০১ জুন ২০২০
করোনা প্রসঙ্গে মুফতি ইসমাইল মেনক

মহা ক্ষমতাবানের ওপর ভরসা রাখুন নবীর সা: পরামর্শ মেনে ঘরে থাকুন

মুফতি ইসমাইল মেনক - সংগৃহীত

হোম কোয়ারেন্টিন বা ঘরে থাকা বর্তমানে একটি আলোচিত বিষয়। বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা মানুষদের ঘরে অবস্থানেই প্রধান সমাধান দেখছেন। মহামারীর সময় ঘরে থাকতে বলেছেন মহানবী হজরত মুহাম্মদ সা:। ১৪০০ বছর আগে ছড়িয়ে পড়া রোগ থেকে বাঁচতে নবীজীই এ বিষয়ে দিকনির্দেশনা দিয়ে গেছেন।
আর এ বিষয়টিই ওঠে এসেছে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মুসলিম স্কলার মুফতি ইসমাইল মেনকের গত শুক্রবারের জুমার খুতবায়।

জিম্বাবুয়ের নাগরিক মুফতি ইসমাইল মেনক দেশটির কাউন্সিল অব ইসলামিক স্কলার্সের ফতোয়া বিভাগের প্রধান। তিনি জর্ডানের রয়্যাল আল বাইত ইনস্টিটিউটের পক্ষ থেকে করা ইসলামিক চিন্তার জন্য বিশ্বের ৫০০ জন প্রভাবশালী মুসলমানের তালিকার একজন। মুফতি মেনক পড়াশোনা করেছেন মদিনায়।

জুমার খুতবায় মুফতি মেনক বলেছেন, ভাই ও বোনেরা, বিশ্বাসীদের প্রতি আল্লাহ পাকের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনা হলো- ইত্তাকুল্লাহ। যার অর্থ আল্লাহর প্রতি বিশ্বাসকে জোরদার করা। আল্লাহ পাকের নির্দেশনার ব্যাপারে আমাদের সচেতন হতে হবে। সৃষ্টিকর্তাকে নিয়ে এখনই বিশেষভাবে ভাবার সময়। ভাবুন কে আপনাকে সৃষ্টি করেছেন এবং তিনি কেন সৃষ্টি করেছেন? নিজেকে প্রশ্ন করুনÑ জীবন প্রদীপ নিভে গেলে কী হবে আপনার পরিণতি? আল্লাহ পাকের সাথে সম্পর্ক উন্নয়নই হলো ইত্তাকুল্লাহর সঠিক অর্থ।

খুতবায় তিনি বলেন, ভাই ও বোনেরা, আজ শুক্রবার মার্চের ২৭ তারিখ, আমরা বেশির ভাগই জুমার সালাত একসাথে আদায় করতে পারছি না। আমরা সবাই কষ্ট পাচ্ছি। তাই আজকের এই খুতবার মাধ্যমে আমি আপনাদের কিছু বলতে চাই। আপনি যদি সত্যিকারের মুমিন হয়ে থাকেন, তা হলে তাকিয়ে দেখুন বিশ্বের দিকে। আমরা আশা করছি, খুব শিগগিরই আমরা এ পরিস্থিতি থেকে পরিত্রাণ পাবো ইনশা আল্লাহ। এখানে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। তবে চার পাশের চ্যালেঞ্জগুলো আমাদের স্বীকার করতে হবে। করোনাভাইরাসে অনেকেই আক্রান্ত হচ্ছেন, মারা যাচ্ছেন, আবার অনেকে সুস্থ হয়ে ঘরেও ফিরছেন। আমাদের মহানবী সা: প্রায় ১৪ শ’ বছর আগে এ ব্যাপারে বলে গেছেন, মহামারীর সময়গুলোতে নিজ বাড়িতে অবস্থান করতে হবে। তাকিয়ে দেখুন চার পাশে সমাজের ধনী-গরিব আজকে একই কথা বলছেন, ‘সচেতন থাকুন, ঘরে থাকুন’। ক্ষমতাবান, দুর্বল, সব ধর্মের মানুষ, আজ একই কথা বলছেন। ঘরে থাকুন।

খুতবায় মুফতি মেনক আরো বলেন, আপনারা কি জানেন, আয়শা রা: সূত্রে বুখারি শরিফের একটি হাদিসে রয়েছে, যেখানে নবী করিম সা: বলেছেন, ‘যদি তুমি সতর্কতার জন্য বাড়িতে অবস্থান করো এবং ধৈর্য ধরো, তবে আল্লাহ পাক অবশ্যই তার জন্য পুরস্কৃত করবেন।’ এখানে ধৈর্য ধারণের কথা বলা হচ্ছে। কারণ মানুষ স্বাভাবিকভাবেই কাজ ছাড়া বাড়িতে অবস্থান করতে চায় না। কাজ ছাড়া বাড়িতে বসে থাকা তার জন্য কঠিন। কিন্তু মহামারী রুখতে যদি আপনি নিজ বাড়িতে অবস্থান করেন তবে আল্লাহ পাক অবশ্যই সাহায্য করবেন। মহানবী বলেছেন, ‘অসুস্থ অবস্থায় কেউ কর্মক্ষেত্রে যাবেন না। আল্লাহ পাকের ওপর বিশ্বাস রাখতে হবে। আক্রান্ত জায়গায় গেলে সেখানে অবস্থা করতে হবে। কেউ আক্রান্ত এলাকার বাইরে আসবেন না অথবা বাইরে থেকে কেউ আক্রান্ত জায়গায় যাবেন না।’
মুফতি মেনক বলেন, লকডাউন মেনে নিজেকে আটকে রাখুন। আইসোলেশন অবস্থায় থাকুন। নিজের জন্য যা ভালো তা করাও এক ধরনের ইবাদত। তবে অলস সময় পার করবেন না; যা ভালো তাই করুন। মহানবীর সা: নির্দেশনা মেনে চলাও সুন্নাত। তাই ভাই ও বোনেরা, আপনি যে ধর্মের বা ক্ষমতাবানই হন না কেন বাড়িতে অবস্থান করুন। আরো একটি বিষয়ে আপনাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। একজন মহানবীকে সা: জিজ্ঞেস করলেন, আমরা কিভাবে রক্ষা পাবো? রোগ-শোক, দুর্যোগ থেকে। তিনি হাদিসে তিনটি বিষয় উল্লেখ করেছেন।

প্রথমত, ‘মুখের কথাকে সংযত করো। তুমি কী বলছ তা নিয়ে সচেতন থাকো।’ তাই সচেতন থাকুন আপনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কোনো তথ্য বা বার্তা শেয়ারের ক্ষেত্রে সচেতন থাকুন। ভুল তথ্য ছড়ানো থেকে বিরত থাকুন। অশ্লীল বাক্য ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। নিজের জিহ্বাকে সংযত করতে হবে। মানুষ তার মোবাইল ফোনকে অমানবিক কাজে ব্যবহার করছে। ভুলে যাবেন না একদিন আল্লাহর সামনে দাঁড়াতে হবে। তিনি সবাইকে দেখছেন। আল্লাহকে নারাজ করবেন না।

দ্বিতীয়ত, বাড়িতে থাকুন। পরিবারের সাথে সময় কাটান। আমি এখন জিম্বাবুয়ে আমার বাড়ি থেকে টেকনোলজির মাধ্যমে আপনাদের সাথে যোগাযোগ করছি। সময়গুলোকে এভাবে ভালো কাজে লাগান।
তৃতীয়ত, আল্লাহর ওপর বিশ্বাস রাখুন। নিজের কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করুন। ঘরে বসে থাকা সময়গুলোতে জ্ঞান চর্চা করুন। ভেঙে পড়বেন না। যারা বিপদগ্রস্ত তাদের জন্য প্রার্থনা করুন। আল্লাহ পাক এই ভাইরাস থেকে আমাদের রক্ষা করুক। আতঙ্কিত হবেন না। তবে পরিস্থিতিকে গুরুত্বসহকারে নিন। স্বাস্থ্য নির্দেশনাগুলো মেনে চলুন। নিজেকে রক্ষা করাও ইবাদতের সমান। আজ সব ক্ষমতাবান জাতি বিপদগ্রস্ত। তাই মহা ক্ষমতাবান আল্লাহর ওপর বিশ্বাস রাখুন।


আরো সংবাদ





justin tv maltepe evden eve nakliyat knight online indir hatay web tasarım ko cuce Friv buy Instagram likes www.catunited.com buy Instagram likes cheap Adiyaman tutunu