২২ মে ২০২২
`

কৃষিকাজ করেই কোটিপতি, ২ গাছে ১ মণ বেগুন

কৃষিকাজ করেই কোটিপতি, ২ গাছে ১ মণ বেগুন -

কৃষিকাজ করেই কোটিপতি হয়েছেন আমির হোসেন নামের গাইবান্ধার এক কৃষক। সম্প্রতি মাত্র দু’টি গাছে এক মণ বেগুন ফলানোর পর আলোচনায় এসেছেন তিনি।

আমির হোসেনের বাড়ি জেলার সাঘাটা উপজেলার মুক্তিনগর ইউনিয়নের পুটিমারী গ্রামে। আজ থেকে ৩৫ বছর আগে পাঁচ হাজার টাকা ঋণ করে মাত্র ছয় শতক জমিতে সবজি চাষের মাধ্যমে তার কৃষিকাজের শুরু। একেক করে পেয়ারা, টমেটো, আদা, হলুদ, সুপারি, কলা, মালটা প্রভৃতি চাষ করে সফলতা পেয়েছেন তিনি।

গণমাধ্যমকে তিনি জানালেন, এখন প্রতি বছর চাষাবাদ থেকে তার যে মুনাফা হয় তার পরিমাণ ৫ থেকে ৬ লাখ টাকা। এভাবেই এখন তিনি কোটিপতি।

জানিয়েছেন ১০ থেকে ১২ ফুট উচ্চতার তার বিশেষ দু’টি বেগুন গাছ নিয়েও। ‘চলতি মৌসুমের চারায় গাছ দু’টি জন্মেছে। দু’টি গাছে বেগুন ধরেছে অন্তত এক মণ। শুরুতে প্রতিদিন অন্তত এক থেকে দেড় কেজি বেগুন তুলতাম কিন্তু এখন সিদ্ধান্ত নিয়েছি আর তুলব না; বরং বেগুনগুলো দিয়ে বীজ তৈরি করব। তবে সেগুলো বাজারে বিক্রি না করে কৃষকদের বিলিয়ে দিতে চাই আমি।’

দেশব্যাপী এখন আলোচনায় এলেও কৃষিকাজে তার সফলতা আগে থেকেই স্বীকৃত। এর আগে প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদক পেয়েছেন তিনি। বেশ আগে থেকেই স্থানীয় অনেক কৃষক তার থেকে কৃষি পরামর্শ গ্রহণ করে সফলতা পেয়েছেন।

আমির হোসেনের এই সফলতা অর্জনে তাকে সার্বক্ষণিক সহযোগিতা করেছেন স্ত্রী করিমন বেগম। কৃষিকাজের পাশাপাশি তারা তাদের ছেলেমেয়েরও শিক্ষিত করে গড়ে তুলছেন। তাদের এক ছেলে ও দুই মেয়ে। সবার বড় ছেলে আয়নুর রহমান স্নাতক পাসের পর বর্তমানে গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডে কর্মরত। এইচএসসি পর্যন্ত পড়ার পর বড় মেয়ে লিপি বেগমকে বিয়ে দেয়া হয়। ছোট মেয়ে আরাফা আক্তার এ বছর বগুড়ায় স্নাতকে অধ্যয়নরত।


আরো সংবাদ


premium cement