১৩ মে ২০২১
`

লিচু গাছের আমটি ছিঁড়ে নেয়ার কথা স্বীকার করলেন মেম্বার

লিচু গাছের আমটি ছিঁড়ে নেয়ার কথা স্বীকার করলেন মেম্বার - ছবি - সংগৃহীত

ঠাকুরগাঁওয়ে লিচু গাছের সাড়া জাগানো আমটি নিজেই ছিঁড়ে ফেলেছেন বলে স্বীকার করলেন সাবেক মেম্বার সিকিম। মঙ্গলবার বেলা ২টার দিকে সিকিম আম ছিঁড়ে ফেলার কথা স্বীকার করেন।

সকালে রাগের মাথায় তিনি এ কাজ করেছেন। তবে তিনি নিজের ভুল বুঝতে পেরে দুঃখ প্রকাশও করেছেন। আমটি এখন গাছের মালিক আব্দুর রহমানের কাছে রয়েছে।

আব্দুর রহমান বলেন, এলাকার সাবেক মেম্বার সিকিম সকালে লিচু গাছ থেকে আমটি ছিঁড়ে ফেলেছে। এতে করে যারা আমটি দেখতে আসছে তারা হতাশ হয়ে ফিরে যাচ্ছে। মেম্বার আমটি ছিঁড়ে ঠিক করেননি।

অভিযুক্ত সাবেক মেম্বার সিকিমের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এলাকায় লিচু গাছটিতে আমটি দেখার জন্য সারাদিন অনেক দূর থেকে গাড়ি নিয়ে মানুষ এসে ভিড় করছে। আম দেখতে এসে সোমবার আমার ভাতিজা মোটরসাইকেল এক্সিডেন্ট করে আহত হয়েছে। তাই রাগের মাথায় আমটি ছিঁড়ে ফেলেছি। পরে বুঝতে পেরেছি কাজটি ঠিক হয়নি।

প্রসঙ্গত, সদর উপজেলার ছোট বালিয়া গ্রামের আব্দুর রহমানের (মটকি) বাড়িতে একটি লিচু গাছের একটি ডালে ছোট ছোট ৯টি লিচু ধরেছে। ওই গাছে লিচুর একটি থোকায় লিচুর সাথে আম ধরে আছে দেখা যায়। বিষয়টি মটকির নাতি হৃদয় প্রথম দেখতে পায়। সে বিষয়টি তার দাদাকে জানায় ও পরে এলাকার লোকজন জানতে পারেন। ঘটনাটি এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি করে।

এ ব্যাপারে ঠাকুরগাঁও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কৃষি কর্মকর্তা (প্রশিক্ষণ) মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, লিচু গাছে আম ধরার বিষয়টি একটি ব্যতিক্রম ঘটনা। এর কোন বৈজ্ঞানিক কারণ বা গ্রামার নেই।

ঠাকুরগাঁও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. আবু হোসেন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বলেন, লিচুর গাছে আম আকৃতির ফল ধরা পরাগায়ন বা অন্য কোনো মাধ্যমে হওয়ার কথা নয়। এখানে গবেষণার বিষয় রয়েছে।

লিচু ফলটি বিকৃত হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে মন্তব্য করেছিলেন তিনি।

সূত্র : ইউএনবি



আরো সংবাদ