১৪ এপ্রিল ২০২১
`

ঘরোয়া উপায়ে দূর করুন ব্ল্যাকহেডস

-

আমাদের ত্বকে রয়েছে অসংখ্য লোমকূপ যা দিয়ে ত্বক নিঃশ্বাস নেয়। কখনো কখনো মৃতকোষ ও ত্বক থেকে নিঃসৃত তেল লোমকূপের গোড়ায় জমে গোড়াগুলো বন্ধ হয়ে যায়, এভাবেই ব্ল্যাকহেডসের জন্ম হয়। ত্বকের স্বাভাবিক মেলানিন এবং তেল বাতাসের সংস্পর্শে এলে তা অক্সিডাইজ হয়ে কালো রঙ ধারণ করে। রঙ কালো দেখানোর কারণে অনেকেই ব্ল্যাকহেডসকে ময়লা ভেবে ভুল করেন। কিন্তু আসলে ময়লার সাথে ব্ল্যাকহেডসের কোনো সম্পর্ক নেই। আপনার চেহারায় ব্ল্যাকহেডস থাকা মানে এই নয় যে, আপনি অপরিচ্ছন্ন। ব্ল্যাকহেডস সাধারণত থুতনি, নাক ও নাকের আশপাশের অংশেই বেশি দেখা যায়। ব্ল্যাকহেডস অনেক সময় বংশগত কারণেও হয়ে থাকে। এছাড়া গর্ভাবস্থায়, টিনেজ বয়সে ব্ল্যাকহেডসের উপদ্রব হয়ে থাকে। বিভিন্ন ওষুধ যেমনÑ করটিক স্টেরয়েড, এন্ড্রজেন বা জন্মনিয়ন্ত্রণ পিল সেবন করলেও ব্ল্যাকহেডস হতে পারে। হতাশার কথা হলো, ব্ল্যাকহেডসের পেছনের সব কারণ এখনো পুরোপুরি আবিষ্কৃত হয়নি।
ব্ল্যাকহেডস কখনো স্ক্র্যাবিং করে দূর করা যায় না। ব্ল্যাকহেডস লোমকূপের এত গভীর পর্যন্ত থাকে যে স্ক্র্যাবিং করে তা নির্মূল হবে না, উল্টো অতিরিক্ত স্ক্র্যাবিং করার ফলে ত্বকে জ্বালাপোড়া হতে পারে। ত্বক বেশি ঘষলে বা স্ক্র্যাবিং করলে ত্বকের সেবাম উৎপাদনও বৃদ্ধি পায়। স্ট্রিপ ব্যবহার করলেও ব্ল্যাকহেডস একেবারে দূর হয় না, শুধু ক্ষণকালের জন্য ব্ল্যাকহেডসের উপরি ভাগ দূর হয়। তাই প্রয়োজনের অতিরিক্ত স্ক্র্যাবিং করা যাবে না, বা স্ট্রিপসও ব্যবহার করা যাবে না।
কিছু ঘরোয়া সমাধান
ঘরে বসেই তৈরি করে নিতে পারেন ব্ল্যাকহেডস দূর করার কার্যকরী প্রসাধনী। এতে যা যা উপকরণ লাগে সব আপনার রান্নাঘরেই আছে, দামও কম।
প্রথমে মুখে গরম পানির ভাপ নিন। একটি ডিমের সাদা অংশ অনেকক্ষণ বিট করুন যেন একটা ফোমের মতো প্যাক তৈরি হয়। এটা মুখে অল্প অল্প করে লাগিয়ে নিন। ডিমকে আঠা হিসেবে ব্যবহার করে পুরো মুখে শুকনো টিস্যু পেপার বিছিয়ে দিন। এবার শুকাতে দিন। টিস্যু বেশি ভেজা হলে প্রয়োজনে আরেক লেয়ার টিস্যু লাগান মুখে। পুরোপুরি শুকিয়ে গেলে টিস্যু নিচ থেকে উপর দিকে টেনে তুলুন। ভালোভাবে মুখ ধুয়ে বরফ ঘষে নিন।
এক মগ ফুটন্ত পানিতে ২টি গ্রিন টিব্যাগ দিয়ে আধা ঘণ্টা রেখে দিন। তারপর ফ্রিজে ২ ঘণ্টা রেখে চা ঠাণ্ডা করে নিন। মৃদু কোনো ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে মুছে নিন। তুলা দিয়ে ঠাণ্ডা গ্রিন টি ব্ল্যাকহেডসের ওপর লাগান। যদি মুখে ব্রণ থাকে তাহলে সারা মুখে লাগান। ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। নরম কাপড় দিয়ে মুখ মুছে ময়েশ্চারাইজার লাগান। অন্তত ছয় সপ্তাহ একটানা প্রতিদিন কমপক্ষে একবার করে লাগাতে হবে। এক দিনও বাদ দেয়া যাবে না। নিয়মিত গ্রিন টি খেলেও ব্রণ ও ব্ল্যাকহেডস কমে।
৩ টেবিল চামচ টকদই, ২ টেবিল চামচ আস্ত ওটস মিশিয়ে এক ঘণ্টা রেখে দিন। তারপর ভালোমতো মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করে নিন। সারা মুখে লাগান। শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম পানিতে ধুয়ে ফেলুন। তারপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে আবারো মুখ ধুয়ে নিন।
ব্ল্যাকহেডস দূর করতে মেথি খুবই কার্যকরী একটি উপাদান হিসেবে প্রমাণিত। ১ টেবিল চামচ মেথি ৬ ঘণ্টা পানিতে ভিজিয়ে রেখে তা দিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এই পেস্ট ব্ল্যাকহেডসের ওপর লাগিয়ে ১০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।



আরো সংবাদ


গোবিন্দগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের ৩ জনসহ নিহত ৪ অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে অনৈতিক কাজের অভিযোগে কালিয়াকৈরে যুবক আটক দুর্নীতির অভিযোগে ৮ বছরের জন্য নিষিদ্ধ ক্রিকেটার হিথ স্ট্রিক ব্যাপক বিক্ষোভের পর পাকিস্তানে ‘নিষিদ্ধ’ হচ্ছে উগ্র ডানপন্থী দল টিএলপি এবার হেফাজতের সহকারী মহাসচিব গ্রেফতার ওয়াশিংটন-তেহরান আলোচনায় পরমাণু কেন্দ্রে নাশকতার ঘটনার কালো ছায়া যুক্তরাষ্ট্রকে চীন : প্লিজ আগুন নিয়ে খেলবেন না স্বাস্থ্যবিধি মেনে মসজিদে নামাজ আদায়ের সুযোগ দিতে জামায়াত আমিরের আহ্বান রমজানের প্রথম দিন যেভাবে কাটলো খালেদা জিয়ার করোনা সংক্রমণের নতুন রেকর্ড, তবু লকডাউনে যাবে না ভারত নোয়াখালীতে স্ত্রীকে হত্যার চেষ্টার অভিযোগে স্বামী কারাগারে

সকল