০৮ এপ্রিল ২০২০

হরিণছানার গুঁতোয় কাবু চিতা! শেষ হাসি কার? (ভিডিও)

ফের খাদ্য-খাদকের টানটান লড়াই, ফের সারভাইভাল অব দ্য ফিটেস্টের লড়াই ভাইরাল নেটবিশ্বে। দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রুগার ন্যাশনাল পার্কে সাফারি গাইডের তোলা একটি ভিডিও এই মুহূর্তে ঘোরছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

এই ভিডিওতে একটি ছোট্ট হরিণকে (দক্ষিণ আফ্রিকার এক বিশেষ প্রজাতির হরিণ) চিতার কবল থেকে বাঁচার আপ্রাণ চেষ্টা করতে দেখা যাচ্ছে। ভিডিওটি তোলেন অ্যান্ড্রি ফোরি।

ফোরি লেটেস্ট সাইটিংসকে বলেন, “ছোট্ট হরিণ শাবকটি কেবল ওখান থেকে পালাতে চেয়েছিল। তবে ওর গতিবেগ এতটাও ছিল না যে চিতার কবল থেকে মুক্তি পাবে।”

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, হরিণছানাটি অবিলম্বেই বুঝে যায় চিতার হাত থেকে তার মুক্তি মেলা ভার। তাই জীবন বাঁচাতে বারেবারেই চিতাকে মাথা দিয়ে গুঁতো মারার শেষ চেষ্টাটুকু করে চলে সে। তবে, লাভ হয়নি কিছুই।”

ফোরি আরও জানিয়েছেন, প্রথম দিকে ছোট্ট প্রাণিটি বেশ বিরক্তই করছিল চিতাটিকে। কিন্তু চিতা তাতে বিশেষ পাত্তা দেয়নি। দু'জনেই বেশ কিছুক্ষণ পাশাপাশিই ছিল। হরিণ শাবক আক্রমণাত্মক হয়ে উঠতে শুরু করলেই আস্তে আস্তে নড়েচড়ে ওঠে চিতাটি। প্রায় ১ ঘণ্টা ৪০ মিনিট দু'জনের মধ্যে আক্রমণ, পাল্টা থাবা মারা চলে। শেষে জেতে চিতাই।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে ছোট্ট হরিণ ছানাটিকে মেরে চিতাটি গভীর জঙ্গলে ঢুকে যাচ্ছে। গাইড ফোরি জানিয়েছেন, তিনি সর্বদাই চেষ্টা করেন শিকার এবং শিকারীর থেকে দূরত্ব বজায় রাখতে। তবে এই হরিণ ছানা আর চিতার বিষয়টি তার অদ্ভুত লেগেছিল বলেই ভিডিও করতে এগিয়ে যান।

তিনি জানিয়েছেন, জীবনে এমনটা দেখেননি তিনি। তিনি আরও জানান, ওই হরিণ ছানা বেঁচে গেলেও তার মা বা দল তাকে ফেরত নিত না কারণ তারা ওই শিশু হরিণের গায়ে চিতার গন্ধ পেত। এনডিটিভি।


আরো সংবাদ

সেই প্রিয়া সাহা করোনায় আক্রান্ত! (৫০৮৩৩)নিজ এলাকায় ত্রাণ দিয়ে ঢাকায় ফিরে করোনায় মৃত্যু, আতঙ্কে স্থানীয়রা (৪৪৬১১)বেওয়ারিশের মতো সারা রাত সঙ্গীতশিল্পীর লাশ পড়েছিল রাস্তায় (২৬৭২১)দীর্ঘদিন জেলখাটা আসামিদের মুক্তির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর (২০২৫৬)করোনা ছড়ানোয় চীনকে যে ভয়ঙ্কর শাস্তি দেয়ার দাবি উঠল জাতিসংঘে (১৬৩৮৯)কাশ্মিরে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে নিহত ভারতীয় দুর্ধর্ষ কমান্ডো দলের সব সদস্য (১৫৫২৩)রোজার ঈদের ছুটি পর্যন্ত বন্ধ হচ্ছে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান (১৩০৭৯)করোনার লক্ষণ নিয়ে নিজের বাড়িতে মরে পড়ে আছে ব্যবসায়ী, এগিয়ে আসছে না কেউ (১২৮০৫)ঢাকায় নতুন করে ৯টি এলাকা লকডাউন (১০৬৪৩)সবচেয়ে ভয়াবহ দিন আজ : মৃত্যু ৫, আক্রান্ত ৪১ (১০০৬১)