১৩ মে ২০২১
`

৬০ রেকর্ডে শেষ বাংলাদেশ গেমস

-

রেকর্ডের বন্যায় শেষ হয়েছে এবারের বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস। ৭ বছর পর গেমসে ক্রীড়াবিদরা ৬০টি নতুন জাতীয় রেকর্ড গড়েন। এরমধ্যে ভারোত্তোলনেই হয়েছে ৩৪টি। এ ছাড়া সাইক্লিংয়ে ১৩টি, সুইমিংয়ে ১১টি, আরচারি ও অ্যাথলেটিকসে একটি করে রেকর্ড গড়ছেন খেলোয়াড়রা।
২০১৩ সালে ৮ম গেমসে রেকর্ড হয়েছিল ২২টি। সাইক্লিংয়ে চারটি, সাঁতারে ৯টি, ভারোত্তোলনে ছয়টি, আরচারিতে দু’টি এবং অ্যাথলেটিকসে একটি। গত বছরের তুলনায় এবার ৩৮টি বেশি। গুঞ্জন রয়েছে প্রতি রেকর্ডে বিওএ ঘোষিত এক লাখ টাকা পেতেই বিভিন্ন কলা কৌশলে রেকর্ড করানো হয়েছে। অবশ্য অ্যাথলেটদের বক্তব্য, করোনার কারনে অনুশীলনে বিঘœ না হলে আরো রেকর্ড হতো।
ভারোত্তোলনের ৩৪ রেকর্ড
ভারোত্তোলনে পুরুদের ৬১ কেজিতে আনসারের মোস্তাইন বিল্লাহ দু’টি রেকর্ড করেন।
৬৭ কেজিতে আনসারের বাকী বিল্লাহ, একই ওজন শ্রেনীতে স্ন্যাচে সেনাবাহিনীর শিমুল কান্তি সিংহ, ৭৩ কেজিতে সেনাবাহিনীর হামিদুল ইসলাম, ৮১ কেজিতে রুপা জয়ী সেনাবাহিনীর মনোরঞ্জন রায়, ৮৯ কেজিতে আনসারের সাখায়েত হোসেন প্রান্ত। ১০২ কেজিতে সেনাবাহিনীর আশিকুর রহমান। একই ওজন শ্রেণীতে রুপা জয়ী আনসারের আমিনুল ইসলাম স্ন্যাচে, ১০৯ কেজিতে সেনাবাহিনীর আব্দুল্লাহ আল মোমিন, ঊর্ধ্ব-১০৯ কেজিতে সেনাবাহিনীর ফরহাদ আলী রেকর্ড করেছেন।
মহিলা বিভাগে ৪৯ কেজিতে সেনাবাহিনীর স্মৃতি আক্তার, ৫৫ কেজিতে আনসারের ফুলপতি চাকমা, ৫৫ কেজিতে রুপা জয়ী সেনাবাহিনীর মার্জিয়া আক্তার স্ন্যাচে, ৫৯ কেজিতে আনসারের ফাহিমা আক্তার ময়না রেকর্ডের মালিক।
বাংলাদেশ গেমসে তিনটি রেকর্ড গড়ে স্বর্ণপদক জিতেছেন টানা দু’টি সাউথ এশিয়ান গেমসে (এসএ) সোনা জয়ী ভারোত্তোলক মাবিয়া আক্তার সীমান্ত। ৬৪ কেজিতে এই তিন রেকর্ড গড়েন তিনি। ৮৭ কেজিতেও তিন রেকর্ড সেনাবাহিনীর তানিয়া খাতুনের। প্রান্ত এবং ফরহাদও তিন রেকর্ডের মালিক
৭১ কেজিতে সেনাবাহিনীর ফারজানা আক্তার রিয়া, ৮১ কেজিতে সেনাবাহিনীর মুনিরা কাজী, ঊর্ধ্ব-৮৭ কেজিতে সেনাবাহিনীর নাজনিন আক্তার মুন্নি দু’টি এবং ঊর্ধ্ব-৮৭ কেজিতে আনসারের সোয়াইবা রোকাইয়া রেকর্ড বুকে নাম লিখিয়েছেন।
সাইক্লিংয়ের ১৩ রেকর্ড
সাইক্লিংয়ে ১০০০ মিটার টাইম ট্রায়াল ও ১০০০ মিটার স্প্রিন্টে সেনাবাহিনীর বিশ্বাস ফয়সাল হোসাইন, ১২০০ মিটার অলিম্পিক স্প্রিন্ট ও সেনাবাহিনী বিশ্বাস ফয়সাল হোসাইন, আলমগীর হোসেন ও মুক্তাদুর আল হাসান, ৪০০০ মিটার ইন্ডিভিজুয়্যাল পারস্যুটে বিজিবির সবুর খান, ১৬০০ মিটার টিম টাইম ট্রায়ালে সেনাবাহিনী বিশ্বাস ফয়সাল হোসাইন, আলমগীর হোসেন, মুক্তাদুর আল হাসান ও শরিফুল ইসলাম, ৪০০০ মিটার টিম পারস্যুটে সেনাবাহিনী বিশ্বাস ফয়সাল হোসাইন, শরিফুল ইসলাম, মিজানুর রহমান ও হেলাল উদ্দিন রেকর্ড গড়েন।
মহিলারদের ৫০০ মিটার টাইম ট্রায়ালে বিজিবির নিশি খাতুন, ৮০০ মিটার অলিম্পিক স্প্রিন্টে সেনাবাহিনী শিল্পী খাতুন ও সমাপ্তি বিশ্বাস, ২০০০ মিটার ইন্ডিভিজ্যুয়াল পারস্যুটে সেনাবাহিনীর সুবর্ণ বর্মা, ১০০০ মিটার স্প্রিন্টে সেনাবাহিনীর শিল্পী খাতুন, ১২০০ মিটার টিম টাইম ট্রায়ালে সেনাবাহিনী শিল্পী খাতুন, সুবর্ণা বর্মা, সমাপ্তি বিশ্বাস ও গীতা রায়, ৪০০০ মিটার স্ক্র্যাচ রেসে সেনাবাহিনীর সুবর্ণা বর্মা, ২০০০ মিটার টিম পারস্যুটে সেনাবাহিনী শিল্পী খাতুন, সুবর্ণা বর্মা, সমাপ্তি বিশ্বাস ও সুমিত্রা গাইন রেকর্ড গড়েন
সুইমিংয়ের ১১ রেকর্ড
সাঁতারে পুরুষদের ২০০ মিটার ব্যাকস্ট্রোকে সেনাবাহিনীর জুয়েল আহম্মেদ, ১০০ মিটার বাটারফ্ল¬াইয়ে নৌবাহিনীর মাহমুদুন্নবী নাহিদ, ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলে নৌবাহিনীর আসিফ রেজা, ২০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে নৌবাহিনীর মাহফিজুর রহমান সাগর, ২০০ মিটার বাটার ফ্লাই ও ২০০ মিটার ব্যক্তিগত মিডলেতে নৌবাহিনীর কাজল মিয়া, ৫০ মিটার ব্যাকস্ট্রোক সেনাবাহিনীর জুয়েল আহম্মেদ, ৪০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে সেনাবাহিনীর ফয়সাল, ৪দ্ধ১০০ মিটার ফ্রিস্টাইল রিলেতে নৌবাহিনীর আরিফ রেজা, মাহমুদুন্নবী নাহিদ, অনিক ইসলাম ও মাহফিজুর রহমান, মহিলা বিভাগের ৫০ ও ১০০ মিটার বাটারফ্লাইয়ে নৌবাহিনীর সোনিয়া খাতুন রেকর্ড গড়েন।
আরচারি ও অ্যাথলেটিকসে ১টি রেকর্ড
বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমসের আরচারির কম্পাউন্ডে পুলিশের অসীম কুমার দাস, অ্যাথলেটিকসে মহিলাদের ২০০ মিটার স্প্রিন্টে নৌবাহিনীর শিরিন আক্তার আগের রেকর্ড ভেঙেছেন।

 



আরো সংবাদ