২১ মে ২০২২
`

নতুন অতিথি

নতুন অতিথি -

নতুন অতিথি এসেছে, বাড়িজুড়ে সাজ সাজ রব। ঘরজুড়ে ঝিকিমিকি আলো জ্বলছে। কোথায় থেকে যেন নাম না জানা ফুলের ম ম ঘ্রাণ ভেসে আসছে। নতুন অতিথি তার আগমনী বার্তাকে স্মরণীয় করে রাখতে। শরীরের সব শক্তি দিয়ে কান্না করে উঠল। ঘরের সব মহিলারা আলহামদুলিল্লাহ বলে স্বস্তির নিঃশ্বাস নিলো।
কেউ একজন দৌড়ে আমার কাছে এসে বলল তোমার ভাতিজি হয়েছে। স্রষ্টার কাছে কৃতজ্ঞতা শিকার করলাম। অবশেষে স্রষ্টা আমাদের মুখ পানে তাকিয়েছেন। আমরা তিন ভাই মা-বাবার। আপন কোনো বোন নেই আমাদের। মেয়ে বেবি জন্ম গ্রহণ করায়, বাড়িজুড়ে সবাই খুশি। এই নতুন অতিথি আমাদের বাড়ির আগামী দিনের উজ্জ্বল নক্ষত্র!
বোনের অভাব অবশেষে পূর্ণ হলো। নতুন অতিথি মাশআল্লাহ! স্রষ্টার পরম নেয়ামত। দেহ অবয়ব যেন জান্নাতি মেহমান। নতুন অতিথির নাম রাখা হয়েছে মুফাত্তিহা জান্নাত হুমায়রা। দিনে দিনে অতিথি বড় হয়ে চলছে। ছোট বাচ্চা কোলে নিতে কোনো এক সময় খুব ভয় হতো। প্রস্রাব, পায়খানা করে দেবে। এখন বাড়িতে যে সময়টুকু কাটাই। হুমায়রাকে ছাড়া একটি মুহূর্ত কল্পনা করতে পারি না। ও কান্না করলে দৌড়ে গিয়ে কোলে নেই। গালে মুখে চুমু দেই। নরম তুল তুলে হাত ধরি অন্য রকম প্রশান্তি খেলা করে আমার মাঝে। আধো আধো কণ্ঠে কথা বলা, হাসি মাখা মুখ, হরিণ চোখের চাহনি। সব কিছু খুব ভালো লাগে। এখন হুমায়রা আমার কোলে উঠে দিনে কয়েক বার প্রস্রাব বা পায়খানা না করলে ওর ভালো লাগে না। এখন আর ঘৃণা হয় না। ভয় কাজ করে না ছোট বাচ্চা কোলে নিতে। এখন খাইতে বসলে হুমায়রা পায়খানা করে দিলেও আর ঘৃণা লাগে না। আমাদের নতুন অতিথির অনাগত দিনগুলো হোক অনাবিল সুন্দর! আল্লাহ নেক-হায়াত দিয়ে বাঁচিয়ে রাখুক অনেক বছর। সুন্দর পৃথিবীর আলো বাতাস গায়ে মেখে পূরণ করুক আমাদের স্বপ্নগুলো। শুভ হোক আমাদের বংশের নতুন প্রজন্মের প্রথম নক্ষত্রের পথ চলা।

 


আরো সংবাদ


premium cement