০৪ এপ্রিল ২০২০

লাখ টাকার বিপরীতে নামমাত্র পারিশ্রমিক আজ শুরু মহিলা ফুটবল লিগ

-

অনেক চেষ্টা, নানা নাটক আর দীর্ঘ প্রতীক্ষা। সব কিছু পেছনে ফেলে আজ পর্দা উঠছে তৃতীয় মহিলা ফুটবল লিগের। সাত বছর পর হতে যাওয়া এই লিগে দলে অংশ নেয়া দলের সংখ্যাও সাতটি। সর্বশেষ ২০১৩ সালে হয়েছিল লিগ। আজ কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহি মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে বসুন্ধরা কিংস এবং বেগম আনোয়ারা স্পোর্টিং ক্লাবের ম্যাচ দিয়ে যাত্রা শুরু এবারের লিগের। বিকেল ৩টায় মাঠে গড়াবে এ খেলা। লিগের স্পন্সরও পেয়েছে বাফুফের মহিলা লিগ কমিটি। ট্রাইকোটেক্স এই লিগের স্পন্সর। তাদের পৃষ্ঠপোষক হিসেবে ঠিক করেছে চলো খেলি ফাউন্ডেশন। ট্রাইকোটেক্সের সাথে বাফুফের তিন বছরের চুক্তি। ট্রাইকোটেক্স শেরেবাংলা এ কে ফজলুল হকের নাতি এ কে ফায়াজুল হক রাজুর গার্মেন্ট প্রতিষ্ঠান। তিনি শেরেবাংলা ন্যাশনাল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান। চলো খেলি বাফুফের স্ট্র্যাটেজিক স্পন্সর। তাদের লক্ষ্য দেশব্যাপী মহিলা লিগকে ছড়িয়ে দেয়া। জানান চল খেলি ট্রাস্টের সেক্রেটারি মাজেদুল হক।
অনেক আশা নিয়েই এবারের লিগ শুরু। তবে যে মানের দল আশা করা হয়েছিল তেমনটা হয়নি। এক মাত্র বসুন্ধরা কিংসই লাখ লাখ টাকা পারিশ্রমিক দিয়ে ফুটবলারদের দলে টেনেছে। শিরোপা তাদের ঘরেই যাবে এটা নিশ্চিত। বাকি ছয় ক্লাব তাদের ফুটবলারদের নাম মাত্র পারিশ্রমিক দিচ্ছে। বিভিন্ন ক্লাব সূত্রে জানা গেছে, পেটে ভাতে ফুটবলার যেমন খেলবেন এবারের লিগে তেমনি ১০-১৫ হাজার টাকাও পেতে পারেন কোনো ক্লাবের ফুটবলাররা। মূলত বসুন্ধরা কিংস ছাড়া ঢাকার প্রতিষ্ঠিত আর কোনো ক্লাব মহিলা লিগে দল না গড়ায় টাকা উল্লেখ করার মতো পারিশ্রমিক পাচ্ছে না অধিকাংশ খেলোয়াড়। বসুন্ধরার অধিনায়ক সাবিনা খাতুন পাচ্ছেন পাঁচ লাখ টাকা। বাকিরা কমপক্ষে তিন লাখ টাকা করে। এর বাইরে এফসি উত্তরবঙ্গ এবং নাসরিন স্পোর্টিং ক্লাব মোটামুটি ভালো দল বানিয়েছে। বসুন্ধরা কিংসকে চ্যালেঞ্জ জানাতে পারে এই দুই দলই। তবে এ ক্ষেত্রে এগিয়ে নাসরিন স্পোর্টিং ক্লাবই। তাদের ফুটবলাররা বাফুফের ক্যাম্পে থেকে অনুশীলন করছে। জাতীয় দলের ১৭-১৮ ফুটবলার তাদের নিবন্ধিত।
এর বাইরে কুমিল্লা ইউনাইটেড, জামালপুরের কাচারীপাড়া একাদশ, বেগম আনোয়ারা স্পোর্টিং ক্লাব, স্প্যাটার্ন এম কে গ্যালাকটিকো সিলেট এফসিকে বলতে হবে সাধারণ মানের দলই। এই চার দলের পারস্পরিক লড়াই বেশ জমজমাট হবে। তবে সাত দলের ১৬১ ফুটবলার লিগ নিয়ে ব্যস্ত থাকলেও দর্শকের ভূমিকায় থাকতে হচ্ছে ক্লাব না পাওয়া সাজেদা, নাজমা, মারজিয়া, আনু চিং ও আনাইদের।
দুই পর্বের লিগ শেষে কোনো রেলিগেশন নেই। চ্যাম্পিয়ন দল পাবে দুই লাখ টাকা। রানার্সআপ দলের তহবিলে জমা পড়বে এক লাখ টাকা। আর বাফুফে প্রত্যেক দলকে অংশগ্রহণ ফি বাবদ দিচ্ছে দুই লাখ টাকা করে। গতকাল সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান বাফুফের মহিলা কমিটির চেয়ারম্যান মাহফুজা আক্তার কিরণ।
প্রথম রাউন্ডের ফিকশ্চার
২২ ফেব্রুয়ারি বসুন্ধরা কিংস- আনোয়ারা স্পোর্টিং ক্লাব ৩টা
২৩ ফেব্রুয়ারি কুমিল্লা ইউনাইটেড- কাচারি পাড়া একাদশ ১২টা
স্প্যাটার্ন গ্যালাকটিকো- নাসরিন স্পোর্টিং ৩টা
প্রথম রাউন্ডে বিরতি এফসি উত্তর বঙ্গের

 


আরো সংবাদ

আত্মহত্যার আগে মায়ের কাছে স্কুলছাত্রীর আবেগঘন চিঠি (১৩৫৩০)সিসিকের খাদ্য ফান্ডে খালেদা জিয়ার অনুদান (১২৬০৬)করোনা নিয়ে উদ্বিগ্ন খালেদা জিয়া, শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল (৯৩১৫)ভারতে তাবলিগিদের 'মানবতার শত্রু ' অভিহিত করে জাতীয় নিরাপত্তা আইন প্রয়োগ (৮৪৯০)করোনায় নিশ্চিহ্ন হয়ে গেল ইতালির একটি পরিবার (৭৮৬৪)করোনার মধ্যেও ইরান-যুক্তরাষ্ট্র আরেক যুদ্ধ (৭১৪০)করোনায় আটকে গেছে সাড়ে চার লাখ শিক্ষকের বেতন (৬৯৩১)ইসরাইলে গোঁড়া ইহুদির শহরে সবচেয়ে বেশি করোনার সংক্রমণ (৬৮৯০)ঢাকায় টিভি সাংবাদিক আক্রান্ত, একই চ্যানেলের ৪৭ জন কোয়ারান্টাইনে (৬৭৬১)করোনাভাইরাস ভয় : ইতালিতে প্রেমিকাকে হত্যা করল প্রেমিক (৬২৯৬)