২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭ আশ্বিন ১৪২৮, ১৪ সফর ১৪৪৩ হিজরি
`

‘শেষ ক্লাসটা নেয়া হলো না বাবার’

‘শেষ ক্লাসটা নেয়া হলো না বাবার’ - ছবি : সংগৃহীত

করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘ দেড় বছর বন্ধ থাকার পর আজ (রোববার) সারাদেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে পাঠদান শুরু হয়েছে। এতে শিক্ষার্থীরা অনেক উচ্ছ্বাসিত হলেও আক্ষেপ রয়েছে বিদ্যালয় খোলার আগে অবসরে যাওয়া অনেক শিক্ষকের। এসব শিক্ষক ও তাদের পরিবারের আক্ষেপের মূল কারণ হলো আনুষ্ঠানিকভাবে শেষ ক্লাসে যাওয়া হয়নি তাদের। তাদের সেই আক্ষেপ আবার প্রকাশ পায় সামাজিক যোগাযোগম্যাধ্যমে।

রোববার সকালে নিয়াজ মাহমুদ নামের একজন ব্যক্তি সদ্য অবসরে যাওয়া বাবাকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি আবেগঘন স্ট্যাটাস দেন।

পাঠকদের জন্য তার স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো:

‘আব্বুর অবসর....

সরকারি সিদ্ধান্তে দীর্ঘ যুদ্ধ শেষে ১২ সেপ্টেম্বর রোববার থেকে স্কুল কলেজ মাদ্রাসা খুলবে। শিক্ষার্থীরা প্রতিষ্ঠানে যাবে। শিক্ষকরাও যাবেন। সবাই উৎফুল্ল থাকবে। প্রাণ ফিরে পাবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো। শিক্ষার্থীদের কলকাকলীতে মুখর হবে ক্যাম্পাস।
দুই ধরণের শিক্ষকরা যাবেন না।

১. যারা দুনিয়ার জিন্দেগি শেষ করেছেন। এই কাতারে অনেক শিক্ষার্থীও রয়েছে। তাঁদের জন্য দোয়া করি আল্লাহ তায়ালা সবাইকে উত্তম পুরস্কার দেন।

২. শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার আগেই অবসরে গিয়েছেন বহু শিক্ষক। তাঁরা ভাবতেও পারেননি ২০২০ সালের ১৭ মার্চই হবে তাঁদের শেষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যাওয়া। কোভিডের কারণে ১৭ মাস আগে বন্ধ হলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এরপর আর পাঠদান করাতে যাননি আব্বু। খুলে দেয়ার ১২ দিন আগে ৩১ আগস্ট বাবা অবসরে গেলেন। আফসোস রয়ে গেল তাঁর শেষ ক্লাসটা নেয়া হলো না। দোয়া বাবার জন্য। আল্লাহ যেন তাঁকে সুস্থ্য রাখেন।’

দেখুন:


আরো সংবাদ


‘ক্রনিক মায়েলয়েড লিউকোমিয়া নিয়ে আতঙ্ক নয়’ পার্লামেন্টের দু’এমপিকে জেলে পুরল তিউনেসিয়ার সামরিক আদালত প্রধানমন্ত্রীর এসডিজি পুরস্কার বাংলাদেশের ইতিহাসে মাইলফলক হয়ে থাকবে : সেতুমন্ত্রী স্বামীর ঘরে ফিরতে কবিরাজের কাছে গিয়ে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান মালিক-শ্রমিকদের ধর্মঘট প্রত্যাহার ইলিশের ২৩ টনের প্রথম চালান বেনাপোল দিয়ে ভারতে রফতানি সাফের জন্য দল ঘোষণা করল বাফুফে বিশ্ব নেতৃত্বকে তালেবানের সাথে সম্পর্ক রাখতে বলল কাতার চীন এ বছর বিশ্বকে ২০০ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন দেবে : শি জিনপিং ফিলিস্তিন রাষ্ট্র ইসরাইলের সাথে সংঘাত সমাধানের ‘উত্তম পন্থা’ : বাইডেন বিদায় তিকি-তাকা, বিদায় বার্সেলোনারও?

সকল