০১ ডিসেম্বর ২০২০

ত্বকের উপর ৯ ঘণ্টা বেঁচে থাকে করোনাভাইরাস, দাবি গবেষকদের


করোনা আবহে অত্যাবশ্যক পণ্যে পরিণত হয়েছে মাস্ক এবং স্যানিটাইজার। প্রতিষেধক আবিষ্কার হয়ে গেলেও, খুব শীঘ্র তার হাত থেকে রেহাই মিলেছে না বলে ইতোমধ্যেই আভাস দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

পরিচ্ছন্নতা নিয়ে আরও সাবধান না হলে আরো বিপদ ঘনিয়ে আসছে বলে এবার জানিয়ে দিলেন জাপানের কোভিড গবেষকরা। তাদের দাবি, মানুষের ত্বকের উপর ৯ ঘণ্টা পর্যন্ত সক্রিয় থাকতে পারে কোভিড-১৯ ভাইরাস। তাই কোভিড আক্রান্ত বা অন্য কেউ যার ত্বকে আগে থেকেই ভাইরাসটি রয়েছে, তাদের সংস্পর্শে এলে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি অনেকটা বেড়ে যেতে পারে।

স্পর্শ থেকে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে কি না, তা নিয়ে গবেষণা করছিলেন ওই গবেষকরা। ক্লিনিক্যাল ইনফেকশাস ডিজিসেস জার্নালে তাদের গবেষণাপত্রটি প্রকাশ হয়েছে। তাতে সাধারণ ফ্লু ভাইরাসের (এ ক্ষেত্রে ইনফ্লুয়েঞ্জা এ ভাইরাস) সঙ্গে তুলনা টেনে বলা হয়েছে, যে প্যাথোজেন (ক্ষতিকারক অনুজীব) ফ্লু তৈরি করে, মানব ত্বকের উপর তা সাধারণত ১০৮ মিনিট বেঁচে থাকে। কিন্তু সার্স-কোভ-২ (কোভিড-১৯ সৃষ্টিকারী ভাইরাস) মানব ত্বকের উপর ৯ ঘণ্টা পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে।

তবে ল্যাবরেটরির ভিতরের পরিবেশ এবং বাইরের পরিবেশ যেহেতু এক নয়, তাই বিষয়টি আরো বিশদে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখা প্রয়োজন বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

কোভিড রোগীর মৃত্যুর পর অটোপসি করে তার ত্বকের নমুনা সংগ্রহ করে গবেষণাটি চালিয়েছেন জাপানের গবেষকরা। তাতে দেখা গেছে, ইথানল প্রয়োগের ১৫ সেকেন্ডের মধ্যে করোনাভাইরাস এবং ফ্লু ভাইরাস নিস্ক্রিয় হয়ে যায়। হ্যান্ড স্যানিটাইজারেও ইথানল থাকে। তাই ঘন ঘন হাত ধোয়ার উপর জোর দিয়েছেন গবেষকরা।

সংক্রমণ ঠেকাতে ঘন ঘন হাত ধোয়া যে জরুরি, শুরু থেকেই তাতে জোর দিয়ে আসছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)।

সূত্র : আনন্দবাজার


আরো সংবাদ