০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ৪ জিলহজ ১৪৪৩
`

কুকুরের কামড়ে ৫ ছাগলের মৃত্যু, থানায় অভিযোগ


দিনাজপুর জেলার নবাবগঞ্জ উপজেলায় পোষা কুকুর দিয়ে পাঁচটি ছাগল মেরে ফেলার অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার মাহামুদপুর ইউনিয়নের ফতেপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ওসমান আলী নবাবগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ওই ইউনিয়নের পশ্চিম ফতেপুর গ্রামের চামড়া ব্যবসায়ী মোঃ তাহাজুল ইসলাম বিভিন্ন এলাকা থেকে গরু ছাগলের চামড়া ক্রয় করে নিজ বাড়িতে এনে প্রক্রিয়াজাত করে দেশের বিভিন্ন আড়তে বিক্রি করেন। চামড়া থেকে ছাড়ানো মাংস ও চর্বি খাওয়ানোর জন্য পাঁচটি কুকুর পালন করেন তাহাজুল। কুকুরগুলো এর আগে বেশ কয়েকটি ছাগল মেরে ফেলে। এতে গ্রামবাসী কুকুরগুলোকে অপসারণের জন্য তাহাজুলকে মৌখিকভাবে বলে। কিন্তু, গ্রামবাসীর কথা আমলে না নিয়ে নিজ সুবিধার্থে তার বাড়িতে কুকুরগুলো লালন-পালন করেন তিনি। এ পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার দুপুরে সাংবাদিক ওসমান আলী তার বাড়ির পাশে নিজ জমিতে বেঁধে রাখা পাঁচটি ছাগলকে তাহাজুলের কুকুরগুলো কামড় দিয়ে মেরে ফেলে। এ সময় আরো তিনটি ছাগল নিখোঁজ হয়।

ভুক্তভোগীর ধারণা ওই ছাগল তিনটিও কুকুর মেরে ফেলে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে গেছে। এতে করে প্রায় ৪০ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে নবাবগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) তাওহেদুল ইসলাম তৌহিদ জানান, অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


5===
গুজরাটে দেয়াল ধসে ১২ শ্রমিক নিহত
নয়া দিগন্ত অনলাইন
ভারতের গুজরাটে লবণ প্যাকেজিং কারখানার দেয়াল ধসে কমপক্ষে ১২ শ্রমিক নিহত হয়েছেন।

বুধবার দুপুরে গুজরাটের হালভাদ শিল্প এলাকায় অবস্থিত সাগর সল্ট কারখানায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দেশটির গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, বুধবার দুপুরে হঠাৎ কারখানার একটি দেয়াল ভেঙে পড়ে। ঘটনার সময় সেখানে বেশ কয়েকজন শ্রমিক কাজ করছিলেন। এখন পর্যন্ত ১২ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আহত হয়েছেন আরো অনেক শ্রমিক। তবে কতজন সে সময় কারখানার ভেতরে ছিল তা এখনো পর্যন্ত জানা যায়নি। তবে হতাহতের সংখ্যা আর বাড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

রাজ্যের শ্রম ও কর্মসংস্থানমন্ত্রী এবং স্থানীয় বিধায়ক ব্রিজেশ মের্জা বলেছেন, কারখানার ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকে পড়া অন্যদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

দুর্ঘটনার পরপরই টুইট বার্তায় শোক প্রকাশ করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। নিজ রাজ্যের এই দুর্ঘটনায় নিহতদের প্রতি শোক জানিয়ে টুইটে তিনি লিখেছেন, দেয়াল ধসে প্রাণহানির ঘটনা অত্যন্ত হৃদয়বিদারক। এই দুঃসময়ে আমি শোকসন্তপ্ত পরিবারগুলোর প্রতি সমবেদনা জানাই।

টুইটে আহতদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন মোদি। তিনি বলেছেন, স্থানীয় কর্তৃপক্ষ ক্ষতিগ্রস্তদের সম্ভাব্য সব ধরনের সহায়তা দিচ্ছে।

এই ঘটনায় যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের স্বজনদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় ত্রাণ তহবিল (পিএমএনআরএফ) থেকে দুই লাখ করে রুপি সহায়তার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। এছাড়া আহতদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার করে রুপি দেয়া হবে।

সূত্র : ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস


আরো সংবাদ


premium cement