০৯ মার্চ ২০২১
`

সবার দৃষ্টি সাকিবের দিকেই

-

করোনায় খেলা বন্ধ থাকার পর ফের খেলা শুরু। নেতৃত্বে তামিম ইকবাল। অপেক্ষাকৃত নতুন দল ক্যারিবিয়ানরা, যা টাইগারদের সিরিজ জয়েই আত্মবিশ্বাস জোগাচ্ছে। তবে সব কিছু ছাপিয়ে সফরকারীদের বিপক্ষে এই সিরিজে সবার দৃষ্টি থাকবে সাকিব আল হাসানের ওপর। তা স্রেফই দীর্ঘদিন পর তার ম্যাচে ফেরার জন্য। ২০১৯-এর অক্টোবরে আইসিসি এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছিল বিশ্বসেরা বাংলাদেশের এই অলরাউন্ডারকে। ২০২০-এর অক্টোবরে তার এই সাসপেনশনের মেয়াদ শেষ হলেও লাল-সবুজ জার্সিতে আর খেলা হয়নি তার। তিনি মুক্ত হওয়ার পর কোয়ারেন্টিন জটিলতায় বাতিল হয় বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফর। ফলে তখন খেলার বাইরেই থাকতে হয় এই স্পিন অলরাউন্ডারের। ফলে আজ থেকে শুরু হওয়া সিরিজে স্বাভাবিকভাবেই সবার নজর থাকবে তার ওপর।
লম্বা বিরতিতে বাংলাদেশ আর যুক্তরাষ্ট্রে সময় কাটান সাকিব। বিসিবি আয়োজিত বঙ্গবন্ধু টি-২০তে খেলেছেন। তবে ব্যাটে-বলে জ্বলে ওঠা সম্ভব হয়নি তার। সবশেষ বিকেএসপিতে অনুষ্ঠিত মাহমুদুল্লাহ একাদশ আর তামিম ইকবাল একাদশের মধ্যকার প্রস্তুতি ম্যাচে মাহমুদুল্লাহ একাদশের হয়ে খেলেন সাকিব। প্রথম ম্যাচে রানের দেখা না পেলেও পরের ম্যাচে ফিফটি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ক্রিজে নামার আগে এই রানটা খুবই জরুরি ছিল তার আত্মবিশ্বাস ফেরানোর জন্য। এখন আসল ময়দানি লড়াইয়ে নিজেকে ফের প্রমাণের চেষ্টা তার। স্বাগিতক দলে তিন নতুন মুখ। তবে আজ ডেব্যু হতে পারে মিডিয়াম পেসার হাসান মাহমুদের।
করোনার ভয় আর ব্যক্তিগত কারণে ক্যারিবিয়ান দলে ১২ সেরা খেলোয়াড়ের অনুপস্থিতি। এ ব্যত্যয় ছাড়া দলটির করোনার মধ্যেও ম্যাচ খেলা হয়েছে বেশ কয়েকটি। ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ড সফরে তারা পাঁচটি টেস্ট ও তিনটি টি-২০ ম্যাচ খেলেছে। যেখানে পিছিয়ে বাংলদেশ। এরপরও ক্যালিপসোরা ব্যাকফুটে তাদের সেরা ক্রিকেটারার না থাকায়। জেমন মোহাম্মদদের মতো খেলোয়াড়দের ফের দলে ডাকার নেপথ্য তাই। তা দল যেই হোক, সবার প্রত্যাশা ফের রানে ফিরুক সাকিবের ব্যাট। বিপক্ষ ব্যাটসম্যান পর্যদুস্ত হোক তার ঘূর্ণীতে।



আরো সংবাদ