২৮ অক্টোবর ২০২০

মহিষের হাত থেকে প্রাণে বাঁচলো সিংহ, অবিশ্বাস্য ভিডিও


একতাই বল। এই নীতিকথা পশুদের ক্ষেত্রেও সত্যি। দল বেঁধে থাকলে বিপদও যে কিছু করতে পারে না তা জীবনের অভিজ্ঞতা দিয়েই শিখে নেয় জঙ্গলের বাসিন্দারা। এমনই একটি ভিডিও ভাইরাল হল সোশ্যাল মিডিয়ায়। যা দেখে মানুষও হয়তো জোট বেঁধে লড়াইয়ের শিক্ষা নিতে পারে।

কেনিয়া ওয়াল্ডলাইফ সার্ভিসের (কেডব্লুএস) ভেরিফায়েড টুইটার হ্যান্ডলে ভিডিওটি পোস্ট করার পর এটি ভাইরাল হয়ে যায়। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ‘সম্মুখ সমরে’ এক দল সিংহ আর এক দল মহিষ। ভাবছেন এ তো অসম যুদ্ধের পরিস্থিতি। সিংহদের সঙ্গে মহিষরা পেরে উঠবে কী করে? এক দল তৃণভোজী আর তাদের সামনে বনের সব থেকে ভয়ঙ্কর শিকারিরা। কিন্তু এই ‘যুদ্ধের’ ফলাফল যেন অপ্রত্যাশিতই হল।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে ঘাসের জমির মাঝখান দিয়ে মাটির রাস্তা চলে গিয়েছে। আর সেই রাস্তায় শুয়ে রয়েছে কয়েকটি সিংহ। তারা যেন অলসভাবে শুয়ে বসে শিকারের অপেক্ষা করছে। আর সত্যিই সেই দিকেই এক দল ‘লোভনীয়’ শিকার এগিয়ে আসতে থাকে। এক দল মহিষ সেই রাস্তা দিয়েই আসছিল। কিন্তু সিংহগুলো এক সঙ্গে এতো মহিষ দেখে মনে হয় কিছুটা দ্বিধাগ্রস্ত হয়ে পড়ে। এই বিশাল বপুর এত মহিষ দেখে এগোবে কি এগোবে না ভাবতে শুরু করে। শেষ পর্যন্ত তারা পিছিয়ে যায়। এই মহিষের দলকে আক্রমণ করলে পেট ভরবে কিনা তার ঠিক নেই, তবে নিজেদের প্রাণটা যে যেতে পারে সে বিচক্ষণতা সিংহদের রয়েছে বলেই মনে হয়। তাই তারা মহিষের রাস্তা থেকেই সরে যায়।

তবে এখানেই শেষ নয়, মহিষের দলটি এবার যেন পাল্টা আক্রমণের পথে যায়। তারা ছত্রভঙ্গ হয়ে যাওয়া সিংহগুলোকে পাল্টা তাড়া করতে থাকে। সিংহগুলোও যেন প্রাণ বাঁচিয়ে পালাতে পারলে বাঁচে। এই গোটা ঘটনাই ধরা পড়ে কেনিয়ার নাইরোবি ন্যাশনাল পার্কে ঘুরতে যাওয়া কারোর ক্যামেরায়। গাড়ির মধ্যে থেকে গোটা ঘটনাটি ক্যামেরাবন্দি হয়। পরে সেটি বিভিন্ন টুইটার হ্যান্ডলে শেয়ার হয়। আনন্দবাজার

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন এখানে।


আরো সংবাদ