১৪ এপ্রিল ২০২১
`

হিজাবে বাঙালি নারী

কভারস্টোরি
-

আজ থেকে ১৫-২০ বছর আগেও বাংলাদেশের হিজাব পরা নারীরা ছিলেন ফ্যাশন থেকে বহুদূরে। ফ্যাশন ও হিজাব যেন ছিল দু’টি আলাদা আলাদা পৃথিবীর বস্তু; যার একটির সাথে অন্যটির দেখা হওয়া ছিল অসম্ভব। এই চিত্রটি বদলাতে শুরু করে আজ থেকে প্রায় ১০ বছর আগে যখন অনেক হিজাব পরা নারীই ধর্মীয় বিধান পালনের পাশাপাশি নিজেদের সুন্দর করে উপস্থাপনের জন্য পরনীয় হিজাবটিকে নতুনভাবে পরতে শুরু করেন। একসময় হিজাব মানেই ছিল কালো রঙ, সেই ধারণাও পাল্টে দিতে শুরু করেন হিজাবি নারীরা। একটা সময় দেখা যায় হিজাবী নারীদের এতটাই সুন্দর ও ফ্যাশনেবল লাগছে যে এমন অনেক নারী যারা আগে হিজাব পরতেন না, তারাও হিজাবের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে ওঠে। আজকাল তো দেশ-বিদেশের অনেক বিখ্যাত ফ্যাশন ব্লগাররা পর্যন্ত হিজাব পরেন।
হিজাব পরার কিছু সুবিধা
যদিও হিজাব পরা হয় ধর্মীয় বিধান মেনে চলার লক্ষ্যে, হিজাব কিন্তু কিছু বাড়তি সুবিধাও দেয়। প্রথম সুবিধাটি হলো, হিজাব পরলে চুল, গলা, ও ঘাড় রোদ ও ধুলাবালির হাত থেকে বাঁচে, এমনকি মুখমণ্ডলও কিছুটা রক্ষা পায় গ্রীষ্মের সূর্যের আক্রোশ থেকে। এতে একদিকে যেমন রোদে পুড়ে রঙ কালো হয় না, অন্যদিকে চুলও থাকে পরিষ্কার, ধুলাবালি হতে সুরক্ষিত। দ্বিতীয় সুবিধাটি হলো, হিজাব পরলে রোজ রোজ ভিন্ন ভিন্নভাবে চুল বাঁধার ঝামেলা নেই। রোজ অফিসে বা ক্লাসে একইভাবে চুল বেঁধে যেতে নিজের কাছেই বোরিং লাগে। আবার বিভিন্ন স্টাইল করে চুল বাঁধতে গেলে প্রচুর সময় নষ্ট হয়। যারা হিজাব পরেন, তারা এই ঝামেলা হতে সম্পূর্ণ মুক্ত।
হিজাবের সাথে মানানসই পোশাক
এ যুগের নারীরা সব ধরনের পোশাকের সাথেই হিজাব পরছেন, হোক সেটা পশ্চিমা পোশাক কিংবা শাড়ি, সব কিছুর সাথেই হিজাব মানিয়ে যায়। আজকালকার বিয়েবাড়িগুলোতে গেলে যেমন চোখে পড়ে শাড়ির সাথে ম্যাচিং করে হিজাব পরা বেশ কিছু অতিথি, তেমনি অফিস আদালতেও চোখে পড়ে শাড়ি, সালওয়ার কামিজ, বোরকা এবং পশ্চিমা পোশাকের সাথে মিলিয়ে পরিপাটি করে হিজাব পরা নারী; হিজাব যে শুধু বোরকার সাথেই পরা যায় এই ধারনাটি এখন সেকেলে হয়ে এসেছে। হিজাব পরলে যে মেক-আপ করা যাবে না সেই ধারণা থেকেও প্রগতিশীল নারীরা বের হয়ে এসেছেন।

গহনা ও মেক-আপ
হিজাবের সাথে মোটামুটি সব ধরনের মেক-আপই মানানসই, তবে সেটা অবশ্যই হতে হবে জায়গা ও উপলক্ষের সাথে। বিয়ের দাওয়াতে বা জমকালো কোনো পার্টিতে জমকালো হিজাব, ব্রোচ ও গয়নার সাথে জমকালো সাজ সাজতে কোনো বাধা নেই। কিন্তু অফিসে বা অন্যান্য জায়গায় তো আর জমকালো সাজ মানাবে না। তাই অফিসে বা অন্যান্য জায়গায় উপলক্ষ বুঝে হিজাব বেছে নিন, সাথে সাজটাও যেন হয় ছিমছাম ও পরিপাটি। গয়নার বেলায়ও আপনি আপনার রুচি অনুযায়ী গয়না বেছে নিতে পারেন, তবে এ ক্ষেত্রে একটি সমস্যা হলো হিজাব দিয়ে দু’টি কানই ঢেকে থাকে। তাই হিজাব পরা নারীরা কানের দুল পরতে পারেন না। এ ছাড়া হিজাবের সাথে মোটামুটি সব গয়নাই পরা যায় পোশাক ও উপলক্ষের সাথে মিল রেখে।

 



আরো সংবাদ


করোনায় মৃত্যুতে নতুন রেকর্ডে কঠোর লকডাউন শুরু গোবিন্দগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের ৩ জনসহ নিহত ৪ অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে অনৈতিক কাজের অভিযোগে কালিয়াকৈরে যুবক আটক দুর্নীতির অভিযোগে ৮ বছরের জন্য নিষিদ্ধ ক্রিকেটার হিথ স্ট্রিক ব্যাপক বিক্ষোভের পর পাকিস্তানে ‘নিষিদ্ধ’ হচ্ছে উগ্র ডানপন্থী দল টিএলপি এবার হেফাজতের সহকারী মহাসচিব গ্রেফতার ওয়াশিংটন-তেহরান আলোচনায় পরমাণু কেন্দ্রে নাশকতার ঘটনার কালো ছায়া যুক্তরাষ্ট্রকে চীন : প্লিজ আগুন নিয়ে খেলবেন না স্বাস্থ্যবিধি মেনে মসজিদে নামাজ আদায়ের সুযোগ দিতে জামায়াত আমিরের আহ্বান রমজানের প্রথম দিন যেভাবে কাটলো খালেদা জিয়ার করোনা সংক্রমণের নতুন রেকর্ড, তবু লকডাউনে যাবে না ভারত

সকল