০৫ জুলাই ২০২২, ২১ আষাঢ় ১৪২৯, ৫ জিলহজ ১৪৪৩
`

শ্বশুর বাড়ি থেকে জামাইয়ের গলাকাটা লাশ উদ্ধার


নীলফামারীর সৈয়দপুরে শ্বশুর বাড়ি থেকে ঘরজামাইয়ের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে সৈয়দপুর উপজেলার ঢেলাপীর উত্তরা আবাসন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত যুবকের নাম আলমগীর হোসেন আংগির (২৭)। তিনি সৈয়দপুর শহরের বাংগালীপুর নিজপাড়ার তছলিম উদ্দিনের ছেলে। তিনি পেশায় একজন অটোরিকশাচালক।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, নিহত আলমগীর সাত বছর আগে উত্তরা আবাসনের আতাউর রহমানের মেয়ে মোসাঃ আতিকা বেগমকে বিয়ে করে শ্বশুর বাড়িতেই বসবাস করেন। তাদের সংসারে দুই ছেলে সন্তান আছে। তার স্ত্রী নীলফামারী উত্তরা ইপিজেড এ চাকরি করেন।

জানা যায়, বুধবার সকালে স্ত্রী আতিকা প্রতিদিনের মতো ইপিজেড চলে যান। বিকেল ৫টায় আলমগীরের ভাই উত্তরা আবাসনের বাসিন্দা আতিকুল ইসলাম ও ফরমান সংবাদ পান যে তাদের ভাইকে গলা কেটে নিজ ঘরে ফেলে রাখা হয়েছে। এই খবর পেয়ে তারা দ্রুত আলমগীরের শ্বশুর বাড়িতে যায়।

এ সময় তারা দেখতে পান তাদের ভাই গলা কাটা অবস্থায় বিছানায় পড়ে আছেন। পাশে তার শাশুড়ি হাইজানীসহ আরো তিন থেকে চারজন বসে আছে। এই পরিস্থিতিতে আতাউল তার ভাইকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে দ্রুত সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে দায়িত্বরত চিকিৎসক আলমগীরকে মৃত ঘোষণা করেন।

সৈয়দপুর থানায় খবর দেয়া হলে পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল) সারওয়ার আলম। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ নীলফামারী মর্গে পাঠানোসহ প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল হাসনাত খাঁন বলেন, লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোট পাওয়ার পর হত্যা না আত্মহত্যা জানা যাবে।


আরো সংবাদ


premium cement