১৩ আগস্ট ২০২২
`

সিলেটে আইম্মাহ পরিষদের ২য় দফা ত্রাণ বিতরণ

সিলেটে আইম্মাহ পরিষদের ২য় দফা ত্রাণ বিতরণ। - ছবি : নয়া দিগন্ত

সিলেটের বালাগঞ্জে বানভাসিদের মধ্যে দ্বিতীয় দফা ত্রাণ বিতরণ ও নগদ অর্থ প্রদান করেছে বাংলাদেশ আইম্মাহ পরিষদ।

মঙ্গলবার সংগঠনটির উদ্যোগে বালিগঞ্জ থানার খান্দিগাঁও, আমপারা, রুগনপুর, দেওয়ান বাজার ইউনিয়নে শতাধিক বানভাসি মানুষের মাঝে জরুরি খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ প্রদান করা হয়। এ সময় স্থানীয় বেশ কয়েকটি ক্ষতিগ্রস্ত মাদরাসায়ও অর্থ সহযোগিতা প্রদান করে সংস্থাটি।

বাংলাদেশ আইম্মাহ্ পরিষদের মহাসচিব মাওলানা এনামুল হক মূসা উপস্থিত বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের উদ্দেশে বলেন, বন্যার শুরু থেকে এদেশের আলেম-ওলামা ও ইমাম-খতীবগন প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন স্থানে বন্যার্তদের মাঝে খাদ্য, বস্ত্র, ওষুধ, বিশুদ্ধ পানিসহ নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করে আসছে। গত সপ্তাহে আমরা সুনামগঞ্জে ত্রাণ বিতরণ করেছি। তারই ধারাবাহিকতায় আজ আপনাদের খেদমতে কিছু হাদিয়া নিয়ে এসেছি।

তিনি আরো বলেন, আমাদের সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি শাইখুল হাদিস আল্লামা মুহিউদ্দীন রাব্বানী গুরুতর অসুস্থ থাকায় আপনাদের মাঝে উপস্থিত হতে পারেননি। তিনি আপনাদেরকে সালাম জানিয়ে বলেছেন, বন্যা যতদিন থাকবে ততদিন ইনশাআল্লাহ বাংলাদেশ আইম্মাহ পরিষদ বন্যাকবলিতদের পাশে থাকবে।

বাংলাদেশ আইম্মাহ পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আফসার মাহমুদ তার বক্তব্যে বলেন, হাদিসের ভাষ্যানুযায়ী, মুসলমানরা সবাই এক দেহের ন্যায়। সর্বোত্তম মানুষ সে যে মানুষের কল্যাণে বেশি কাজ করে থাকে। এ কারণেই আজ আপনাদের দুয়ারে আসা। আরো অনেক বেশি ভালো লাগতো, যদি আরো বেশি সামগ্রী নিয়ে হাজির হতে পারতাম।

স্থানীয়দের পক্ষ থেকে জেলা আইম্মাহ পরিষদের সভাপতি মাওলানা আতিকুর রহমান বলেন, দেশের মানুষের এই ক্রান্তিকালে জাতি দেখেছে, আলেম-ওলামা এবং তাওহীদি জনতাই সবসময় কিভাবে মানবতার সেবায় এগিয়ে এসেছে। আজকে সেক্যুলার শাহবাগীদের কোনো সাড়াশব্দও নেই। ওলামায়ে কেরাম জাতির এই দুর্দিনে কোটি কোটি টাকার ত্রাণ নিয়ে এগিয়ে এসেছেন। আমরা স্থানীয় মানুষদের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ আইম্মাহ পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটিকে মোবারকবাদ এবং শুকরিয়া জানাই।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের মহাসচিব মাওলানা এনামুল হক মূসা, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আফসার মাহমুদ, জেলা সভাপতি মাওলানা আতিকুর রহমান, মাওলানা মুঈনুল হক, হাফেজ তাহের আলী, মাওলানা হুসাইন আহমাদ প্রমুখ।


আরো সংবাদ


premium cement