১২ এপ্রিল ২০২১
`

ইতালিয়ান কোচের পেছনে ছুটছে শুটিং

পিস্তলে সেই কোরিয়ান কিম
-

শাকিল আহমেদ, আরমিন আশাদের দায়িত্ব নিতে ফের বাংলাদেশে আসছেন দক্ষিণ কোরিয়ান কোচ কিম ইল ইয়াং। তাকে ২০২৪ সালের প্যারিস অলিম্পিক গেমস পর্যন্ত চুক্তিবদ্ধ করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ শুটিং ফেডারেশন। আগামী মাসেই তিনি আসছন বাংলাদেশে। জানান ফেডারেশন মহাসচিব ইন্তিখাব হামি অপু। মাঝে করোনা এবং অর্থসঙ্কটে ফেডারেশন তাকে ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে কোচ হিসেবে বহাল রাখতে পারেনি।
এই মার্চেই কিমের আশার কথা ছিল বাংলাদেশে। তা পিছিয়ে চলে গেছে এপ্রিল মাসে। ফেডারেশন অবশ্য তার যাবতীয় কাগজপত্র পাঠিয়ে দিয়েছে। মাসে পাঁচ হাজার ডলার বেতন তার। কিম বাংলাদেশ দলের দায়িত্ব নেয়ার পর ফেডারেশন ২৫ মিটার পিস্তলের জন্য আরেকজন কোরিয়ান কোচকে আনবে। জানান অপু। সূত্র মতে, মাসে পাঁচ হাজার ডলার বেতন দেয়া হবে শাকিলদের সাবেক এই কোচকে। আর ২৫ মিটার পিস্তলের কোচের জন্য মাসে বরাদ্দ চার হাজার ডলার বেতন।
তবে এখনো বাংলাদেশর সবচেয়ে সফল ইভেন্ট ১০ মিটার এয়ার রাইফেলের বিদেশী কোচ চূড়ান্ত করতে পারেনি। ফেডারেশনের সাথে যোগাযোগ হচ্ছে ইতালির হাই প্রোফাইলের কোচ নেমান জা’র সাথে। ইতালি জাতীয় দলের হেড কোচ ছিলেন তিনি। নিজের আছে অলিম্পিক পদক। তার শিষ্যদের শুটিংয়ের বিশ্বপর্যায়ে পদক জয়ের রেকর্ড আছে। করোনার জন্য আপাতত কর্মহীন এই নেমান জা। ফ্রি-আছেন টোকিও অলিম্পিক গেমস পর্যন্ত। সেপ্টেম্বরে পুনরায় ইতালি দলের সাথে কাজ শুরু করবেন। তার সাথে ফেডারেশনের যে আলোচনা হয়েছে তাতে তিনি আবদুল্লাহ হেল বাকী, আতকিয়া হাসান দিশাদের কোচ হতে রাজি।
কিন্তু সমস্যা হচ্ছে অতিমাত্রায় বেতন। দিনে তাকে চার শত ইউরো করে দিতে হবে। মাসে যা ১২ হাজার ডলারে গিয়ে ঠেকছে। অপু জানান, বাংলাদেশ দলের সাবেক ডেনমার্কের কোচ ক্লাউসের মানেরই কোচ এই ইতালিয়ান। আমাদের ক্লাউসের মতো কোচকে বিপুল অর্থ বেতন দেয়ার রেকর্ড আছে। তাই এখন যদি জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ এবং বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশর বেতনের টাকা বহন করতে পারে তাহলে ইতালিয়ান কোচকে টোকিও অলিম্পিক গেমস পর্যন্ত নিতে পারব।
নেমান জা অবশ্য নিশ্চয়তা দিতে পারেননি তিনি বাংলাদেশী শুটারদের পদক পাইয়ে দেবেন। সোজা জানিয়ে দেন, আমাকে কাজ দিলে দিতে পারো। না হলে নয়। কিন্তু নেই পদক পাইয়ে দেয়ার নিশ্চয়তা।



আরো সংবাদ