০৪ আগস্ট ২০২০

ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুর্দান্ত জয়

-
24tkt

ইংল্যান্ডের হয়ে অভিষেক টেস্টে নেতৃত্ব দেয়া বেন স্টোকসের করা ইনিংসের ৬৫তম ওভারের দ্বিতীয় বলটি মিডউইকেটে ঠেলে দিয়ে সিঙ্গেল। জন ক্যাম্পবেলের সাথে জেসন হোল্ডারের মুষ্টিবদ্ধ হাত মেলানো দেখল সাউদাম্পটনের দর্শকহীন স্টেডিয়াম। করোনা-নিষেধাজ্ঞায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের চার উইকেটের এই ঐতিহাসিক জয়ের সাক্ষী হতে পারল না দর্শক। তবে টিভি পর্দার মাধ্যমে আইসিসির ২৩৮৮ নাম্বার টেস্ট ম্যাচটির সাক্ষী গোটা ক্রিকেট বিশ্ব ঠিকই হলো। বৈশ্বিক মহামারী করোনার মাঝে সব ধরনের সুরক্ষা নিয়ে নতুন শুরু এবং ক্রিকেটের প্রথম জয় ক্যারিবীয়দের নামের পাশেই লিখা হলো।
রোববার সকালে ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংস ৩১৩ রানে গুটিয়ে দিয়ে জয়ের জন্য ঠিক ২০০ রানের লক্ষ্য পেয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। টেস্টের শেষ দিনের পিচ ও ম্যাচের চতুর্থ ইনিংস, সব মিলিয়ে লক্ষ্যটা মোটেই সহজ ছিল না। শুরুতেই সেই প্রমাণ পেয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জোফরা আর্চার ও মার্ক উডের প্রথম স্পেলেই ২৭ রানে তিন উইকেট হারায় ক্যারিবিয়ানরা। তার ওপর আর্চারের বলে পায়ের আঙুলে চোট পেয়ে মাত্র এক রান করেই মাঠ ছেড়ে যেতে হয় ওপেনার ক্যাম্পবেলকে। মনে হচ্ছিল, ওয়েস্ট ইন্ডিজের আকাশে জমাট বাঁধছে কালো মেঘ। খুব কঠিন হয়ে পড়েছিল লড়াই; কিন্তু এই জায়গা থেকেই লড়াই চালিয়ে গেছেন জার্মেইন ব্ল্যাকউড। প্রথমে সঙ্গী পেয়েছিলেন গত ম্যাচে অর্ধশতক হাঁকানো রোস্টন চেজকে। ৩৭ রানে চেজ ফিরে গেলে ভাঙে ৬৩ রানের জুটি। পঞ্চম উইকেটে শেন ডাওরিচের সাথে গড়েন ৬৮ রানের জুটি। ২০ রান করে ডাওরিচ ফেরেন স্টোকসের শিকার হয়ে। অন্য দিকে টেস্ট ক্যারিয়ারে ১১তম অর্ধশতক করা ব্ল্যাকউড হাঁটছিলেন সেঞ্চুরির পথে; কিন্তু শতক থেকে মাত্র পাঁচ রান দূরে থেকে স্টোকসের বলে অ্যান্ডারসনের হাতে ক্যাচ হয়ে ফিরলেন ব্ল্যাকউড। জয়টা তখন ১১ রান দূরে দাঁড়িয়ে মুচকি হাসছে।
আবার মাঠে ফিরে এসে ক্যাম্পবেল-সঙ্গী পেলেন অধিনায়ক জেসন হোল্ডারকে। তুলে নিলেন কাক্সিক্ষত ওই ১১ রান। তিন টেস্টের সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এগিয়ে গেল ১-০ ব্যবধানে। আর্চার ৪৫ রানে নিয়েছেন তিন উইকেট, ৩৯ রানে দুই উইকেট স্টোকসের, উডের ৩৬ রানে একটি। কিন্তু যার ওপর সবচেয়ে বড় ভরসা ছিল ইংল্যান্ডের, সেই জেমস অ্যান্ডারসন উইকেটশূন্য।
গত বছর দেশের মাটিতে প্রবল প্রতাপান্বিত ইংল্যান্ডকে তিন টেস্টের সিরিজে ২-১-এ হারিয়ে চমকে দিয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এক বছর পর আইসিসি র্যাংকিংয়ের চার নম্বর দলকে তাদের ঘরের মাঠেই প্রথম টেস্টে হারিয়ে দিয়ে আট নম্বর দল ওয়েস্ট ইন্ডিজ কী বার্তা দিলো? বার্তা এটাই যে, ঐতিহ্যের প্রতি অঙ্গীকারটা তারা ভোলেনি। প্রথম ইনিংসের চার উইকেটের সাথে দ্বিতীয় ইনিংসে পাঁচ উইকেটÑ মোট ৯ উইকেট নিয়ে ম্যান অব দ্য ম্যাচ হন শ্যানন গ্যাব্রিয়েল।
সংক্ষিপ্ত স্কোর
ইংল্যান্ড : ২০৪ ও ৩১৩, ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৩১৮ ও ২০০/৬
ফল : ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৪ উইকেটে জিতে সিরিজে ১-০ এগিয়ে।
ম্যান অব দ্য ম্যাচ : শ্যানন গ্যাব্রিয়েল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)।


আরো সংবাদ

হিজবুল্লাহর জালে আটকা পড়েছে ইসরাইল! (২২৭১২)হামলায় মার্কিন রণতরীর ডামি ধ্বংস না হওয়ার কারণ জানালো ইরান (১৪৭৬৭)ভারতের যেকোনো অপকর্মের কঠিন জবাব দেয়ার হুমকি দিলো পাকিস্তান (৮৩২০)মরুভূমির ‘এয়ারলাইনের গোরস্তানে’ ফেলা হচ্ছে বহু বিমান (৮২৯৮)সাবেক সেনা কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যা : পুলিশের ২১ সদস্য প্রত্যাহার (৬৬৬৯)নেপালের সমর্থনে এবার লিপুলেখ পাসে সৈন্য বৃদ্ধি চীনের (৬৩০৬)তল্লাশি চৌকিতে সেনা কর্মকর্তার মৃত্যু দেশবাসীকে ক্ষুব্ধ করেছে: মির্জা ফখরুল (৫৮৯৯)আমিরাতের পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নিয়ে কেন সন্দিহান ইরান-কাতার? (৫৬৯৭)আবারো তাইওয়ান দখলের ঘোষণা দিল চীন (৫৬২০)করোনায় আক্রান্ত এমপিকে হেলিকপ্টারে ঢাকায় আনা হয়েছে (৪৯৯৯)