১০ আগস্ট ২০২০

স্কিলের ঘাটতিই হবে চ্যালেঞ্জ : মিঠুন

-
24tkt

জাতীয় দলের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন নিজেকে দেয়ার মতো কোনো সান্ত্বনা খুঁজে পান না। যখনি ভাবেন চারমাস মাঠের বাইরে তখনি গা শিউরে উঠে। এই মহামারীর সময়ে ঘরে বসে ফিটনেস নিয়ে কাজ করছেন। হালকা জিম আর রানিং চলছে। তাতে মাঠে ফেরার পর শারীরিক ক্ষতি পুষিয়ে নেয়া কঠিন হবে না বলেই মনে করেন তিনি। তবে ভয়টা স্কিল নিয়ে। ফিটনেসের চেয়ে স্কিল ঘাটতিই বেশি চ্যালেঞ্জ হবে বলে মনে করেন মিঠুন।
নয়া দিগন্তকে মিঠুন বলেন, ‘মাঠে নামলে, হুক, পুল, কাভার ড্রাইভ, ডিফেন্স সবকিছু নতুন করে শুরু করতে হবে। স্কিলের ঘাটতিই ভোগান্তির বড় কারণ হবে। আসলে এত লম্বা সময় আমি মাঠের বাইরে থাকিনি। আমরা যারা জাতীয় দলে খেলি বা দীর্ঘ দিন ধরে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলছি তাদের জন্য এটি পুরোপুরিই নতুন অভিজ্ঞতা। এত লম্বা সময় ধরে ব্যাট-বল ছাড়া আমরা থাকিনি। তাই আমি মনে করি, ফিটনেস যতটা না কঠিন হবে তার চেয়ে বেশি চ্যালেঞ্জ হবে স্কিলের ঘাটতি পুষিয়ে নিতে।’
মার্চে ক্রিকেট স্থগিত হওয়ার পর ধারণা করা হচ্ছিল হয়তো এক বা দুই মাসে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে। তাই ব্যাটিং বা বোলিং কৌশল নিয়ে খুব একটা সমস্যা হবে না। কিন্তু দিন যত গড়িয়েছে বিষয়টি উল্টো হয়েছে। এ নিয়ে মিঠুন বলেন, ‘আমরা যারা প্রফেশনাল ক্রিকেটার, তাদের ফিটনেস ফিরে পেতে খুব একটা সময় লাগবে না। মাঠে আসার পর ফিটনেস পুরোপুরি ফিরে পেতে ২ সপ্তাহের বেশি সময় লাগবে না। কিন্তু স্কিল নিয়ে কিছুই করতে পারিনি। তাতে স্কিলের যে ঘাটতি হয়েছে সেটি আমাদের খেলায় বড় প্রভাব ফেলবে। সবশেষ আশায় ছিলাম অন্তত এশিয়া কাপটা হবে। কিন্তু তা-ও হলো না। নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কা সফরও বাদ। এখন যদি টি-২০ বিশ্বকাপও না হয়, তাহলে পুরো বছরটাই আমাদের জীবন থেকে হারিয়ে যাবে। এতে করে শারীরিক, মানসিক, পারফরম্যান্স ও আর্থিক- চারটি বড় ক্ষতির মুখে পড়ছি।’


আরো সংবাদ