০৭ মার্চ ২০২১
`

রিয়াল ও জুভেন্টাসের বিদায়

-

চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলো থেকে বিদায় নিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ ও জুভেন্টাস। কোয়ার্টার ফাইনালে উঠতে হলে জয়ের বিকল্প ছিল না রিয়ালের, অথচ ম্যাচের শুরুর দিকে গোল খেয়ে পথটা আরো কঠিন করে তোলে জিনেদিন জিদানের দল। ঘরের মাঠের সুবিধা কাজে লাগিয়ে ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠে ম্যানচেস্টার সিটি। পরে রিয়াল ঘুরে দাঁড়িয়েছিল ঠিকই, কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। শুক্রবার রাতে শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগও তারা হেরেছে ২-১ গোলে। একাবর করে বল জালে পাঠান গ্যাব্রিয়েল জেসুস ও রাহিম স্টার্লিং। তাতে দুই লেগ মিলিয়ে ৪-২ অগ্রগামিতায় কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে গেছে ম্যানসিটি।
অন্য দিকে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর দুই গোলেও জুভেন্টাস পৌঁছাতে পারেনি শেষ আটে। শেষ ষোলোর প্রথম লেগে লিওঁর মাঠ থেকে ১-০ গোলে হেরে ফিরেছিল তুরিনের বুড়িরা। কিন্তু ফিরতি লেগ ঘরের মাঠে হওয়ায় আশার পালে হাওয়া লাগছিল জোরেশোরেই। যদিও লিওঁর পাওয়া অ্যাওয়ে গোলটাই কাল হলো তাদের। শুক্রবার রাতে জুভেন্টাস ২-১ গোলে জিতলে দুই লেগ মিলিয়ে স্কোরলাইন হয় ২-২, কিন্তু প্রতিপক্ষের মাঠে গোল দেয়ার সুবিধা নিয়ে ফরাসি ক্লাবটি চলে যায় কোয়ার্টার ফাইনালে, সমান্তরালে বিদায় ঘণ্টা বেজে যায় জুভেন্টাসের।
ইতিহাদ স্টেডিয়ামে ৯ মিনিটে জেসুসের পাস থেকে স্টার্লিংয়ের গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। হাল ছেড়ে দেয়নি রিয়াল। ২৮ মিনিটে ফর্মের তুঙ্গে থাকা করিম বেনজেমা গোলে ১-১ গোলে সমতায় ফেরে রিয়াল। ৬৮ মিনিটে জেসুস ফের লিড এনে দেন ম্যানসিটিকে।
অপর ম্যাচে ১২ মিনিটে পেনাল্টি থেকে মেমফিস দেপেই লক্ষ্যভেদ করলে জুভেন্টাসের সমীকরণ জটিল হয়ে পড়ে। তখন কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে তাদের প্রয়োজন পড়ে ৩ গোল। ৪৩ মিনিটে রোনালদোর পেনাল্টি গোলে ঘুরে দাঁড়ানোর পর জুভেন্টাসের আশা আরো বড় হতে থাকে ৬০ মিনিটে পর্তুগিজ যুবরাজ আরেকবার জাল খুঁজে পেলে। ওই গোলটি ছিল দেখার মতো। যদিও সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ তারকার দুটো গোলই বৃথা গেছে জুভেন্টাস তৃতীয় গোল না পাওয়ায়।



আরো সংবাদ