্ন ওঠা স্বাভাবিক। তবে মাঠের লড়াইয়ের আগে নিজেদের খর্বশক্তির মনে করছেন না মুমিনুল হক। বাংলাদেশ টেস্ট অধিনায়ক মনে করিয়ে দিলেন, সাকিব ও মোস্তাফিজ অতিমানব নন। আইপিএলে খেলার জন্য দুই ম্যাচের এই টেস্ট সিরিজ থেকে ছুটি নিয়েছেন সাকিব। এই সিরিজের জন্য ম্যানেজমেন্টের ভাবনায় না থাকায় ভারতের টি-২০ টুর্নামেন্ট খেলতে গেছেন মোস্তাফিজও।
মহামারীকালে নিজেদের দ্বিতীয় সফরে আজ দেশ ছাড়বে বাংলাদেশ দল। গতকাল মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে মুমিনুল বলেন, দু-একজনের কথা না ভেবে বেশি জরুরি দলগত পারফরম্যান্সের কথা ভাবা। বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘আমার মনে হয় না, সাকিব ভাই, মোস্তাফিজ বা একাদশে (কেউ) না থাকলে দল ফল পাবে না। খেলোয়াড় তো আরো আছে। তাদের তো ১০-১২টা হাত নয়। অন্য যারা আছে, তাদেরও ১০-১২টা হাত নয়। আমার মনে হয় না এর কোনো প্রভাব পড়ে। আমরা হয়তো দলগতভাবে খেলতে পারছি না, এই কারণে ফল হচ্ছে না। আর কোনো কিছু না।’
গত ফেব্রুয়ারিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে চোটের জন্য খেলেননি সাকিব। মাহমুদুল্লাহ বেশ কিছু দিন ধরেই টেস্ট দলের বাইরে। সেরা দল সবসময় পাওয়া যাবে না, এই বাস্তবতা মেনে নিয়ে মুমিনুল তরুণদের তাগিদ দিলেন সুযোগ কাজে লাগানোর। মুমিনুল যোগ করেন, ‘এবার সাকিব ভাই নেই, হয়তো এমনও সিরিজ হতে পারে যেখানে দুই-তিনজন সিনিয়র ক্রিকেটার থাকবে না। এর মধ্যে যারা খেলবে, তাদের জন্য, আমি বারবারই কথাটা বলে আসছি, তাদের এটা ভালো সুযোগ। অন্য যারা খেলবে, তাদের জন্য ভালো সুযোগ এবং সেভাবেই প্রস্তুতি নেয়াটা ভালো।’
ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সবশেষ সিরিজটা ভালো না গেলেও বোলিং নিয়ে উদ্বেগের খুব বেশি কিছু দেখছেন না মুমিনুল হক। বাংলাদেশ টেস্ট অধিনায়কের দুর্ভাবনায় জায়গা জুড়ে আছে ব্যাটিং। দেশের বাইরে সবশেষ পাঁচ টেস্টেই যে ইনিংস ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশ!
বাংলাদেশের সবশেষ তিনটি টেস্ট সফর ছিল নিউজিল্যান্ড, ভারত ও পাকিস্তানে। তিন সফরে পাঁচ টেস্টের একটি ইনিংস ছাড়া বড় কোনো স্কোর গড়তে পারেনি দল। বিদেশে সবশেষ আট ইনিংসে দলকে এমনকি আড়াই শ’ রানও এনে দিতে পারেননি ব্যাটসম্যানরা। এই আট ইনিংসে নেই একটি ব্যক্তিগত সেঞ্চুরিও।
ব্যর্থতার সেই বৃত্ত ভাঙতে এবার শ্রীলঙ্কার সফরের দিকে তাকিয়ে বাংলাদেশ। মুমিনুল আরো বলেন, ‘আপনি যদি সর্বশেষ চার-পাঁচটা সিরিজ দেখেন, আমার মনে হয়, আপনিও আমার সাথে একমত হবেন। পেস বোলাররা খুবই ভালো করছে, এমনকি স্পিনাররাও। ওই হিসেবে চিন্তা করলে আমি বোলারদের নিয়ে খুব খুশি।’
তিনি বলেন, ‘এখানে ব্যাটিংটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। খালি বোলিং নয়। শেষ দুই-তিনটা সিরিজে ব্যাটিংটা তেমন আশানুরূপ হয়নি, যেটা আমাদের প্রত্যাশা ছিল। আমার কাছে ব্যাটিংটা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।’ ২০১৭ সালে শ্রীলঙ্কায় সবশেষ টেস্টে জিতেছিল বাংলাদেশ।



আরো সংবাদ