১২ এপ্রিল ২০২১
`

আবাহনীর প্রতিপক্ষ মালদ্বীপের ঈগলস

-

আগেই অনুমেয় ছিল। এবারের এএফসি কাপের প্রিলিমিনারি রাউন্ডে মালদ্বীপের ক্লাব ঈগলসই হতে যাচ্ছে ঢাকা আবাহনীর প্রতিপক্ষ। গত পরশু নিজ মাঠে নামের প্রতি সেই সুবিচারই করেছে হাজার দ্বীপের দেশের ক্লাবটি। ভুটানের থিম্পু সিটি এফসিকে ২-০ গোলে হারিয়ে প্রিলিমিনারি রাউন্ড ২ এ খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে তারা। ফলে ১৪ এপ্রিল তাদের সাথে পরের রাউন্ডে যাওয়ার ম্যাচ ঢাকা আবাহনীর। পরশু অন্য ম্যাচে নেপালের ত্রিভুবন আর্মি ৫-১ গোলে হারিয়েছে শ্রীলঙ্কান পুলিশ দলকে। ১৪ এপ্রিল নেপালি ক্লাবটি তাদের অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলবে ভারতের ব্যাঙ্গালুরু এফসির বিপক্ষে। ১৪ তারিখের এই দুই ম্যাচের জয়ী দল ২১ এপ্রিল পরস্পরের মুখোমুখি হবে। আবাহনী ও ব্যাঙ্গালুরু জিতলে খেলা হবে ভারতে। কারন বাংলাদেশী ক্লাবটির চেয়ে ভারতীয় ক্লাবটির র্যাংকিং ভালো। আর ত্রিভুবন আর্মি ও আবাহনী জয়ী হলে ভেনু ঢাকা। কারণ র্যাংকিংয়ে নেপালি ক্লাবটির চেয়ে অগ্রবর্তী অবস্থান আবাহনী।
দেশে করোনার ভয়াবহতার কারণে ঈগলসের সাথের ম্যাচটি পেছাতে বলেছিল ঢাকা আবাহনী। এতে এএফসির প্রস্তাব ছিল অন্য কোনো দেশের ভেনুতে ম্যাচটি আয়োজন। এতে আবাহনীর দায়িত্বশীলরা ভেবে দেখল অন্য দেশের চেয়ে নিজের দেশে খেলাই ভালো। তাই এখন বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামেই ১৪ এপ্রিল ম্যাচটি আয়োজন করবে। বিকেল সাড়ে ৪টায় হবে খেলাটি। এএফসির পরামর্শে দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে হবে খেলা।
এএফসি কাপ এবং বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগেও ভালো করতে আবাহনী ফিরিয়ে আনছে নাইজেরিয়ান স্ট্রাইকার সানডে চিজোবাকে। আগামীকাল ঢাকায় আসছেন তিনি। ওই দিনই দেশে ফিরে যাবেন আকাশি নীল শিবিরের ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার ফ্রান্সিসকো টোরেস। লিগে ৭ গোল করলেও তার পারফরম্যান্সে খুশি নন আবাহনীর কোচ।
মালদ্বীপের ঈগলস ক্লাব এলে তাদেরকে দুই দিনের কোয়ারেন্টিন শেষে তারা যেন অনুশীলন করতে পারে সে চেষ্টা করছে আবাহনী। দলটিরে ভিসার জন্যও কাগজপত্র পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। জানান রুপু।
বাংলাদেশের উন্নতি : নেপালের তিন জাতি ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন হতে না পারলেও কিছুটা লাভ হয়েছে বাংলাদেশের। ফিফা র্যাংকিংয়ে দুই ধাপ উন্নতি হয়েছে। ১৮৬ থেকে তারা এখন ১৮৪ তে উঠেছে। তবে ফাইনালে বাংলাদেশকে হারানো নেপাল আছে ১৭১ এ।
দলবদলের সময় বাড়ল : করোনার কারণে বিদেশী ফুটবলারদের রেজিস্ট্রেশন সময় সীমা বৃদ্ধির জন্য বাফুফের করা অনুরোধ গ্রহণ করেছে ফিফা। ফলে ৭ এপ্রিলের পরিবর্তে এখন ১৭ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে দেশী এবং বিদেশী ফুটবলারদের দলবদল কার্যক্রম চলবে।

 



আরো সংবাদ