১২ এপ্রিল ২০২১
`
রাবিতে মানববন্ধনে বক্তারা

‘ক্ষমতায় টিকে থাকতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন’

-

কারাগারে লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর প্রতিবাদ ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি জানিয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র-শিক্ষক-অভিভাবক ঐক্য পরিষদ। ঐক্য পরিষদের আয়োজনে অনুষ্ঠিত এক মানববন্ধনে অংশ নিয়ে বক্তারা বলেছেন, ‘ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্যই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন তৈরি করা হয়েছে। অবিলম্বে বিতর্কিত আিইনটি বাতিল করতে হবে।’

সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ বুদ্ধিজীবী চত্বরে মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানানো হয়।

মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা লেখক মুশতাক হত্যার প্রতিবাদ জানিয়ে বিভিন্ন ধরনের প্ল্যাকার্ড বহন করেন।

মানববন্ধনে উপস্থিত হয়ে নৃবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. বখতিয়ার আহমেদ বলেন, ‘এই কালো আইন খুব তাড়াতাড়ি বাতিল হবে তা আমরা মনে করি না। কেননা ক্ষমতার মসনদে টিকে থাকার জন্যই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রণয়ন করা হয়েছে। তাই আইন বাতিলের জন্য আমাদের উচিৎ হবে আন্দোলন অব্যাহত রাখা।’

আইনটিকে সংবিধান পরিপন্থী উল্লেখ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের অধ্যাপক ড. ইফতিখারুল আলম মাসউদ বলেন, ‘বাংলাদেশ রাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠার চেতনা আজ ভূলুণ্ঠিত। মানুষের বাক-স্বাধীনতা আজ কারারুদ্ধ।’ তিনি আরো বলেন, ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনটি দেশের সংবিধানবিরোধী। সরকারকে অতি দ্রুত এই কালো আইন বাতিল করতে হবে।’

রাকসু আন্দোলন মঞ্চের সমন্বয়ক আব্দুল মজিদ অন্তরের সঞ্চালনায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন গণযোগাযোগ বিভাগের অধ্যাপক ড. কাজী মামুন হায়দার, ছাত্র-শিক্ষক-অভিভাবক ঐক্য মঞ্চের আহ্বায়ক ও ফোকলোর বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আমিরুল ইসলাম কনক, রাজশাহী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আসলাম-উদ-দৌলা, অ্যাডভোকেট মুর্শিদ আলম, অ্যাডভোকেট হাসিব উদ্দিন ও রিদম শাহারিয়ার প্রমুখ।



আরো সংবাদ