১১ জুলাই ২০২০

ভারতকে হারানো মানেই দারুণ কিছু : তামিম

-

বাংলাদেশ ভারত ক্রিকেট যুদ্ধ নতুন মাত্রা পেয়েছে গত কয়েক বছরে। দুই দেশেই এই লড়াই নিয়ে শুরু হয় ব্যাপক আলোচনা। পাকিস্তান-ভারত লড়াই নিয়ে যে ঝাঁজ আছে ক্রিকেট বিশ্বে, সেই দিকে যেন যাচ্ছে বাংলাদেশ-ভারত লড়াই। বাংলাদেশের সমানতালে লড়াই করার ক্ষমতাই এই যুদ্ধ জমিয়ে তুলেছে। টাইগার ওপেনার তামিম ইকবালও বলছেন, ভারতের বিপক্ষে জয় মানেই দারুণ কিছু।
ক্রিকেটবিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকইনফোর ভিডিও সাক্ষাৎকারে ধারাভাষ্যকার ও সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার সঞ্জয় মাঞ্জরেকারের প্রশ্নে এই মন্তব্য করেছেন তামিম। নিজের খেলোয়াড়ি জীবনের পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের স্মৃতি চারণ করে তামিমমের কাছে মাঞ্জরেকার জানতে চান, তাদের কাছে কোন দলকে হারানোর তাড়না বেশি। তামিম বললেন, ভারতকে হারানোই সবচেয়ে বড়।
টাইগার ওপেনার এর ব্যাখা দেন এভাবে, ‘ভারত এত শক্তিশালী একটা দল, ভারতের বিপক্ষে জয় মানে অন্য কিছু। আমার মনে হয় না, এটা ঘৃণা থেকে আসে বা এমন নয় যে ওদেরকে হারাতেই হবে। ব্যাপারটা হলো, সেরা দলকে হারানোর তৃপ্তি। সেই ধরনের মানসিকতা। পাকিস্তানকে হারানোও বড় বিষয়। আসলে পাকিস্তান-ভারত, অনেক বড় দল তারা, দীর্ঘ ঐতিহ্য তাদের। তাদের বিপক্ষে যেকোনো জয়ই বড় জয়।
দীর্ঘ এই সাক্ষাৎকারে ফিটনেস নিয়েও কথা বলেছেন। বলেছেন, নিজের মানসিকতা বদলের কথাও। তামিম বলেন, ‘খেলায় ফিটনেসের গুরুত্বটা বুঝতে অনেক সময়ে লেগেছে আমাদের। গত তিন-চার বছরে হয়তো আমরা বুঝতে পারছি, যথেষ্ট ফিট থাকতে হবে, টিভিতে যেন ভালো দেখায়, বিশাল পেট নিয়ে যেন মাঠে নামতে না হয়।’
২০১০ সালের দুর্দান্ত ইংল্যান্ড সফরের প্রসঙ্গ টেনে বলেন, ‘তখন আমার মানসিকতা ছিল এরকম যে, যতক্ষণ রান করছি, আমাকে কেমন দেখাচ্ছে, সেটা কোনো ব্যাপার নয়। এখন যদি আপনি ২০১৫ সালের আমাকে দেখেন, সেখান থেকে আমার ওজন ৯ কেজি কমেছে। ওই সময়টায় ফিটনেস নিয়ে অনেক খাটতে শুরু করেছি আমি। কৃতিত্ব দিতে হবে আমাদের ট্রেনারকেও।
ফিটনেস ভালো থাকার সুফল এখন খুব ভালোভাবে টের পান বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক। বলেন, ‘ফিটনেস ভালো থাকার সুবিধা অনেক। ক্লান্তি অনুভব হয় কম। বলের কাছে দ্রুত যাওয়া যায়। মানসিকতা ইতিবাচক থাকে। সবচেয়ে ভালো ব্যাপার হলো, নিজেকে নিয়ে ভালো অনুভূতি কাজ করে সবসময়।’
ফিটনেস নিয়ে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির সিরিয়াসনেস দেখেও তামিম এ বিষয়ে মনোযোগী হয়েছেন বলে জানান। আর বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে ফিটনেসের বিষয়ে মুশফিকুর রহীম তরুণ জন্য আদর্শ বলে মনে করেন তামিম।


আরো সংবাদ