২৫ নভেম্বর ২০২০

প্র শ্নো ত্ত র

প্র শ্নো ত্ত র - ফাইল ছবি

প্রশ্ন : তাহিয়া কাসেম : আমার কিছু আত্মীয় প্রতিদিন ‘হাক্কানি পীরের দরূদ’ পড়েন। এটা জায়েজ নাকি বিদয়াত?

উত্তর : মাওলানা লিয়াকত আলী- দুরূদ তো হয় শুধু আল্লাহর রাসূল সা:-এর নামে। তার প্রতি দুরূদ পাঠের নির্দেশ এসেছে কুরআন মজিদে। হাদিস শরিফেও এসেছে, আল্লাহর রাসূল সা: ইরশাদ করেছেন, যে ব্যক্তির কাছে আমার নাম উচ্চারিত হলো, অথচ সে আমার ওপর দুরূদ পাঠ করল না, সে-ই প্রকৃত কৃপণ। তবে কোনো পীর-বুজুর্গের নামে দুরূদ বলে কিছু নেই। নবীদের পরে সাহাবায়ে কেরামের মর্যাদা ও সম্মান সবচেয়ে বেশি হলেও তাদের নামেও কোনো দুরূদ নেই। তাদের নামের সাথে দোয়াসূচক বাক্য বা রাজিয়াল্লাহু আনহু পাঠ করতে হয়। তেমনি অন্যান্য মনীষীর নামের সাথে রহমাতুল্লাহি আলাইহি পাঠ করার নিয়ম আছে। সুতরাং এটি স্পষ্ট, হাক্কানি পীরের দুরূদ একটি ভিত্তিহীন বিষয়। এটি পাঠ করার প্রথা একটি বিদয়াত।


আরো সংবাদ