২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯, ১ রবিউল আওয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

বিশ্বজয়ী তাকরিমে মুগ্ধ সাফজয়ী তহুরা

বিশ্বজয়ী তাকরিমে মুগ্ধ সাফজয়ী তহুরা - ছবি : সংগৃহীত

তহুরা খাতুন। বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের অন্যতম সদস্য। মাত্রই কয়েক দিন হলো, নিজেরা দেশকে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ শিরোপা জিতিয়েছেন। টুর্নামেন্টের ফাইনালে নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে তারা যখন আলোচনার কেন্দ্রে, ঠিক তখনই পৃথিবীর আরেক প্রান্তে দেশের নাম উজ্জ্বল করলো ক্ষুদে হাফেজ সালেহ আহমাদ তাকরিম। সৌদি আরবে অনুষ্ঠিত বিশ্ব কুরআন প্রতিযোগিতায় বিশ্বের ১১১টি দেশের ১৫৩ জন হাফেজের মধ্যে তৃতীয় হয়েছে সে।

আরো পড়ুন- আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতায় ১১১ দেশের মধ্যে ৩য় বাংলাদেশের তাকরিম

নারী ফুটবলারদের শিরোপা লাভ ও পবিত্র কুরআন প্রতিযোগিতায় তাকরিমের বিশ্বজয়ের দারুণ এই আনন্দঘন মুহূর্তে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করলেন তহুরা। হাফেজ তাকরিমকে অভিনন্দন জানিয়েছেন বাংলাদেশী এই ফরোয়ার্ড।

শুক্রবার বিকেলে নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে তহুরা লেখেন, ‘মাশা আল্লাহ্! পবিত্র মক্কায় অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতায় বিশ্বের ১১১টি দেশের ১৫৩ জন প্রতিযোগীর মধ্যে বাংলাদেশের হাফেজ সালেহ আহমদ তাকরীম ৩য় স্থান অর্জন করেছেন। বিশ্বজয়ী কুরআনের সুমিষ্ট স্বরের পাখি হাফেজ তাকরীমকে আন্তরিক অভিনন্দন।’

লেখার শেষে লাল রঙের একটি হৃদয়ের ইমোজি ব্যবহার করেছেন তহুরা। তহুরার এই পোস্ট সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ ইতিবাচক সাড়া ফেলেছে। অনলাইনে সক্রিয়রা তহুরার এই পোস্টকে একধরনের ‘সাহসিকতা’ আখ্যায়িত করছেন।

আরো পড়ুন- তাকরিমকে শুভেচ্ছা জানালেন বিশিষ্টজনেরা

হাসান আল মাহমুদ নামের এক ফেসবুক ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘সাফ ফুটবলজয়ী তহুরাকে ধন্যবাদ। ‘ধর্মবিদ্বেষী’দের উচিত শিক্ষাটা সে দিয়ে দিল... আল্লাহপাক হলেন উত্তম পরিকল্পনাকারী। সাফকে যখন তোমরা ধার্মিকদের ডিভাইড করার অস্ত্র বানাচ্ছিলে, আল্লাহপাক তাকরিমকে সামনে এনে দিলেন। সুতরাং যার যার অবস্থান থেকে নম্রতার সাথে কাজ করাই শ্রেয়, সীমালঙ্ঘনকারীকে আল্লাহ পছন্দ করেন না।’


আরো সংবাদ


premium cement