৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি
`

দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকের সাথে সংঘর্ষ, ৩ ঘণ্টা পর যান চলাচল শুরু

দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকের সাথে সংঘর্ষ, ৩ ঘণ্টা পর যান চলাচল শুরু - ছবি : নয়া দিগন্ত

পাবনার ঈশ্বরদী থেকে ছেড়ে আসা ঢালারচরগামী আন্তঃনগর ‘ঢালারচর এক্সপ্রেস’ ট্রেনের সাথে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে ইঞ্জিন বিকল হয়ে পাবনা-রাজশাহী রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকে।

বৃহস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে পাবনা-রাজশাহী রেলরুটের পাবনা সদর উপজেলার মহেন্দ্রপুর রেলক্রসিং মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। এতে পাবনা-ঢাকা মহাসড়কে প্রায় ৩ ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে।

সকাল ৮টার দিকে দুর্ঘটনাস্থল থেকে ট্রেনটি সরিয়ে পাবনা স্টেশনে নেয়া হলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের পাকশি বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা (ডিটিও) আনোয়ার হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার ভোরে রড বোঝাই ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মহেন্দ্রপুর রেলক্রসিংয়ের আইল্যান্ড ভেঙে রেললাইনের পাশে দাঁড়িয়ে থাকে। এ সময় পাবনার ঈশ্বরদী রেলওয়ে স্টেশন থেকে ঢালারচরের উদ্দেশে ছেড়ে যায় ঢালারচর এক্সপ্রেস নামের ট্রেন। ট্রেনটি পাবনা স্টেশন পার হয় মহেন্দ্রপুর রেলক্রসিং মোড়ে পৌঁছালে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকের সাথে সংঘর্ষ হয়। খবর পেয়ে পাকশি বিভাগীয় রেলওয়ে কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে আসেন। তবে এ ঘটনায় কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। এ সময় পাবনা-ঢাকা মহাসড়কে অন্তত ৩ ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে এবং দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়।

ঈশ্বরদী লোকোমোটিভ কারখানা থেকে উদ্ধারকারী ইঞ্জিন বিকল হওয়া থেকে ইঞ্জিনকে সরানোর পর ঢালারচর এক্সপ্রেস ট্রেনটি দুর্ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে পাবনা স্টেশনে নেয়ার পর যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়েই আমরা ঘটনাস্থলে যাই। ট্রেন ও ট্রাকের সংঘর্ষ হওয়ায় রাস্তার দু’পাশে যানজট তৈরি হয়। যানজট নিরসনে পুলিশ কাজ করে। ট্রেনটি সরানোর পর যান চলাচল শুরু করে।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের পাকশি বিভাগীয় রেলওয়ের ব্যবস্থাপক (ডিআরএম) শাহীদুল ইসলাম বলেন, ট্রেনটি দুর্ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। অল্প সময়ের মধ্যে বিকল্প ইঞ্জিন দিয়ে আমরা দ্রুত সময়ের মধ্যে ট্রেনটি চালানোর ব্যবস্থা করব।



আরো সংবাদ