২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

বিসিবির পরিকল্পনায় ওয়ানডে টি-২০

-

চলতি বছর বাংলাদেশের অনেকগুলো আন্তর্জাতিক ম্যাচ গেছে করোনার পেটে। সামনের মাসে শ্রীলঙ্কা সফরে সেটিই নতুন করে আলোচনায় প্রাণ ফিরে পেয়েছে। আইসিসি বিশ^ টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের আওতায় বাংলাদেশ দলের আসন্ন শ্রীলঙ্কা সফর সূচিতে রয়েছে শুধু তিনটি টেস্ট। তবে ওই সূচির সাথে সীমিত ওভারের আন্তর্জাতিক ম্যাচ যুক্ত করতে চায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।
বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্সের চেয়ারম্যান আকরাম খান বলেন, শ্রীলঙ্কা সফরের বিষয়ে একমত বোর্ড। এ সংক্রান্ত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত পাওয়া যাবে চলতি সপ্তাহেই। তবে আকরামের ভাষ্যমতে এ সফরের সূচিতে বিসিবি ওই সীমিত ওভারের ম্যাচও যুক্ত করতে চায়। তার কথায়, ‘আমরা শ্রীলঙ্কার সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি, আশা করি এই সপ্তাহেই সবকিছু চূড়ান্ত করা যাবে। যেহেতু করোনাকালীন সময়ে বাংলাদেশের অনেক ম্যাচ বাতিল হয়েছে সেহেতু এই টেস্ট সিরিজের সঙ্গে আমরা কিছু সীমিত ওভারের ম্যাচও যুক্ত করতে চাই। সেটি হতে পারে ওয়ানডে কিংবা টি-২০। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের সময় আমরা এসব বিষয় নিয়ে কথা বলব।’
শ্রীলঙ্কা যেতে হলে টাইগারদের প্রস্তুতির জন্য সেটি শুরুর প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। বিসিবি আয়োজিত ব্যক্তিগত অনুশীলনের সুযোগ গ্রহণ করেছে মাত্র ১৪ জন ক্রিকেটার। এ বিষয়ে আকরাম বলেন, ‘শ্রীলঙ্কা সফরে পাঠানোর আগে খেলোয়াড়দের ধাতস্ত করার জন্য কিছু অনুশীলন ম্যাচের আয়োজন করতে চায় বোর্ড। যত বেশি সম্ভব অনুশীলন ম্যাচের আয়োজন করতে চাই আমরা। কারণ দীর্ঘ সময়ের জন্য আমাদের ক্রিকেটাররা খেলা থেকে দূরে রয়েছে। অন্তত ১২ দিন হাতে রেখে আমরা শ্রীলঙ্কা যেতে চাই। যাতে আমাদের ছেলেরা ভালোভাবে প্রস্তুতি নিতে পারে।’
শ্রীলঙ্কায় বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল ও হাই পারফরম্যান্সে ইউনিটের মধ্যে অনুশীলন ম্যাচেরও আয়োজন করতে চায় বিসিবি। অবশ্য এমন ম্যাচ আগে কখনো হয়নি বা প্রয়োজন পড়েনি। এ দিকে কোভিড-১৯ সংক্রমণের আশঙ্কায় শ্রীলঙ্কা কর্তৃপক্ষ চায় না তাদের জাতীয় দলটি বিদেশী কোনো দল তথা বাংলাদেশী খেলোয়াড়দের সংস্পর্শে আসুক। আকরাম খানের কথায়, ‘পৃথিবীর সব দেশই তো করোনা নিয়ে সোচ্চার। তারা তাদের নিজেদের রক্ষার স্বার্থে অনেক সিদ্ধান্তই নিতে পারে। এ কারণে আমরা ওখানে নিজেদের মাঝেই অনুশীলন ম্যাচ খেলার কথা ভাবছি।’


আরো সংবাদ